রিস টপলি

ইংরেজ ক্রিকেটার

রিস জেমস উইলিয়াম টপলি (ইংরেজি: Reece Topley; জন্ম: ১২ ফেব্রুয়ারি, ১৯৯৪) সাফোকের ইপ্সউইচ এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা ইংরেজ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[১] ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য তিনি। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলে থাকেন। এছাড়াও বামহাতে মিডিয়াম-ফাস্ট বোলিংয়ে পারদর্শিতা দেখিয়েছেন রয়্যাল হসপিটাল স্কুলের প্রাক্তন শিক্ষার্থী রিস টপলি

রিস টপলি
Reece Topley.png
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামরিস জেমস উইলিয়াম টপলি
জন্ম (1994-02-21) ২১ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৪ (বয়স ২৬)
ইপ্সউইচ, সাফোক, ইংল্যান্ড
উচ্চতা৬ ফুট ৭ ইঞ্চি (২.০১ মিটার)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনবামহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট
সম্পর্কডন টপলি (বাবা)
পিটার টপলি (কাকা)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ২৪৩)
১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
ওডিআই শার্ট নং২৩
টি২০আই অভিষেক
(ক্যাপ ৭৪)
৩১ আগস্ট ২০১৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ টি২০আই১৮ মার্চ ২০১৬ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
টি২০আই শার্ট নং২৩
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
২০১১–২০১৫এসেক্স (দল নং ৬)
২০১৬–বর্তমানহ্যাম্পশায়ার (দল নং ৬)
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা ওডিআই টি২০আই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১০ ৩৪ ৪৫
রানের সংখ্যা ৯৪ ৪১
ব্যাটিং গড় ৭.০০ ৪.২৭ ৬.৮৩
১০০/৫০ ০/০ ০/০ ০/০ ০/০
সর্বোচ্চ রান * ১৬ ১৯
বল করেছে ৪৬৩ ১০৩ ৫,৯৬৬ ২,০৭৪
উইকেট ১৬ ১২৭ ৭৮
বোলিং গড় ২৫.৬২ ৩৪.৬০ ২৬.৭৭ ২৪.৮৩
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - - -
সেরা বোলিং ৪/৫০ ৩/২৪ ৬/২৯ ৪/২৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ২/– ১/– ৮/– ১০/–
উৎস: ক্রিকেটআর্কাইভ, ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

জুন, ২০০৯ সালে টপলি সংবাদপত্রের শিরোনামে চলে আসেন। লাফবোরা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুশীলনী খেলা চলাকালে ইংল্যান্ডের প্রথিতযশা ব্যাটসম্যান কেভিন পিটারসনের বিপরীতে বোলিং করে আহত করেছিলেন। এরপর পিটারসনকে দ্রুত লিচেস্টার রয়্যাল ইনফার্মারিতে প্রেরণ করা হয় এবং তার কানে সেলাই করতে হয়। এ ঘটনার পর টপলি'র আদর্শ পিটারসন তাকে স্বাক্ষর সম্বলিত নিজ ব্যাট উপহারস্বরূপ প্রদান করেন।[২]

কাউন্টি ক্রিকেটসম্পাদনা

এসেক্সের যুব ক্রিকেট পদ্ধতিতে টপলির অংশগ্রহণ ঘটে। ২০১১ মৌসুমে এসেক্সের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিপক্ষে তার অভিষেক ঘটে।[৩] কেন্টের বিপক্ষে অভিষেক কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে সুন্দর ক্রীড়ানৈপুণ্য প্রদর্শন করেন তিনি। খেলার দ্বিতীয় ইনিংসে ৫/৪৬ লাভ করেন তিনি। পরবর্তী খেলায় মিডলসেক্সের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ৫/৬৪ পান। [৪]

মে, ২০১১ সালে এক বছরের চুক্তিতে পেশাদারী পর্যায়ে এসেক্সের সদস্য হন।[৫] ঐ মাসে ক্লাইডেসডেল ব্যাংক ৪০ প্রতিযোগিতায় ইউনিকর্নসের বিপক্ষে লিস্ট এ ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার।[৬] রবিন লেটকে আউট করে প্রথম উইকেটের সন্ধান পান তিনি।[৭]

