বমন কুমার

ভারতীয় ক্রিকেটার

বমন বিশ্বনাথ কুমার (এই শব্দ সম্পর্কেউচ্চারণ ; জন্ম: ২২ জুন, ১৯৩৫) প্রথিতযশা ও সাবেক ভারতীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[১][২][৩] ভারত ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৬১ সময়কালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য ভারত দলের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ভারতীয় ক্রিকেটে তামিলনাড়ু দলের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ অর্থোডক্স লেগব্রেক গুগলি বোলিং করতেন। এছাড়াও, নিচেরসারিতে ডানহাতে ব্যাটিং করতেন ভি. ভি. কুমার নামে পরিচিত বমন কুমার

বমন কুমার
ক্রিকেট তথ্য
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনলেগব্রেক গুগলি
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ১২৯
রানের সংখ্যা ৬৭৩
ব্যাটিং গড় ৩.০০ ৭.৬৪
১০০/৫০ -/- -/-
সর্বোচ্চ রান ৩১
বল করেছে ৬০৫ ৩০০৮২
উইকেট ৫৯৯
বোলিং গড় ২৮.৮৫ ১৯.৯৮
ইনিংসে ৫ উইকেট ৩৬
ম্যাচে ১০ উইকেট -
সেরা বোলিং ৫/৬৪ ৯/৭৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ২/- ৪০/-
উৎস: ক্রিকইনফো, ২৪ নভেম্বর ২০১৮

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটসম্পাদনা

রঞ্জী ট্রফিতে উল্লেখযোগ্য সফলতা পান। ষাটের দশক থেকে শুরু করে সত্তুরের দশক পর্যন্ত চমৎকার বোলার হিসেবে ঘরোয়া ক্রিকেটে অংশ নিতে থাকেন। নিয়মিতভাবে উইকেট পেতেন। ১৯৭০-৭১ মৌসুমে প্রথম বোলার হিসেবে রঞ্জী ট্রফিতে তিন শতাধিক উইকেট পেয়েছেন। এর চার বছর পর ৪০০ উইকেট লাভের ন্যায় মাইলফলক প্রথমবারের মতো স্পর্শ করেন।

টেস্ট ক্রিকেটসম্পাদনা

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে মাত্র দুই টেস্টে অংশগ্রহণ করার সুযোগ পেয়েছেন বমন কুমার। উভয় টেস্টই খেলেন ১৯৬১ সালে।

১৯৬০-৬১ মৌসুমে পাকিস্তান দল ভারত সফরে আসে। ৮ ফেব্রুয়ারি, ১৯৬১ তারিখে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলা মাঠে অনুষ্ঠিত সিরিজের পঞ্চম টেস্টের প্রথম ইনিংসটিতে পাঁচ উইকেট লাভ করে দূর্দান্ত ক্রীড়াশৈলী প্রদর্শন করেন।[৪] ইনিংসে তার বোলিং পরিসংখ্যান ছিল ৩৭.৫-৬৪-৫। দ্বিতীয় ইনিংসে পান ২/৬৮। তাসত্ত্বেও খেলাটি ড্রয়ে পরিণত হয়েছিল। ১৯৩২ সালে মোহাম্মদ নিসারের পর দ্বিতীয় ভারতীয় বোলার হিসেবে অভিষেকে পাঁচ উইকেট লাভের কৃতিত্ব প্রদর্শন করেন। তিনি একে-একে ইমতিয়াজ আহমেদ, ডব্লিউ ম্যাথিয়াস, ফজল মাহমুদ, মাহমুদ হোসেনহাসিব আহসানকে প্যাভিলিয়নে ফেরৎ পাঠান।

পরবর্তী মৌসুমে নিজস্ব দ্বিতীয় ও সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন বমন কুমার। আঘাতগ্রস্ত ছিলেন তিনি। তবে, লেগ স্পিনের বিপক্ষে প্রতিপক্ষের দূর্বল খেলার কথা চিন্তা করে তাকে জোরপূর্বক খেলানো হয়। ৭০ রান খরচ করলেও কোন উইকেট পাননি তিনি। তবে, ভাগবত চন্দ্রশেখরের ন্যায় স্পিনারের উত্থানে তাকে আর টেস্টের জন্য বিবেচনায় আনা হয়নি।

খেলার ধরনসম্পাদনা

ধ্রুপদী ভঙ্গীমায় অর্থোডক্স লেগ স্পিনার ছিলেন বমন কুমার। তবে, দল নির্বাচকমণ্ডলীর কাছ থেকে বরাবরই উপেক্ষিত হতেন। ঐ সময়ে তিনি দেশের শীর্ষস্থানীয় বোলার ছিলেন। স্পিনে প্রভূত্ব কায়েম করেছেন। সঠিক জায়গা ও নিশানা লক্ষ্য করে বোলিং করতেন তিনি। একসময় তাকে বিখ্যাত ভারতীয় বোলার সুভাষ গুপ্তের যোগ্য উত্তরসূরীরূপে ধারণা করা হয়েছিল।

বর্তমানে তিনি চেন্নাইয়ে এমএসি স্পিন একাডেমি পরিচালনা করছেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. List of India Test Cricketers
  2. "India – Test Batting Averages"। ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৭ 
  3. "India – Test Bowling Averages"। ESPNCricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২৯ জুলাই ২০১৭ 
  4. "5th Test: India v Pakistan at Delhi, Feb 8-13, 1961"espncricinfo। সংগ্রহের তারিখ ২০১১-১২-১৮ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা