রিজভী মুফতি

শ্রীলঙ্কান দেওবন্দি ইসলামি পণ্ডিত

মুহাম্মদ ইব্রাহিম মুহাম্মদ রিজভী (যিনি রিজভী মুফতি নামে অধিক পরিচিত) (জন্ম: ২৮ আগস্ট ১৯৬১) একজন শ্রীলঙ্কান দেওবন্দি ইসলামি পণ্ডিত, অর্থনীতিবিদ, শিক্ষাবিদ, আন্তর্জাতিক ইসলামি বক্তা ও মুসলিম নেতা। তিনি শ্রীলঙ্কার সর্বোচ্চ ইসলামি সংগঠন অল সিলন জমিয়তুল উলামার সভাপতি, শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রপতির আন্তঃধর্মীয় উপদেষ্টা, শ্রীলঙ্কার সর্বোচ্চ ধর্মীয় সংস্থার নির্বাহী সদস্য, মালদ্বীপ ইসলামি ব্যাংক ও ব্যাংক অফ সিলন সহ কয়েকটি ব্যাংকের শরীয়া সুপারভাইজারি বোর্ডের সদস্য ও উপদেষ্টা। এছাড়াও তিনি শ্রীলঙ্কার ২৫০টি আরবি কলেজের নিয়ন্ত্রক সংস্থা মাদারিসুল আরাবিয়ার পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ও উপদেষ্টাসহ উল্লেখযোগ্য সংখ্যক সংস্থার নেতৃস্থানীয় পদে রয়েছেন।


মুহাম্মদ ইব্রাহিম মুহাম্মদ রিজভী

হাফিজাহুল্লাহ
Rizwe Mufti.jpg
২০২০ সালে রিজভী
সভাপতি, অল সিলন জমিয়তুল উলামা
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
২০০৩
পূর্বসূরীমুবারক আল মাদানি
ব্যক্তিগত
জন্ম (1961-08-28) ২৮ আগস্ট ১৯৬১ (বয়স ৫৯)
ধর্মইসলাম
জাতীয়তাশ্রীলঙ্কান
যুগআধুনিক
আখ্যাসুন্নি
ব্যবহারশাস্ত্রহানাফি
আন্দোলনদেওবন্দি
প্রধান আগ্রহহাদিস, ফিকহ, ইসলামি অর্থনীতি, ইসলামি বক্তব্য, শিক্ষা-সংস্কৃতি
উল্লেখযোগ্য কাজ
  • ইসলামিক কেয়ারলাইন কাউন্সিলিং লিমিটেড
  • মাহমুদ ইন্সটিটিউট
যেখানের শিক্ষার্থীজামিয়া উলুমুল ইসলামিয়া
মুসলিম নেতা
পুরস্কারবিশ্বের সবচেয়ে প্রভাবশালী ৫০০ জন মুসলিম (২০২০)

জন্ম ও বংশসম্পাদনা

রিজভী ১৯৬১ সালের ২৮ আগস্ট শ্রীলঙ্কার ক্যান্ডিতে জন্মগ্রহণ করেন।[১][২]

শিক্ষাজীবনসম্পাদনা

১৯৬৫ থেকে ১৯৭৭ পর্যন্ত তিনি শ্রীলঙ্কার কিংসউড কলেজে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অর্জন করেন। ১৯৭৮ থেকে ১৯৮৬ পর্যন্ত পাকিস্তানের জামিয়া উলুমুল ইসলামিয়ায় অধ্যয়ন করেন। এরপর তিনি বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে দাওরায়ে হাদিস (মাস্টার্স) পাশ করেন। ১৯৮৮ সালে তিনি জামিয়া উলুমুল ইসলামিয়ায় উচ্চতর ইসলামি আইন গবেষণা বিভাগ থেকে ইসলামি আইন গবেষণায় উচ্চতর ডিগ্রী নেন।[৩][৪]

কর্মজীবনসম্পাদনা

শিক্ষকতার মাধ্যমে তিনি কর্মজীবনের সূচনা করেন। বিগত ২ দশক ধরে তিনি রাশাদ আরবী কলেজের হাদিসের প্রভাষক।[৫] ২০০৩ সাল থেকে তিনি শ্রীলঙ্কার ইসলামি ধর্মতত্ত্ববিদদের সর্বোচ্চ সংগঠন অল সিলন জমিয়তুল উলামার সভাপতি, যা ১৯২৪ সালে প্রতিষ্ঠিত এবং ২০০০ সালের শ্রীলঙ্কার সংসদীয় আইন ’৫১ দ্বারা স্বীকৃত।[৩][৬] তিনি আমানা ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড, আমানা তাকফুল লিমিটেড, ব্যাংক অফ সিলোন, শ্রীলঙ্কার সর্ববৃহৎ ইজারা কোম্পানি পিপল লিজ ও ফিনান্স পিএলসি, ২০১১ থেকে মালদ্বীপ ইসলামিক ব্যাংক ও জাপানের পুরুষ ইজুমি এন্টারপ্রাইজের উপদেষ্টা।[৩] ২০১৬ সালের মে মাসে তিনি শ্রীলঙ্কার রাষ্ট্রপতির আন্তঃধর্মীয় উপদেষ্টা বোর্ডের সদস্য এবং শ্রীলঙ্কার সর্বোচ্চ ধর্মীয় পরিষদের নির্বাহী সদস্য নির্বাচিত হন।[৩][৭] তিনি মুসলিমদের জন্য ইসলামিক কেয়ারলাইন কাউন্সিলিং লিমিটেড নামে একটি পরামর্শ প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করেছেন। মাহমুদ ইনস্টিটিউটের তিনি প্রতিষ্ঠাতা সদস্য, যা বিদ্যমান চ্যালেঞ্জগুলির মোকাবিলার ইসলামি পণ্ডিতদের দক্ষতা বিকাশের উদ্দেশ্যে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এছাড়াও তিনি শ্রীলঙ্কার ২৫০ টি আরবি কলেজের নিয়ন্ত্রক সংস্থা মাদারিসুল আরাবিয়ার পরিচালনা পর্ষদের সদস্য ও উপদেষ্টা।[৮] পাশাপাশি তিনি একজন আন্তর্জাতিক ইসলামি বক্তা। যেসব সম্মেলনে তিনি যোগদান করেছেন তার মধ্যে রয়েছে :

  • জাপানের কিয়োটোয় অনুষ্ঠিত ‘শান্তির জন্য ধর্ম’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলন।
  • বিশ্ব মুসলিম লীগ আয়োজিত ‘মাকাসিদাল শরীয়াহ’ আন্তর্জাতিক সম্মেলনে তিনি 'অমুসলিম এশীয় দেশগুলিতে মুসলিম সংখ্যালঘুদের শিক্ষা এবং এর গুরুত্ব' শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।
  • মালয়েশিয়ার আন্তর্জাতিক সম্মেলনে “গড সিটিজেনশীপ এন্ড অভিডিয়েন্স টু দোজ ইন অথরিটি’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।
  • তুরস্কের ইস্তাম্বুলে আয়োজিত শীর্ষ মুসলিম ধর্মীয় নেতাদের সম্মেলনে ‘শ্রীলঙ্কা প্রসঙ্গে: ইসলামি বিশ্বে চিন্তার নতুন আন্দোলন এবং এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় দেশগুলিতে মুসলিম জাতিগুলির উপর তাদের প্রতিকূল প্রভাব’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।
  • তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক সম্মেলন ‘বিশ্ব মুসলিম সংখ্যালঘু সম্মেলন’ এবং ইন্দোনেশিয়ার বোগোরে অনুষ্ঠিত ‘ওয়াসাতিয়াতুল ইসলাম সম্পর্কে বিশ্ব মুসলিম পণ্ডিতদের উচ্চ পর্যায়ের পরামর্শ’ শীর্ষক সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন।

সম্মাননাসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "মুফতি রিজভী সম্পর্কে"dbpedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-০৩ 
  2. "এসিজেইউ জানুয়ারিতে প্রতিরক্ষা সচিবকে জানিয়েছে"www.dailymirror.lk (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-০৩ 
  3. "মুফতি মুহাম্মদ রিজভীর পরিচিতি"মালদ্বীপ ইসলামি ব্যাংক (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-০৩ 
  4. "আশ শাইখ মুফতি এম আই এম রিজভী"islamicmarkets.com (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-০৩ 
  5. "আশ শেখ মুফতি রিজভী"www.slmuslims.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-০৩ 
  6. "কট্টরপন্থী বৌদ্ধরা শ্রীলঙ্কার মুসলমানদের লক্ষ্য করছে"বিবিসি নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৩-০৩-২৫। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-০৩ 
  7. "মুসলিম আইন"আইন মন্ত্রণালয়, শ্রীলঙ্কা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-০৩ 
  8. "আমানা ব্যাংকের শরিয়া সুপারভাইজারি কাউন্সিল"আমানা ব্যাংক। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০১-০৩ 
  9. এস আবদুল্লাহ শ্লেইফার, অধ্যাপক (২০২০)। দ্যা মুসলিম ৫০০ (PDF)জর্ডান: দ্যা রয়েল ইসলামিক ষ্ট্র্যাটেজিক ষ্টাডিজ সেন্টার। পৃষ্ঠা ১৩৯। আইএসবিএন 978-9957-635-45-9 

গ্রন্থপঞ্জিসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা