চার্লস কেলেওয়ে

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার

চার্লস (চার্লি) কেলেওয়ে (ইংরেজি: Charles Kelleway; জন্ম: ২৫ এপ্রিল, ১৮৮৬ - মৃত্যু: ১৬ নভেম্বর, ১৯৪৪) লিসমোর এলাকায় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ছিলেন। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯১০ থেকে ১৯২৮ সময়কালে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ২৬ টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন চার্লস কেলেওয়ে। ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে নিউ সাউথ ওয়েলসের প্রতিনিধিত্ব করেন।[১]

চার্লি কেলেওয়ে
আনুমানিক ১৯২০ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে চার্লি কেলেওয়ে
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম
চার্লস কেলেওয়ে
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট মিডিয়াম
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় দল
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ২৬ ১৩২
রানের সংখ্যা ১৪২২ ৬৩৮৯
ব্যাটিং গড় ৩৭.৪২ ৩৫.১০
১০০/৫০ ৩/৬ ১৫/২৮
সর্বোচ্চ রান ১৪৭ ১৬৮
বল করেছে ৪৩৬৩ ২২৯৫৯
উইকেট ৫২ ৩৩৯
বোলিং গড় ৩২.৩৬ ২৬.৩৩
ইনিংসে ৫ উইকেট ১০
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ৫/৩৩ ৭/৩৫
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ২৪/০ ১০২/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ২১ আগস্ট ২০১৭

খেলোয়াড়ী জীবন

সম্পাদনা

প্রথম বিশ্বযুদ্ধ শুরু হওয়ার পূর্বে ও বিশ্বযুদ্ধ শেষ হবার পরে খেলেছেন তিনি। ১৯১১-১২ মৌসুমে ইংল্যান্ড সফরে যান ও প্লাম ওয়ার্নারের নেতৃত্বাধীন ইংরেজ দলের বিপক্ষে খেলেন তিনি। ঐ সিরিজে তিনি ৪১.৫০ গড়ে কেবলমাত্র ৬ উইকেট পান। তবে, ১৯১২ সালের ত্রি-দেশীয় প্রতিযোগিতায় তিনি স্বরূপ ধারণ করেন। ছয় টেস্টে অংশ নিয়ে ৩৬০ রান তুলেন। ম্যানচেস্টারে ১১৪ ও লর্ডসে ১০২ রান তুলেন তিনি। উভয় ক্ষেত্রেই প্রতিপক্ষ ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা দল। এছাড়াও, ৫/৩৩ নিয়ে ব্যক্তিগত সেরা বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন।

ব্যক্তিগত জীবন

সম্পাদনা

অস্ট্রেলীয় সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। যুদ্ধ শেষ হলে ইংল্যান্ডে অবস্থান করেন ও দায়িত্ব থেকে অব্যহতি নেয়ার পূর্ব-পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ান ইম্পেরিয়াল ফোর্স ট্যুরিং একাদশের অধিনায়কত্ব করেন।

দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পর সিডনিতে তার দেহাবসান ঘটে।

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা

আরও দেখুন

সম্পাদনা

বহিঃসংযোগ

সম্পাদনা