সিমন ফান ডার মিয়ার

ওলন্দাজ পদার্থবিজ্ঞানী

সিমন ফান ডার মিয়ার (জন্ম: ২৪শে নভেম্বর, ১৯২৫) একজন ওলন্দাজ ত্বরক পদার্থবিজ্ঞানী যিনি সংঘর্ষকের মধ্যে স্টোক্যাস্টীয় শীতলীকরণ প্রক্রিয়া উদ্ভাবন করেন। তার এই উদ্ভাবনের কারণেই ডব্লিউ কণাজেড কণা আবিষ্কার সম্ভব হয়। সার্নের ৫০০ গিগা ইলেকট্রনভোল্ট প্রোটন-প্রতিপ্রোটন সংঘর্ষকে এই কণা দুটি আবিষ্কৃত হয়। কার্লো রুবিয়া কর্তৃক পরিচালিত ইউএ-১ নামক পরীক্ষণের সহযোগিতায় আবিস্কারটি হয়। কার্লো রুবিয়া ও ফান ডার মিয়ার ১৯৮৪ সালে যৌথভাবে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন।

সিমন ফান ডার মিয়ার
Nobelprijswinnaar v.d. Meer en echtgenote op Huis ten Bosch met Koningin Beatrix, Bestanddeelnr 253-8884.jpg
সিমন ফান ডার মিয়ার (left) and wife are received by Queen Beatrix and Prince Claus in 1985
জন্ম(১৯২৫-১১-২৪)২৪ নভেম্বর ১৯২৫
মৃত্যু৪ মার্চ ২০১১(2011-03-04) (বয়স ৮৫)
জাতীয়তাFlag of the Netherlands.svg ডাচ
মাতৃশিক্ষায়তনডেলফট ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি
পরিচিতির কারণStochastic cooling
পুরস্কারDuddell Medal and Prize (১৯৮২)
নোবেল পুরস্কার.png পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার (১৯৮৪)
বৈজ্ঞানিক কর্মজীবন
কর্মক্ষেত্রপদার্থবিজ্ঞান
প্রতিষ্ঠানসমূহসার্ন

মিয়ার ১৯৫২ সালে নেদারল্যান্ডের ডেল্‌ফ্‌ট থেকে ভৌত প্রকৌশল বিষয়ে একটি ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৫৬ সাল পর্যন্ত তিনি ফিলিপ্‌স কোম্পানিতে চাকরি করেন। এই বছরই সার্নে বিজ্ঞানী হিসেবে যোগ দেন এবং ১৯৯০ সালে এখান থেকেই অবসর গ্রহণ করেন। আর্নেস্ট অরল্যান্ডো লরেন্স এবং ফান ডার মিয়ার ছাড়া আর কোন ত্বরক পদার্থবিজ্ঞানী নোবেল পুরস্কার লাভ করেন নি।

বহিঃসংযোগসম্পাদনা