মৌসুমের মাঝামাঝি সময়ে কাউন্টি ক্রিকেট থেকে দূরে সরে আসেন ও গ্রীষ্মকালীন পরীক্ষায় অংশগ্রহণের প্রস্তুতি নেয়ার জন্য রয়্যাল হসপিটাল স্কুলে ফিরে যান। তবে এ সময়েই ইংল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলের পক্ষে খেলার জন্য তার আমন্ত্রণবার্তা এসে হাজির হয়। দক্ষিণ আফ্রিকা অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে খেলার জন্য যুবদের একদিনের আন্তর্জাতিক সিরিজে অংশগ্রহণ করেন তিনি।[৮]

আগস্টে এসেক্সে ফিরে যান ও দুইটি লিস্ট এ ক্রিকেট এবং নয়টি প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশ নেন। প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চমৎকারভাবে শুরু করেন। ২৩.৫৫ গড়ে ৩৪ উইকেট দখল করেন তিনি। সাবেক ইংরেজ অধিনায়ক মাইকেল ভনের সুনজরে আসেন ও তিনি মন্তব্য করেন যে, টপলি ভবিষ্যতের টেস্ট ক্রিকেটার হিসেবে সুনাম কুড়াবেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটসম্পাদনা

৩১ আগস্ট, ২০১৫ তারিখে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে তার টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে।[৯] এর অল্প কিছুদিন পর ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৫ তারিখে একই দলের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক হয় তার। খেলায় তিনি কোন উইকেট পাননি ও ০/৩৩ বোলিং পরিসংখ্যান দাঁড় করান।[১০]

২০১৬ সালের আইসিসি বিশ্ব টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিকে ইয়ন মর্গ্যানের নেতৃত্বাধীন ইংল্যান্ড দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন রিস টপলি। ঐ প্রতিযোগিতায় ইংল্যান্ড দল রানার আপ হয়েছিল।

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

তার বাবা ডন টপলি এসেক্স ও সারে দলের পক্ষে প্রথম-শ্রেণীর খেলায় অংশগ্রহণ করেছিলেন। এছাড়াও ডন রয়্যাল হসপিটাল স্কুলের ক্রিকেট ক্রীড়ার শিক্ষক।[১১] তার কাকা পিটার টপলিও প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটার ছিলেন।

ইউক্রেনীয় পেশাদার প্রমিলা টেনিস তারকা এলিনা সভিতোলিনার সাথে ডেটিং চালিয়ে যাচ্ছন।[১২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Reece Topley – Team profile"Essex County Cricket Club। ২৪ ডিসেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১ নভেম্বর ২০১২ 
  2. Davies, Gareth A. (২ জুন ২০০৯)। "Don Topley's son hospitalised after being floored by Kevin Pietersen drive"The Daily Telegraph। www.telegraph.co.uk। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১১ 
  3. "First-Class Matches played by Reece Topley"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১১ 
  4. "Essex v Kent, 2011 County Championship"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১১ 
  5. "Reece Topley signs one-year Essex contract"। ESPNcricinfo। ২৬ মে ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১১ 
  6. "List A Matches played by Reece Topley"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১১ 
  7. "Essex v Unicorns, 2011 Clydesdale Bank 40"। CricketArchive। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১১ 
  8. "Topley called up by England Under-19"। ESPNcricinfo। ২৪ জুন ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১১ 
  9. "Australia tour of England and Ireland, Only T20I: England v Australia at Cardiff, Aug 31, 2015"। ESPNCricinfo। ৩১ আগস্ট ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ৩১ আগস্ট ২০১৫ 
  10. "Australia tour of England and Ireland, 5th ODI: England v Australia at Manchester, Sep 13, 2015"। ESPNCricinfo। ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৫ 
  11. "Player profile: Reece Topley"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৬ আগস্ট ২০১১ 
  12. https://www.thetimes.co.uk/article/elina-svitolina-on-how-early-defeat-led-her-to-fall-for-reece-topley-tq0p7t7dn

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা