গোড্ডা জেলা

ঝাড়খণ্ডের একটি জেলা

গোড্ডা জেলা পূর্ব ভারতে অবস্থিত ঝাড়খণ্ড রাজ্যের ২৪ টি জেলার একটি৷ ২রা জ্যৈষ্ঠ ১৩৯০ বঙ্গাব্দে(১৭ই মে ১৯৮৩ খ্রিস্টাব্দে) পুর্বতন সাঁওতাল পরগনা জেলা খন্ডিত করে নতুন জেলাটি গঠিত হয়৷ জেলাটি ঝাড়খণ্ডের উত্তর-পূর্ব অবস্থিত সাঁওতাল পরগনা বিভাগের অন্তর্গত৷ জেলাটির জেলাসদর গোড্ডা শহরে অবস্থিত এবং গোড্ডা মহকুমামহাগামা মহকুমা নিয়ে গঠিত৷

গোড্ডা জেলা
ঝাড়খণ্ডের জেলা
ঝাড়খণ্ডে গোড্ডার অবস্থান
ঝাড়খণ্ডে গোড্ডার অবস্থান
দেশভারত
রাজ্যঝাড়খণ্ড
প্রশাসনিক বিভাগসাঁওতাল পরগনা বিভাগ
সদরদপ্তরগোড্ডা
তহশিল
সরকার
 • বিধানসভা আসন
আয়তন
 • মোট২,২৬৬ বর্গকিমি (৮৭৫ বর্গমাইল)
জনসংখ্যা (২০১১)
 • মোট১৩,১৩,৫৫১
 • জনঘনত্ব৫৮০/বর্গকিমি (১,৫০০/বর্গমাইল)
জনতাত্ত্বিক
 • সাক্ষরতা৫৬.৪০ শতাংশ
 • লিঙ্গানুপাত৯৩৮ মহিলা / ১০০০ পুরুষ
ওয়েবসাইটদাপ্তরিক ওয়েবসাইট
গোড্ডা জেলায় ধানক্ষেত

নামকরণ

সম্পাদনা

সংস্কৃৃত শব্দ গোড্ডার অর্থ পা, হাটু বা নিম্ন অংশ৷[১] অনুমান করা যায় রাজমহল পার্বত্য অঞ্চলে পাদদেশে অবস্থিত হওয়া থেকে এই নামটি এসেছে৷ জেলাসদরের নামে জেলাটির নামকরণ করা হয়েছে৷

ইতিহাস

সম্পাদনা

ঐতিহাসিক আন্দোলন

সম্পাদনা

ভূপ্রকৃৃতি

সম্পাদনা

অর্থনীতি

সম্পাদনা

অবস্থান

সম্পাদনা

জেলাটির উত্তরে বিহার রাজ্যের ভাগলপুর জেলা, উত্তর-পূর্বে (ঈশান) ঝাড়খণ্ড রাজ্যের সাহেবগঞ্জ জেলা, পূর্বে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের সাহেবগঞ্জ জেলাঝাড়খণ্ড রাজ্যের পাকুড় জেলা, দক্ষিণ-পূর্বে (অগ্নি) ঝাড়খণ্ড রাজ্যের পাকুড় জেলা, দক্ষিণে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের দুমকা জেলা, দক্ষিণ পশ্চিমে (নৈঋত) বিহার রাজ্যের বাঁকা জেলা, পশ্চিমে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের বাঁকা জেলা এবং উত্তর-পশ্চিমে (বায়ু) বিহার রাজ্যের ভাগলপুর জেলা অবস্থিত। [২]

জেলাটির আয়তন ২২৬৬ বর্গ কিমি। রাজ্যের জেলায়তনভিত্তিক ক্রমাঙ্ক ২৪ টি জেলার মধ্যে তম। জেলার আয়তনের অনুপাত ঝাড়খণ্ড রাজ্যের ২.৮৪%।

গোড্ডা জেলায় প্রচলিত ভাষাসমূহের পাইচিত্র তালিকা নিম্নরূপ -

২০১১ অনুযায়ী গোড্ডা জেলার ভাষাসমূহ[৩]

  হিন্দী (৫৩.৯৭%)
  সাঁওতালি (১৭.৭২%)
  খোরঠা (১০.৬০%)
  উর্দু (৮.৪০%)
  বাংলা (২.৮৪%)
  মালতো (২.১৯%)
  কুরুখ/ওরাওঁ (০.৬৫%)
  অন্যান্য (৩.৬৩%)

জনসংখ্যার উপাত্ত

সম্পাদনা

মোট জনসংখ্যা ১০৪৭৯৩৯(২০০১ জনগণনা) ও ১৩১৩৫৫১(২০১১ জনগণনা)৷[৪] রাজ্যে জনসংখ্যাভিত্তিক ক্রমাঙ্ক ২৪ টি জেলার মধ্যে ১২তম৷ ঝাড়খণ্ড রাজ্যের ৩.৯৮% লোক গোড্ডা জেলাতে বাস করেন৷ জেলার জনঘনত্ব ২০০১ সালে ৪৯৭ ছিলো এবং ২০১১ সালে তা বৃদ্ধি পেয়ে ৫৮০ হয়েছে৷ জেলার জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ২০০১-২০১১ সালের মধ্যে জনসংখ্যা বৃৃদ্ধির হার ২৫.৩৫% , যা ১৯৯১-২০১১ সালের ২১.৬৮% বৃদ্ধির হারের থেকে বেশি৷ জেলাটিতে লিঙ্গানুপাত ২০১১ অনুযায়ী ৯৩৮(সমগ্র) এবং শিশু(০-৬ বৎ) লিঙ্গানুপাত ৯৬০৷

পরিবহন ও যোগাযোগ

সম্পাদনা

পর্যটন ও দর্শনীয় স্থান

সম্পাদনা

ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি

সম্পাদনা

শিক্ষা

সম্পাদনা

জেলাটির স্বাক্ষরতা হার ৪৩.১৩%(২০০১) তথা ৫৬.৪০%(২০১১)৷ পুরুষ স্বাক্ষরতার হার ৫৭.৫২%(২০০১) তথা ৬৭.৮৪%(২০১১)৷ নারী স্বাক্ষরতার হার ২৭.৩৯%(২০০১) তথা ৪৪.১৪% (২০১১)৷ জেলাটিতে শিশুর অনুপাত সমগ্র জনসংখ্যার ১৮.৪১%৷[৪]

প্রশাসনিক বিভাগ

সম্পাদনা

সীমান্ত

সম্পাদনা

বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ

সম্পাদনা

তথ্যসূত্র

সম্পাদনা