ভূতের ভবিষ্যৎ

২০১২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র

ভূতের ভবিষ্যৎ ভারতীয় পরিচালক অনীক দত্তের পরিচালিত প্রথম বাংলা চলচ্চিত্র। ২০১২ সালের একটি হিট ছবি।[১] চলচ্চিত্রটি শ্রীরামপুর রাজবাটী-তে স্যুটিং হয়।

ভূতের ভবিষ্যৎ
ভূতের ভবিষ্যৎ.jpg
ভূতের ভবিষ্যৎ চলচ্চিত্র এর বাণিজ্যিক পোস্টার
পরিচালকঅনীক দত্ত
প্রযোজকজয় গাঙ্গুলী
চিত্রনাট্যকারঅনীক দত্ত
কাহিনিকারঅনীক দত্ত
শ্রেষ্ঠাংশেপরমব্রত চট্টোপাধ্যায়
সুরকাররাজা নারায়ণ দেব
মুক্তি১৬ই মার্চ ২০১২
দৈর্ঘ্য১২০ মিনিট
দেশভারত
ভাষাবাংলা

কাহিনীসম্পাদনা

নবীন পরিচালক শুটিং এর জন্যে লোকেশন দেখতে আসেন একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে। হঠাৎ তার আলাপ হয় বাড়িরই একজন ব্যক্তির সংগে যিনি নাকি ওখানেই থাকেন। তার কাছে থেকে সেই বাড়িতে থাকা কতিপয় ভুতেদের কাহিনী শোনেন পরিচালক। যে গল্পের উপজীব্য বিষয় হল প্রমোটারি আর দখলদারীর ভিড়ে পুরোনো ভুতেরা কিভাবে স্বার্থান্বেষী মানুষদের সাথে লড়াই করে বাড়ির অধিকার অর্জন করলো। তারা প্রথমে আস্তানার খোঁজে আসে পরিত্যক্ত চৌধুরী বাড়িতে। সকলেই অপঘাতে মারা গেছিল। র‍্যামসে সাহেব এবং রায় বাহাদুর এই দুজনে বাড়ির কর্তা হিসেবে থাকতে দেন বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা জাতি, ধর্ম, পেশা, লিঙ্গ নির্বিশেষে ভুতেদের। একসময় প্রমোটারী চক্র বাড়ি দখল করতে এলে তারা বাধা দেয়। একাজে বিভিন্ন পেশার ভুতেরা একযোগে মতলব কষে হটিয়ে দেয় অসাধু ব্যবসায়ীদের। গল্পের শেষে জানা যায় যিনি এর কথক তিনিও একজন ভুত এবং বাকিদের সাথী। শেষ পর্যন্ত পরিচালক তন্দ্রা ভেঙে দেখেন পুরোটাই স্বপ্ন, কিন্তু যা দিয়ে তৈরী হতে পারে ভুতের ভবিষ্যৎ এর মত সিনেমা।

অভিনয়েসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "কলকাতার ভূতের ভবিষ্যৎ ওদের বিটলজুস"। ৩০ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৭ আগস্ট ২০১৬ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা