শাহজাদা সুজা(শাহ সুজা হিসেবেও পরিচিত) বাংলার সুবাদার মোগল সম্রাট শাহজাহানের দ্বিতীয় ছেলে। তিনি বাংলার সুবাদার ছিলেন ১৬৩৯ থেকে ১৬৬০ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত।[১] তিনি আপন ভাই শাহ জামানকে সরিয়ে সাত বছর ধরে মসনদে অধিষ্ঠিত থাকেন।

শাহ সুজা
মুঘল শাহজাদা
Sháh Shujáʿ.jpg
শাহ সুজার তৈলচিত্র
জন্ম(১৬১৬-০৬-২৩)২৩ জুন ১৬১৬
মৃত্যু১৬৬০ (বয়স ৪৩–৪৪)
বংশধরসুলতান অইন-উদ-দিন, বুলন্দ আখতার, জয়নুল আবেদীন,গুলরুখ বানু,রোশনারা বেগম,আমিনা বেগম
রাজবংশতৈমুর
পিতাশাহ জাহান
মাতামুমতাজ মহল
ধর্মইসলাম

স্থাপত্যানুরাগসম্পাদনা

স্থাপত্যকর্মের প্রতি তার বিশেষ অনুরাগ ছিল। ঢাকা থেকে তিনি মুর্শিদাবাদে রাজধানী স্থানান্তর করলেও ঢাকা ও আশপাশের এলাকায় বেশ কিছু স্থাপনা নির্মিত হয়েছিল তার সময়ে। তন্মধ্যে সবচেয়ে বিখ্যাত স্থাপনাটি হলো বড় কাটরা, আরো আছে ধানমন্ডির শাহী ঈদগাহ এবং লালবাগ মসজিদ। এ ছাড়া কুমিল্লায় রয়েছে শাহ সুজা মসজিদ।[১]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. মোগল স্থাপত্য : মসজিদ তিন গম্বুজের স্মৃতি চার শতকের, আশীষ-উর-রহমান; দৈনিক প্রথম আলো; ১০ আগস্ট ২০১০ তারিখে ঢাকা থেকে প্রকাশিত।