স্কারফেস (উপন্যাস)

স্কারফেস হল মার্কিন লেখক আর্মিটেজ ট্রেইল রচিত ইংরেজি ভাষার উপন্যাস। এটি ১৯২৯ সালে রচিত হয় এবং ১৯৩০ সালে প্রকাশিত হয়। এই উপন্যাস অবলম্বনে ১৯৩২ সালে একই নামের চলচ্চিত্র নির্মিত হয়। ১৯৩০ সালে মাত্র ২৮ বছর বয়সে লেখক ট্রেইল মৃত্যুবরণ করেন।[১]

স্কারফেস
Scarface
লেখকআর্মিটেজ ট্রেইল
দেশমার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
ভাষাইংরেজি
ধরনঅপরাধ
প্রকাশিতনিউ ইয়র্ক সিটি
প্রকাশকএ এল বার্ট অ্যান্ড কোং
প্রকাশনার তারিখ
১৯৩০
বাংলায় প্রকাশিত
১ জানুয়ারি ১৯৩০
মিডিয়া ধরনমুদ্রিত (হার্ডকভার, পেপারব্যাক)
পৃষ্ঠাসংখ্যা২৮৬
আইএসবিএন978-1558801196
ওসিএলসি1801693
এলসি শ্রেণীPZ3.T679 Sc

গল্প সংক্ষেপসম্পাদনা

এই বইয়ের গল্প গ্যাংস্টার আল কাপোনের জীবনী হতে অনুপ্রাণিত, যার ডাকনাম ছিল "স্কারফেস"। গল্পে টনি স্কারফেস কামোন্তে আল স্প্রিংগোলার অপরাধীদের নেতা হওয়ার পর শিকাগোর অবৈধ মাদক ব্যবসায়ে কর্তৃত্ব স্থাপন করতে চান। তিনি তার ভাইয়ের গুলিতে মারা যান, যিনি প্রথম বিশ্বযুদ্ধকালীন পরিবার থেকে আলাদা হয়ে গিয়েছিলেন।

উপযোগকরণসম্পাদনা

১৯৩২-এর চলচ্চিত্রসম্পাদনা

স্কারফেস হল হাওয়ার্ড হিউজহাওয়ার্ড হক্‌সের যৌথ প্রযোজনায় এবং হাওয়ার্ড হক্‌সের পরিচালনায় ১৯৩২ সালের মার্কিন গ্যাংস্টারধর্মী চলচ্চিত্র। আর্মিটেজ ট্রেইলের এই উপন্যাস অবলম্বনে এটি চলচ্চিত্রের উপযোগ করেন বেন হেচ এবং চিত্রনাট্য রচনা করেন ডব্লিউ. আর. বার্নেট, জন লি মাহিন ও সেটন আই. মিলার। ছবিতে শ্রেষ্ঠাংশে অভিনয় করেন পল মুনি, যাকে আন্টোনিও "টনি" কামন্তে নামক এক গ্যাংস্টার চরিত্রে দেখা যায়। এছাড়া অন্যান্য ভূমিকায় কামোন্তের বোন চরিত্রে অ্যান ডভোরাক এবং ক্যারেন মর্লি, অসগুড পার্কিন্স, জর্জ র‍্যাফ্‌ট ও বরিস কারলভ অভিনয় করেন।[২]

১৯৮৩-এর চলচ্চিত্রসম্পাদনা

স্কারফেস হল অলিভার স্টোন রচিত ও ব্রায়ান দে পালমা পরিচালিত ১৯৮৩ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মার্কিন অপরাধ নাট্য চলচ্চিত্র। মূল উপন্যাসের উপযোগকরণ না করে বরং এটি হাওয়ার্ড হক্‌সের ১৯৩২ সালের স্কারফেস চলচ্চিত্রের পুনর্নির্মাণ হিসেবে নির্মিত হয়েছে। এতে প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন আল পাচিনো, যাকে কিউবীয় শরণার্থী টনি মন্তানা চরিত্রে দেখা যায়। অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করেন মিশেল ফাইফার, স্টিভেন বয়ার, রবার্ট লজ্জিয়া, এফ. মারে আব্রাহাম, ও ম্যারি এলিজাবেথ মাস্ট্র্যান্টনিও।[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. গেটেল, অলিভার (মার্চ ১৮, ২০১৫)। "'Scarface' remake says hello to 'Straight Outta Compton' screenwriter"লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমসলস অ্যাঞ্জেলেস। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১৮ 
  2. "Scareface (1932)"টার্নার ক্লাসিক মুভিজআটলান্টা: Turner Broadcasting System (Time Warner)। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১৮ 
  3. "Scareface (1983)"টার্নার ক্লাসিক মুভিজআটলান্টা: Turner Broadcasting System (Time Warner)। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা