ত্রিপুরা বিধানসভা

ত্রিপুরা বিধানসভা হল ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের এককক্ষ বিশিষ্ট আইনসভা, যেখানে বিধায়কের ৬০ টি সদস্যপদ রয়েছে। বর্তমান বিধানসভা সমাবেশ গোর্খাবস্তিতে অবস্থিত। আগরতলায় অবস্থিত উজ্জয়ন্ত প্রাসাদটি ছিল এর পূর্ববর্তী সমাবেশ স্থল। বিশেষ কোনো কারণে বিলুপ্তিকরণ বা পদত্যাগের ঘটনা না ঘটলে বিধানসভার সাধারণ মেয়াদ পাঁচ বছর। বর্তমান বিধানসভাটি দ্বাদশতম বিধানসভা, যেখানে রতন চক্রবর্তী হলেন সভার বর্তমান অধ্যক্ষ বা স্পিকার।

ত্রিপুরা বিধানসভা
ত্রিপুরার দ্বাদশতম বিধানসভা
প্রতীক বা লোগো
ধরন
ধরন
মেয়াদসীমাপাঁচ বছর
প্রতিষ্ঠিত১৯৬৩
নেতৃত্ব
অধ্যক্ষ (স্পিকার)
রতন চক্রবর্তী[১], বিজেপি
২৪শে সেপ্টেম্বর ২০২১ থেকে
সহকারী অধ্যক্ষ (ডেপুটি স্পিকার)
গরিষ্ঠ দলনেতা
(মুখ্যমন্ত্রী)
সহকারী গরিষ্ঠ দলনেতা
(সহমুখ্যমন্ত্রী)
বিরোধী দলনেতা
গঠন
আসন৬০
Tripura Legislative Assembly 2022.svg
রাজনৈতিক দল
শাসক পক্ষ (৪০)

বিরোধী পক্ষ (১৫)

শূন্যপদ (৫)

  •      শূন্যপদ (৫)
নির্বাচন
একক সদস্য সংখ্যাধিক্য
সর্বশেষ নির্বাচন
১৮ই ফেব্রুয়ারি ২০১৮
পরবর্তী নির্বাচন
আসন্ন ফেব্রুয়ারি ২০২৩
সভাস্থল
1487239146-tripura-assembly-fb.jpg
ত্রিপুরা বিধানসভা, আগরতলা
ওয়েবসাইট
www.tripuraassembly.nic.in

ইতিহাসসম্পাদনা

পয়লা নভেম্বর ১৯৫৬ খ্রিস্টাব্দে ত্রিপুরা ভারতের একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মর্যাদা লাভ করে এবং নিযুক্ত মুখ্য আধিকারিক (প্রধান কমিশনার)-কে পরামর্শ দেওয়ার জন্য একটি উপদেষ্টা কমিটি গঠন করা হয়।[২] ১৯৫৭ খ্রিস্টাব্দের ১৫ই আগস্ট ৩০ জন নির্বাচিত সদস্য এবং ভারত সরকার কর্তৃক মনোনীত দুজন সদস্য নিয়ে একটি প্রাদেশিক পরিষদ গঠিত হয়।

পূর্বতন বিধানসভাসমূহসম্পাদনা

এ পর্যন্ত গঠিত বিধানসভাগুলি নীচে তালিকাভুক্ত করা হল:[৩]

বিধানসভা সময়কাল
প্রথম বিধানসভা ১লা জুলাই ১৯৬৩ থেকে ১২ই জানুয়ারি ১৯৬৭
দ্বিতীয় বিধানসভা ১লা মার্চ ১৯৬৭ থেকে ১লা নভেম্বর ১৯৭১
তৃতীয় বিধানসভা ২০শে মার্চ ১৯৭২ থেকে ৫ই নভেম্বর ১৯৭৭
চতুর্থ বিধানসভা ৫ই জানুয়ারি ১৯৭৮ থেকে ৭ জানুয়ারি ১৯৮৩
পঞ্চম বিধানসভা ১০ই জানুয়ারি ১৯৮৩ থেকে ৫ই ফেব্রুয়ারি ১৯৮৮
ষষ্ঠ বিধানসভা ৫ই ফেব্রুয়ারি ১৯৮৮ থেকে ২৮শে ফেব্রুয়ারি ১৯৯৩
সপ্তম বিধানসভা ১০ই এপ্রিল ১৯৯৩ থেকে ১০ই মার্চ ১৯৯৮
অষ্টম বিধানসভা ১০ই মার্চ ১৯৯৮ থেকে ২৮শে ফেব্রুয়ারি ২০০৩
নবম বিধানসভা ৪ঠা মার্চ ২০০৩ থেকে ৩রা মার্চ ২০০৮
দশম বিধানসভা ১০ই মার্চ ২০০৮ থেকে ১লা মার্চ ২০১৩
একাদশ বিধানসভা ২রা মার্চ ২০১৩ থেকে ৩রা মার্চ ২০১৮
দ্বাদশ বিধানসভা ৪ঠা মার্চ ২০১৮ থেকে --

বর্তমান বিধায়কগণের তালিকাসম্পাদনা

২০১৮ সালে ত্রিপুরা বিধানসভা নির্বাচনের পর রাজ্যে দ্বাদশ বিধানসভা গঠিত হয়েছিল। ঐ বছর ১৮ ফেব্রুয়ারি ৬০ সদস্য পদের বিধানসভা ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়,[৪][৫] ও এই নির্বাচনে ৮৯.৮% ভোটারের উপস্থিতির তথ্য জানা যায়।[৬] ৩রা মার্চ ভোট গণনা ও ফলাফল ঘোষণা করা হয়।[৫]

ক্রমিক নং কেন্দ্র বিধায়ক রাজনৈতিক দল মন্তব্য
সীমনা শূন্যপদ বৃষকেতু দেববর্মা পদত্যাগ করেন[৭]
মোহনপুর রতনলাল নাথ ভারতীয় জনতা পার্টি
বামুটিয়া কৃষ্ণধন দাস ভারতীয় জনতা পার্টি
বড়জলা দিলীপ কুমার দাস ভারতীয় জনতা পার্টি
খয়েরপুর রতন চক্রবর্তী ভারতীয় জনতা পার্টি অধ্যক্ষ (স্পিকার)
আগরতলা শূন্যপদ সুদীপ রায়বর্মণ পদত্যাগ করেন[৮]
রামনগর সুরজিৎ দত্ত ভারতীয় জনতা পার্টি
টাউন বড়দোয়ালী শূন্যপদ আশীষ কুমার সাহা পদত্যাগ করেন[৮]
বনমালীপুর বিপ্লব কুমার দেব ভারতীয় জনতা পার্টি মুখ্যমন্ত্রী
১০ মজলিশপুর সুশান্ত চৌধুরী ভারতীয় জনতা পার্টি
১১ মান্দাইবাজার ধীরেন্দ্র দেববর্মা ইন্ডিজেনাস পিপলস ফ্রন্ট অফ ত্রিপুরা
১২ টাকারজলা নরেন্দ্রচন্দ্র দেববর্মা ইন্ডিজেনাস পিপলস ফ্রন্ট অফ ত্রিপুরা
১৩ প্রতাপগড় রেবতীমোহন দাস ভারতীয় জনতা পার্টি
১৪ বাধারঘাট মিমি মজুমদার ভারতীয় জনতা পার্টি
১৫ কমলাসাগর নারায়ণচন্দ্র চৌধুরী ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
১৬ বিশালগড় ভানুলাল সাহা ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
১৭ গোলাঘাটী বীরেন্দ্রকিশোর দেববর্মা ভারতীয় জনতা পার্টি
১৮ সূর্যমণিনগর রামপ্রসাদ পল ভারতীয় জনতা পার্টি
১৯ চড়িলাম জিষ্ণু দেববর্মা ভারতীয় জনতা পার্টি উপমুখ্যমন্ত্রী
২০ বক্সনগর সাহিদ চৌধুরী ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
২১ নলছড় সুভাষচন্দ্র দাস ভারতীয় জনতা পার্টি
২২ সোনামুড়া শ্যামল চক্রবর্তী ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
২৩ ধনপুর মানিক সরকার ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি বিরোধী দলনেতা
২৪ রামচন্দ্রঘাট প্রশান্ত দেববর্মা ইন্ডিজেনাস পিপলস ফ্রন্ট অফ ত্রিপুরা
২৫ খোয়াই নির্মল বিশ্বাস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
২৬ আশারামবাড়ী মেবারকুমার জামাতিয়া ইন্ডিজেনাস পিপলস ফ্রন্ট অফ ত্রিপুরা
২৭ কল্যাণপুর-প্রমোদনগর পিনাকী দাস চৌধুরী ভারতীয় জনতা পার্টি
২৮ তেলিয়ামুড়া কল্যাণী রায় ভারতীয় জনতা পার্টি
২৯ কৃষ্ণপুর অতুল দেববর্মা ভারতীয় জনতা পার্টি
৩০ বাগমা রাম পদ জামাতিয়া ভারতীয় জনতা পার্টি
৩১ রাধাকিশোরপুর প্রাণজিৎ সিংহরায় ভারতীয় জনতা পার্টি
৩২ মাতারবাড়ী বিপ্লব কুমার ঘোষ ভারতীয় জনতা পার্টি
৩৩ কাকড়াবন-শালগড়া রতন ভৌমিক ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
৩৪ রাজনগর সুধন দাস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
৩৫ বিলোনীয়া অরুণচন্দ্র ভৌমিক ভারতীয় জনতা পার্টি
৩৬ শান্তিরবাজার প্রমোদ রিয়াং ভারতীয় জনতা পার্টি
৩৭ ঋষ্যমুখ বাদল চৌধুরী ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
৩৮ জোলাইবাড়ী যশবীর ত্রিপুরা ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
৩৯ মনু প্রভাত চৌধুরী ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
৪০ সাব্রুম শঙ্কর রায় ভারতীয় জনতা পার্টি
৪১ অম্পিনগর সিন্ধুচন্দ্র জামাতিয়া ইন্ডিজেনাস পিপলস ফ্রন্ট অফ ত্রিপুরা
৪২ অমরপুর রঞ্জিত দাস ভারতীয় জনতা পার্টি
৪৩ করবুক বুরবামোহন ত্রিপুরা ভারতীয় জনতা পার্টি
৪৪ রাইমাভ্যালি ধনঞ্জয় ত্রিপুরা ইন্ডিজেনাস পিপলস ফ্রন্ট অফ ত্রিপুরা
৪৫ কমলপুর মনোজকান্তি দেব ভারতীয় জনতা পার্টি
৪৬ সুরমা শূন্যপদ আশীষ দাসের অনুপযুক্ততা ঘোষণা[৯]
৪৭ আমবাসা পরিমল দেববর্মা ভারতীয় জনতা পার্টি
৪৮ করমছড়া দিবাচন্দ্র রংখল ভারতীয় জনতা পার্টি
৪৯ চাওমনু শম্ভুলাল চাকমা ভারতীয় জনতা পার্টি
৫০ পাবিয়াছড়া ভগবান দাস ভারতীয় জনতা পার্টি
৫১ ফটিকরায় সুধাংশু দাস ভারতীয় জনতা পার্টি
৫২ চণ্ডীপুর তপন চক্রবর্তী ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
৫৩ কৈলাসহর মবস্বর আলী ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
৫৪ কদমতলা-কুর্তি ইসলাম উদ্দিন ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
৫৫ বাগবাসা বিজিতা নাথ ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি
৫৬ ধর্মনগর বিশ্ববন্ধু সেন ভারতীয় জনতা পার্টি ডেপুটি স্পিকার
৫৭ যুবরাজনগর শূন্যপদ রামেন্দ্রচন্দ্র দেবনাথের মৃত্যু[১০]
৫৮ পানিসাগর বিনয়ভূষণ দাস ভারতীয় জনতা পার্টি
৫৯ পেঁচারথল সান্ত্বনা চাকমা ভারতীয় জনতা পার্টি
৬০ কাঞ্চনপুর প্রেমকুমার রিয়াং ইন্ডিজেনাস পিপলস ফ্রন্ট অফ ত্রিপুরা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "BJP's Ratan Chakraborty elected Speaker of Tripura Assembly"EastMojo। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ১১ অক্টোবর ২০২১ 
  2. "Tripura to celebrate 50 years of assembly"The Times of India। ১ জুলাই ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জানুয়ারি ২০২১ 
  3. "Tripura Legislative Assembly at a glance"legislativebodiesinindia.nic.in। ৩ মার্চ ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  4. "Tripura Election 2018 Date announced by EC: Check all details here"The Financial Express (ইংরেজি ভাষায়)। ১৮ জানুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  5. "EC announces election dates for 3 NE states: Tripura to vote on 18 Feb, Meghalaya, Nagaland on 27 Feb; results for all states on 3 March-Politics News , Firstpost"Firstpost (ইংরেজি ভাষায়)। ১৮ জানুয়ারি ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  6. PTI (১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮)। "Tripura records 89.8% voter turnout in assembly elections: EC"Mint (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  7. "Tripura: IPFT MLA Brishaketu Debbarma resigns; Speaker and CM to meet him today"The Indian Express (ইংরেজি ভাষায়)। ১ জুলাই ২০২১। সংগ্রহের তারিখ ২ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  8. "Two Tripura BJP MLAs resign"The New Indian Express। সংগ্রহের তারিখ ৭ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  9. Ali, Syed Sajjad (৫ জানুয়ারি ২০২২)। "TMC's Asish Das disqualified under anti-defection law"The Hindu (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২২ 
  10. "Veteran CPI(M) leader and former Tripura Assembly Speaker R C Debnath dies at 66"The Indian Express (ইংরেজি ভাষায়)। ২ ফেব্রুয়ারি ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২