প্রধান মেনু খুলুন

গোড্ডা জেলা

ঝাড়খণ্ডের একটি জেলা

গোড্ডা জেলা পূর্ব ভারতে অবস্থিত ঝাড়খণ্ড রাজ্যের ২৪ টি জেলার একটি৷ ২রা জ্যৈষ্ঠ ১৩৯০ বঙ্গাব্দে(১৭ই মে ১৯৮৩ খ্রিস্টাব্দে) পুর্বতন সাঁওতাল পরগনা জেলা খন্ডিত করে নতুন জেলাটি গঠিত হয়৷ জেলাটি ঝাড়খণ্ডের উত্তর-পূর্ব অবস্থিত সাঁওতাল পরগনা বিভাগের অন্তর্গত৷ জেলাটির জেলাসদর গোড্ডা শহরে অবস্থিত এবং গোড্ডা মহকুমামহাগামা মহকুমা নিয়ে গঠিত৷

গোড্ডা জেলা
ঝাড়খণ্ডের জেলা
ঝাড়খণ্ডে গোড্ডার অবস্থান
ঝাড়খণ্ডে গোড্ডার অবস্থান
দেশভারত
রাজ্যঝাড়খণ্ড
প্রশাসনিক বিভাগসাঁওতাল পরগনা বিভাগ
সদরদপ্তরগোড্ডা
তহশিল
সরকার
 • বিধানসভা আসন
আয়তন
 • মোট২২৬৬ কিমি (৮৭৫ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট১৩,১৩,৫৫১
 • জনঘনত্ব৫৮০/কিমি (১৫০০/বর্গমাইল)
জনতাত্ত্বিক
 • সাক্ষরতা৫৬.৪০ শতাংশ
 • লিঙ্গানুপাত৯৩৮
ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট

নামকরণসম্পাদনা

সংস্কৃৃত শব্দ গোড্ডার অর্থ পা, হাটু বা নিম্ন অংশ৷[১] অনুমান করা যায় রাজমহল পার্বত্য অঞ্চলে পাদদেশে অবস্থিত হওয়া থেকে এই নামটি এসেছে৷ জেলাসদরের নামে জেলাটির নামকরণ করা হয়েছে৷

ইতিহাসসম্পাদনা

ঐতিহাসিক আন্দোলনসম্পাদনা

ভূপ্রকৃৃতিসম্পাদনা

অর্থনীতিসম্পাদনা

অবস্থানসম্পাদনা

জেলাটির উত্তরে বিহার রাজ্যের ভাগলপুর জেলাজেলাটির উত্তর পূর্বে(ঈশান) ঝাড়খণ্ড রাজ্যের সাহেবগঞ্জ জেলাজেলাটির পূর্বে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের সাহেবগঞ্জ জেলাঝাড়খণ্ড রাজ্যের পাকুড় জেলাজেলাটির দক্ষিণ পূর্বে(অগ্নি) ঝাড়খণ্ড রাজ্যের পাকুড় জেলাজেলাটির দক্ষিণে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের দুমকা জেলাজেলাটির দক্ষিণ পশ্চিমে(নৈঋত) বিহার রাজ্যের বাঁকা জেলাজেলাটির পশ্চিমে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের বাঁকা জেলাজেলাটির উত্তর পশ্চিমে(বায়ু) বিহার রাজ্যের ভাগলপুর জেলা[২]

জেলাটির আয়তন ২২৬৬ বর্গ কিমি৷ রাজ্যের জেলায়তনভিত্তিক ক্রমাঙ্ক ২৪ টি জেলার মধ্যে তম৷ জেলার আয়তনের অনুপাত ঝাড়খণ্ড রাজ্যের ২.৮৪%৷

ভাষাসম্পাদনা

গোড্ডা জেলায় প্রচলিত ভাষাসমূহের পাইচিত্র তালিকা নিম্নরূপ -

২০১১ অনুযায়ী গোড্ডা জেলার ভাষাসমূহ[৩]

  হিন্দী (৫৩.৯৭%)
  সাঁওতালি (১৭.৭২%)
  খোরঠা (১০.৬০%)
  উর্দু (৮.৪০%)
  বাংলা (২.৮৪%)
  মালতো (২.১৯%)
  কুরুখ/ওরাওঁ (০.৬৫%)
  অন্যান্য (৩.৬৩%)

ধর্মসম্পাদনা

জনসংখ্যার উপাত্তসম্পাদনা

মোট জনসংখ্যা ১০৪৭৯৩৯(২০০১ জনগণনা) ও ১৩১৩৫৫১(২০১১ জনগণনা)৷[৪] রাজ্যে জনসংখ্যাভিত্তিক ক্রমাঙ্ক ২৪ টি জেলার মধ্যে ১২তম৷ ঝাড়খণ্ড রাজ্যের ৩.৯৮% লোক গোড্ডা জেলাতে বাস করেন৷ জেলার জনঘনত্ব ২০০১ সালে ৪৯৭ ছিলো এবং ২০১১ সালে তা বৃদ্ধি পেয়ে ৫৮০ হয়েছে৷ জেলার জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ২০০১-২০১১ সালের মধ্যে জনসংখ্যা বৃৃদ্ধির হার ২৫.৩৫% , যা ১৯৯১-২০১১ সালের ২১.৬৮% বৃদ্ধির হারের থেকে বেশী৷ জেলাটিতে লিঙ্গানুপাত ২০১১ অনুযায়ী ৯৩৮(সমগ্র) এবং শিশু(০-৬ বৎ) লিঙ্গানুপাত ৯৬০৷

নদনদীসম্পাদনা

পরিবহন ও যোগাযোগসম্পাদনা

পর্যটন ও দর্শনীয় স্থানসম্পাদনা

ঐতিহ্য ও সংস্কৃতিসম্পাদনা

শিক্ষাসম্পাদনা

জেলাটির স্বাক্ষরতা হার ৪৩.১৩%(২০০১) তথা ৫৬.৪০%(২০১১)৷ পুরুষ স্বাক্ষরতার হার ৫৭.৫২%(২০০১) তথা ৬৭.৮৪%(২০১১)৷ নারী স্বাক্ষরতার হার ২৭.৩৯%(২০০১) তথা ৪৪.১৪% (২০১১)৷ জেলাটিতে শিশুর অনুপাত সমগ্র জনসংখ্যার ১৮.৪১%৷[৪]

প্রশাসনিক বিভাগসম্পাদনা

সীমান্তসম্পাদনা

বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা