মেস্তায়া স্টেডিয়াম

স্পেনের স্টেডিয়াম

মেস্তায়া স্টেডিয়াম বা এস্তাদিও দে মেস্তায়া (স্পেনীয়: Estadio de Mestalla[esˈtaðjo ðe mesˈtaʎa]), (রোমানীকরণঃ এস্টাডিও ডি মেস্টালা), (বালেনসিয়ঃ Estadi de Mestalla [esˈtaði ðe mesˈtaʎa]) স্পেনের বালেনসিয়ার একটি ফুটবল স্টেডিয়াম। স্টেডিয়ামটি ৪৮,৬০০ আসন বিশিষ্ট এবং বালেনসিয়া ক্লাব দে ফুটবল-এর স্বাগতিক মাঠ।[২] এটি বালেনসিয়ার সবচেয়ে বড় এবং স্পেনের পঞ্চম বৃহত্তম স্টেডিয়াম।[৩] এই স্টেডিয়ামের উত্তর স্ট্যান্ড বা গ্যালারিটি খুব খাড়া ভাবে নির্মাণের জন্য পরিচিত।[৪]

মেস্তায়া স্টেডিয়াম
Estadiomestalla01.jpg
প্রাক্তন নামএস্তাদিও লুইস ক্যাসানোভা (১৯৬৯-১৯৯৪)
অবস্থানএভেনিডা সুসিয়া, এস/এন
৪৬০১০ - বালেনসিয়া
স্থানাঙ্ক৩৯°২৮′২৮.৭৬″ উত্তর ০°২১′৩০.১০″ পশ্চিম / ৩৯.৪৭৪৬৫৫৬° উত্তর ০.৩৫৮৩৬১১° পশ্চিম / 39.4746556; -0.3583611
পাবলিক ট্রানজিটIsotip de Metrovalència.svg আরাগন (লাইন ৫ ও ৭)
ধারণক্ষমতা৪৮,৬০০[১]
মাঠের আয়তন১০৫ মি × ৬৮ মি (৩৪৪ ফু × ২২৩ ফু)
উপরিভাগঘাস/বালি
নির্মাণ
কপর্দকহীন ভূমি১৯২৩
উন্মোচন২০ মে ২০১৬
পুন: সংস্কার২০০৫-২০১৯
সম্প্রসারিত২০০৭
নির্মাণ খরচ৩,১৬,৪৩৯.২০ স্প্যানিশ পেসো (জমি ক্রয়)
স্থপতিফ্রান্সিস্কো আলমেনার কুইনজা
ভাড়াটিয়া
বালেনসিয়া ক্লাব দে ফুটবল (১৯২৩–বর্তমান)
স্পেন জাতীয় ফুটবল দল

ইতিহাসসম্পাদনা

১৯২৩ সালের ২০ এপ্রিল বালেনসিয়া ক্লাব এবং লেভান্তে ইউডি-র মধ্যে একটি প্রীতি ম্যাচ দিয়ে মেস্তায়া স্টেডিয়ামের উদ্বোধন করা হয়েছিল।[৫] নতুন স্টেডিয়ামটি ১৭,০০০ দর্শক ধারণ করতে পারতো, যা চার বছর পরে ২৫,০০০-এ উন্নীত করা হয়েছিল। স্পেনের গৃহযুদ্ধের সময়, স্টেডিয়ামটি বন্দি শিবির এবং গুদাম হিসাবে ব্যবহৃত হয়েছিল।[৬] যুদ্ধের কারণে মেস্তায়ার প্রধান গ্যালারি বা গ্র্যান্ড স্ট্যান্ড ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল।

 
উদ্বোধনের দিন লোক সমাগম, ২০ মে ১৯২৩।

১৯৫০-এর দশকে, মেস্তায়া স্টেডিয়াম সংস্কার করে, দর্শক আসন সংখ্যা ৬০,০০০-এ উন্নীত করা হয়েছিল। ১৯৫৭ সালের অক্টোবরে এক তুরিয়া নদীর তীরে ভাঙনের ফলে সৃষ্ট বন্যায় স্টেডিয়ামটি মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। খুব শীঘ্রই স্টেডিয়ামটিকে কৃত্রিম আলোক ব্যবস্থা সংযোজনসহ আবারো সক্রিয় করা হয় এবং ১৯৫৯-এর বালেনসিয়ার ঐতিহ্যবাহী ফালাস উৎসবের সময় পুনরায় উদ্বোধন করা হয়।

১৯৬৯ সালে বালেনসিয়া ক্লাবের প্রেসিডেন্ট লুইস ক্যাসানোভা জিনারের সম্মানে স্টেডিয়ামটির নাম পরিবর্তন করে এস্তাদিয়ো লুইস ক্যাসানোভা করা হয়। এই নাম পরিবর্তনটি সিকি শতাব্দী স্থায়ী ছিল। ক্যাসানোভা এই সম্মান প্রাপ্তিতে সম্পূর্ণরূপে অভিভূত হয়েছিলেন। ১৯৯৪ সালে তিনি স্টেডিয়ামটির নাম পুনরায় 'মেস্তায়া'য় রাখার অনুরোধ করেছিলেন।[৭] ১৯৭২ সালে স্টেডিয়ামের নম্বরযুক্ত ধাপের পিছনে বালেনসিয়া ক্লাবের প্রধান কার্যালয়ের উদ্বোধন করা হয়। আভঁ-গার্দ শৈলীতে নকশা করা প্রধান কার্যালয়টিতে ক্লাবের ট্রফি হল রয়েছে। ১৯৭৩ সালে গ্রীষ্মে গোল পোস্টের পাশের ১৪টি স্থায়ী ধাপঘর সরিয়ে নতুন আসন বসানো হয়।

ভবিষ্যৎসম্পাদনা

বালেনসিয়া ক্লাব এই স্টেডিয়ামের বদলে ন্যু মেস্তায়া নামের নতুন স্টেডিয়ামে যাওয়ার পরিকল্পনা করে। ৬১,৫০০ দর্শন ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন স্টেডিয়ামটির নির্মাণ কাজ ২০০৭ সালে শুরু হয়।[৮][৯]

আন্তর্জাতিক এবং কাপ ফাইনাল প্রতিযোগিতাসম্পাদনা

১৯২৫ সালে স্টেডিয়ামটি প্রথমবারের মতো স্পেনের জাতীয় ফুটবল দলের স্বাগতিক মাঠ হিসেবে ব্যবহার করা হয়। স্পেনে অনুষ্ঠিত ১৯৮২ বিশ্বকাপের সময় এটি স্বাগতিক দলের গ্রুপ ভেন্যু নির্বাচিত হয়েছিল।[১০] বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিত ১৯৯২ গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিকের ফাইনাল পর্যন্ত স্পেনের সমস্ত ম্যাচ মেস্তায়ায় অনুষ্ঠিত হয়েছিল[১১][১২]

মেস্তায়া স্টেডিয়াম বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক ফুটবল ম্যাচের ভেন্যু হিসেবে ব্যবহৃত হয়া ছাড়াও স্টেডিয়ামটি কোপা দেল রে ফাইনাল খেলা আয়োজনের অন্যতম ভেন্যু হিসেবে পরিচিত। স্টেডিয়ামটি বালেনসিয়ার অপর ক্লাব লেভান্তে ইউডির বিকল্প ও অস্থায়ী স্বাগতিক মাঠ; স্পেনের জাতীয় দলের স্বাগতিক মাঠ এবং ইউরোপিয়ান কাপে ক্যাসেলেন ও রিয়াল মাদ্রিদের স্বাগতিক মাঠ হিসেবে ব্যবহার হয়েছে। এফসি বার্সেলোনা এবং রিয়াল মাদ্রিদ সিএফ-এর মধ্যকার ২০১১ কোপা দেল রে ফাইনাল এবং একই দুটি দলের মধ্যে ২০১৪ কোপা দেল রে ফাইনাল খেলা এই স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়েছিল। স্টেডিয়ামটিতে ১৯২৬ সাল হতে দশটি কোপা দেল রে প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলার ভেন্যু নির্বাচিত ও আয়োজিত হয়েছে।[৭]

১৯৮২ ফিফা বিশ্বকাপসম্পাদনা

স্টেডিয়ামটি ১৯৮২ ফিফা বিশ্বকাপের গ্রুপ ৫ এর দলগুলির ভেন্যু ছিল। (প্রতিযোগিতার সময় লুইস ক্যাসানোভা স্টেডিয়াম নামে পরিচিত) এবং এসময় ১৬ জুন হতে ২৫জুন পর্যন্ত তিনটি খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছিল:

তারিখ স্বাগতিক দল ফলাফল অতিথি দল রাউন্ড উপস্থিতি
১৬ জুন, ১৯৮২   স্পেন ১-১   হন্ডুরাস গ্রুপ ৫ (প্রথম রাউন্ড) ৪৯,৫৬২
২০ জুন, ১৯৮২   স্পেন ২-১   যুগোস্লাভিয়া ৪৮,০০০
২৫ জুন, ১৯৮২   স্পেন ০-১   উত্তর আয়ারল্যান্ড ৪৯,৫৬২

পরিবহনসম্পাদনা

চিত্রশালাসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. https://www.marca.com/en/football/spanish-football/album/2020/03/29/5e80d2f5e2704efb188b45e0_6.html
  2. Cué, Carlos E. (২০১৯-০৪-২৮)। "Fear and fury: a divided Spain goes to the polls"El País (ইংরেজি ভাষায়)। আইএসএসএন 1134-6582। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০১-২৪ 
  3. "Mestalla the pearl of Valencia · Nest Hostels Valencia"Nest Hostels Valencia (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৩-০৭-০১। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৯-১৪ 
  4. "Some of the world's scariest places to play or watch football"ব্রিটিশ ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-১১-১৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১৮-১১-১৫ 
  5. "mestalla - vcfestadios"sites.google.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-০৬ 
  6. "La Liga Stadiums: Valencia's Mestalla Stadium – Beauty of the oldest stadium in Spanish first division"দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস (ইংরেজি ভাষায়)। ২০১৮-১১-২৪। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৯-১৪ 
  7. "Diez cosas que quizá no sabías de Mestalla"লা লিগা.কম (স্পেনীয় ভাষায়)। ২০১৫-০৭-৩০। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-০৬ 
  8. "Calendario y plazos para el derribo de Mestalla y el traslado al Nuevo Estadio"eldesmarque.com (স্পেনীয় ভাষায়)। ২০১৯-০৪-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-০৬ 
  9. "Valencia partner with Deloitte for revival of new Mestalla project - SportsPro Media"www.sportspromedia.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-০৬ 
  10. "World Cup 1982 finals"www.rsssf.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-০৬ 
  11. "Football Tournament 1992 Olympiad"www.rsssf.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০২-০৬ 
  12. 1992 Summer Olympics official report. ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ২৮ মে ২০০৮ তারিখে Volume 2. pp. 334-6.

বহিঃসংযোগসম্পাদনা