গ্যারি উইলসন (ক্রিকেটার)

আইরিশ ক্রিকেটার

গ্যারি ক্রেগ উইলসন (জন্ম: ৫ ফেব্রুয়ারি, ১৯৮৬) কাউন্টি ডাউনের ডানডনাল্ড এলাকায় জন্মগ্রহণকারী আইরিশ ক্রিকেটারআয়ারল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য গ্যারি উইলসন মূলতঃ উইকেট-কিপারের দায়িত্ব পালন করেন। পাশাপাশি ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলেন। ইংল্যান্ডের ঘরোয়া কাউন্টি ক্রিকেটে সারে দলের প্রতিনিধিত্ব করছেন।

গ্যারি উইলসন
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামগ্যারি ক্রেগ উইলসন
জন্ম (1986-02-05) ৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৮৬ (বয়স ৩৪)
ডানডনাল্ড, কাউন্টি ডাউন, উত্তর আয়ারল্যান্ড
ডাকনামগাজ
উচ্চতা৫ ফুট ১০ ইঞ্চি (১.৭৮ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
ভূমিকাউইকেট-কিপার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ১৯)
২৩ জুন ২০০৭ বনাম ভারত
শেষ ওডিআই২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ বনাম সংযুক্ত আরব আমিরাত
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ১১)
২ আগস্ট ২০০৮ বনাম স্কটল্যান্ড
শেষ টি২০আই২১ মে ২০১৪ বনাম নেদারল্যান্ডস
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০০৮-বর্তমানসারে (দল নং ১৪)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই টি২০আই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ৫৪ ৩৪ ৬০ ১৩৬
রানের সংখ্যা ১,২১০ ৫১১ ২,৫৫৩ ২,৫৩৩
ব্যাটিং গড় ২৫.৭৪ ২০.৪৪ ৩৪.০৪ ২৩.০২
১০০/৫০ ১/৮ ০/০ ৩/১৪ ১/১৬
সর্বোচ্চ রান ১১৩ ৪১* ১৬০* ১১৩
বল করেছে ১০৮
উইকেট
বোলিং গড়
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - - -
সেরা বোলিং
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৪৪/৯ ১৮/৩ ১০৩/৩ ৯৮/২২
উৎস: Gary Wilson, espncricinfo, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

২০০৪ সালে আয়ারল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলে খেলছেন। ঐ বছরেই অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের মাধ্যমে আয়ারল্যান্ড ক্রিকেট দলে প্রতিনিধিত্ব করেন। দুই বছর পর ২০০৬ সালে পুণরায় ঐ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন ও তার দল ত্রয়োদশ স্থান দখল করে। ২০০৫ সালে আইসিসি আন্তঃমহাদেশীয় কাপে খেলেন।

২০০৮ সাল থেকে ইংল্যান্ডের ঘরোয়া কাউন্টি ক্রিকেটে সারে দলের সদস্য তিনি। আগস্ট, ২০১০ সালে লিচেস্টারশায়ারের বিপক্ষে উইলসন তার প্রথম সেঞ্চুরি করেন। ছয় নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে ২৩৫ বল মোকাবেলা করে ১২৫ রান সংগ্রহ করেন।[১] ২০১১ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ চলাকালীন তিনি সারে দলের পক্ষে ২০১২ সাল পর্যন্ত চুক্তি নবায়ণ করার আগ্রহ ব্যক্ত করেন।[২] জুন, ২০১৪ সালে সারে কর্তৃপক্ষ তাকে অধিনায়ক মনোনীত করে। ওভালে তিনি অপরাজিত ১৬০ রান করে অধিনায়কত্বের দক্ষতা প্রদর্শন করেন। ২০ আগস্ট, ২০১৪ তারিখে উইলসন কাউন্টি ক্যাপ লাভ করেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটসম্পাদনা

২৩ জুন, ২০০৭ তারিখে স্টরমন্টে অনুষ্ঠিত একদিনের আন্তর্জাতিকে ভারতের বিপক্ষে অভিষেক ঘটে। ২০১১ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ডের ১৫-সদস্যদের তালিকায় স্থান পান।[৩]

ক্রিকেট আয়ারল্যান্ড কর্তৃপক্ষ ৫ জানুয়ারি, ২০১৫ তারিখে ২০১৫ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের জন্য উইলসন-সহ ১৫-সদস্যের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করে।[৪] ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৫ তারিখে আয়ারল্যান্ড দল গ্রুপ-পর্বে সংযুক্ত আরব আমিরাত দলের বিপক্ষে অংশগ্রহণ করে। খেলায় তিনি দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮০ রান তোলাসহ ২টি ডিসমিসালে জড়িত ছিলেন। এরফলে তার দল ২ উইকেটের জয় পায়।[৫] খেলায় তিনি ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার লাভ করেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. f52537 Leicestershire v Surrey: LV County Championship 2010 (Division 2), Cricket Archive, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৩-১৫ 
  2. Ireland's Wilson extends Surrey deal, Cricinfo, ৮ মার্চ ২০১১, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০৩-১৫ 
  3. Ireland pick Ed Joyce for World Cup, Cricinfo, ১৯ জানুয়ারি ২০১১, সংগ্রহের তারিখ ২০১১-০১-২৭ 
  4. ""World Cup 2015: Ireland name unchanged squad""। BBC Sport। সংগ্রহের তারিখ ২২ জানুয়ারি ২০১৫ 
  5. "Wilson, K O'Brien seal tense win"espncricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৫ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা