প্রধান মেনু খুলুন

স্যার জন অ্যান্থনি কোয়েল, সিবিই (ইংরেজি: John Anthony Quayle; ৭ সেপ্টেম্বর ১৯১৩ - ২০ অক্টোবর ১৯৮৯) ছিলেন একজন ইংরেজ অভিনেতা ও মঞ্চ নির্দেশক। তিনি মঞ্চ, টেলিভিশন ও ত্রিশের অধিক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।[১] আইস কোল্ড ইন অ্যালেক্স (১৯৫৮) চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তিনি শ্রেষ্ঠ ব্রিটিশ অভিনেতা বিভাগে বাফটা পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। এছাড়া তিনি অ্যান অব দ্য থাউজেন্ড ডেজ (১৯৬৯) চলচ্চিত্রে টমাস উলসি চরিত্রে অভিনয় করে শ্রেষ্ঠ পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে একাডেমি পুরস্কারগোল্ডেন গ্লোব পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। তার অভিনীত অন্যান্য উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র হল দ্য রং ম্যান (১৯৫৭), দ্য গানস অব নাভারোন (১৯৬১) ও লরেন্স অব অ্যারাবিয়া (১৯৬৩)।


অ্যান্থনি কোয়েল

Anthony Quayle-publicity.jpg
দ্য স্টোরি অব ডেভিড (১৯৭৪) চলচ্চিত্রে কোয়েল
স্থানীয় নাম
Anthony Quayle
জন্ম
জন অ্যান্থনি কোয়েল

(১৯১৩-০৯-০৭)৭ সেপ্টেম্বর ১৯১৩
এইন্সডেল,[ক] সাউথপোর্ট, ল্যাঙ্কাশায়ার,[খ] ইংল্যান্ড
মৃত্যু২০ অক্টোবর ১৯৮৯(1989-10-20) (বয়স ৭৬)
চেলসি, লন্ডন, ইংল্যান্ড
পেশাঅভিনেতা, মঞ্চ নির্দেশক
কার্যকাল১৯৩৫–১৯৮৯

টেলিভিশনে তিনি ১৯৭৪ সালে সেভেন্থ কিউবি মিনি ধারাবাহিকে অভিনয়ের জন্য বিশেষ হাস্যরসাত্মক বা নাট্য অনুষ্ঠানে পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে প্রাইমটাইম এমি পুরস্কার অর্জন করেন এবং ১৯৮০ সালে মাসাডা ধারাবাহিকে সীমিত ধারাবাহিক বা বিশেষ অনুষ্ঠানে পার্শ্ব অভিনেতা বিভাগে আরেকটি প্রাইমটাইম এমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন। মঞ্চে তিনি শেকসপিয়ারীয় নাটকে অভিনয় করে প্রসিদ্ধি অর্জন করেন। ব্রডওয়ে মঞ্চে তিনি টামবারলেইন দ্য গ্রেট (১৯৫৬) ও গ্যালিলিও (১৯৬৭) নাটকে নাম ভূমিকায় অভিনয়ের জন্য স্মরণীয়।

তিনি ১৯৫২ সালে অর্ডার অব দ্য ব্রিটিশ এম্পায়ারের কমান্ডার এবং ১৯৮৫ সালে নাইট উপাধিতে ভূষিত হন।[১]

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

কোয়েল ১৯১৩ সালের ৭ই অক্টোবর ল্যাঙ্কাশায়ারের সাউথপোর্টের এইন্সডেলে এক মানক্স পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন।[২] তার পিতা ল্যাঙ্কাশায়ারের একজন আইনজীবী ছিলেন।[১] তিনি প্রাইভেট অ্যাবারলি হল স্কুলে পড়াশোনা করেন ও ১৯৩০ সালে রাগবি স্কুল থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন এবং লন্ডনের রয়্যাল একাডেমি অব ড্রামাটিক আর্টে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। সঙ্গীতহলে কিছুদিন কাজের পর তিনি ১৯৩২ সালে ওল্ড ভিসে যোগদান করেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় তিনি ব্রিটিশ সেনা কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দেন এবং নর্দামবারল্যান্ডে সহায়ক ইউনিটের এরিয়া কমান্ডার হিসেবে নিযুক্ত হন।

টীকাসম্পাদনা

  1. ১৯১২ সালে এইন্সডেল সাউথপোর্ট কান্ট্রি বরার অংশ হয়।
  2. ১৯৭৪ সালের ১লা এপ্রিলের পূর্বে সাউথপোর্ট ল্যাঙ্কাশায়ারের অংশ ছিল।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. কলিন্স, গ্লেন (২১ অক্টোবর ১৯৮৯)। "Sir Anthony Quayle, British Actor And Theater Director, Dies at 76"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস। সংগ্রহের তারিখ ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  2. "Anthony Quayle"বায়োগ্রাফি (ইংরেজি ভাষায়)। ২৩ মার্চ ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা