ফেনী গ্যাসক্ষেত্র

ফেনী গ্যাসক্ষেত্র বাংলাদেশের ফেনী জেলায় অবস্থিত একটি প্রাকৃতিক গ্যাসক্ষেত্র।[১] এটি কানাডিয়ান বহুজাতিক কোম্পানি নাইকো-এর নিয়ন্ত্রণাধীন একটি প্রতিষ্ঠান।[২]

অবস্থান সম্পাদনা

ফেনী গ্যাসক্ষেত্র চট্টগ্রাম বিভাগের ফেনী জেলার সদর উপজেলার ধলিয়া ইউনিয়নের অলিপুর গ্রামে অবস্থিত।[১]

আবিষ্কার সম্পাদনা

পেট্রোবাংলা ১৯৮১ সালে এই গ্যাসক্ষেত্রটি আবিষ্কার করে।[৩]

খনন ও কূপ সম্পাদনা

বর্তমান অবস্থা সম্পাদনা

বর্তমানে এই গ্যাসক্ষেত্রটি হতে কোনো গ্যাস উত্তোলন করা হয় না;[৪] অবশিষ্ট আছে মাত্র ৬৭ বিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস।[৫] ফেনী গ্যাসক্ষেত্র ফেনী জেলায় অবস্থিত একটি ছোট আকৃতির গ্যাসক্ষেত্র। ১৯৮১ সালে পেট্রোবাংলা কর্তৃক এই গ্যাসক্ষেত্রটি আবিষ্কৃত হয়। কূপটির গভীরতা ৩০০০ মিটার। বর্তমানে ক্ষেত্রটি উত্তোলনযোগ্য নয়।

আরও দেখুন সম্পাদনা

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "এক নজরে ফেনী : খনিজ সম্পদ"। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার। ১ আগস্ট ২০১৯। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১৯ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  2. "ফেনী গ্যাস ক্ষেত্র নিয়ে নাইকোর মামলায় হেরে গেছে বাংলাদেশ"দৈনিক সংগ্রাম। ৮ জুন ২০১৬। ৮ আগস্ট ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১৯ 
  3. বদরুল ইমাম (জানুয়ারি ২০০৩)। "হাইড্রোকার্বন অনুসন্ধান"। সিরাজুল ইসলাম[[বাংলাপিডিয়া]]ঢাকা: এশিয়াটিক সোসাইটি বাংলাদেশআইএসবিএন 984-32-0576-6। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১৯  ইউআরএল–উইকিসংযোগ দ্বন্দ্ব (সাহায্য)
  4. "জাতীয় জ্বালানী নিরাপত্তা দিবস ২০১৯-এর বিশেষ ক্রোড়পত্র (পিডিএফ ভার্সন)" (পিডিএফ)। ৮ আগস্ট ২০১৯ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৮ আগস্ট ২০১৯ 
  5. "২০ বছরের মধ্যেই গ্যাস-সংকটের শঙ্কা"বাংলা ট্রিবিউন। ২২ জুন ২০১৯। ২৯ জুলাই ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ আগস্ট ২০১৯ 

বহি:সংযোগ সম্পাদনা