ক্রিস্টিয়ান পুলিশিচ

মার্কিন ফুটবল খেলোয়াড়

ক্রিস্টিয়ান মেইট পুলিশিচ (ক্রোয়েশীয়: Kristijan Mate Pulišić: [krǐstijan mǎːte pǔːliːʃitɕ]; জন্ম সেপ্টেম্বর ১৮, ১৯৯৮) হলেন একজন মার্কিন পেশাদার সকার বা ফুটবল খেলোয়াড়, যিনি একজন অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার অথবা উইঙ্গার হিসেবে প্রিমিয়ার লিগ ক্লাব চেলসি এবং যুক্তরাষ্ট্র জাতীয় দল-এর হয়ে খেলে থাকেন।[৫][৬]

ক্রিস্টিয়ান পুলিশিচ
Christian Pulisic 2017 (cropped).jpg
২০১৭ সালে পুলিশিচ তার দল বরুসিয়া ডর্টমুন্ড-এর সাথে প্রশিক্ষণরত অবস্থায়।
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম ক্রিস্টিয়ান মেইট পুলিশিচ[১]
জন্ম (1998-09-18) ১৮ সেপ্টেম্বর ১৯৯৮ (বয়স ২৩)
জন্ম স্থান হার্শে, পেন্সিল্‌ভেনিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
উচ্চতা ৫ ফুট ১০ ইঞ্চি
মাঠে অবস্থান অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার, উইঙ্গার
ক্লাবের তথ্য
বর্তমান দল
চেলসি
জার্সি নম্বর ২২
যুব পর্যায়
২০০৫–২০০৬ ব্রেকলি টাউন[২]
২০০৬–২০০৭ মিশিগান রাশ[৩]
২০০৮–২০১৫ পিএ ক্লাসিক্স[৪]
২০১৫–২০১৬ বরুসিয়া ডর্টমুন্ড
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
বছর দল ম্যাচ (গোল)
২০১৬–২০১৯ বরুসিয়া ডর্টমুন্ড ৮১ (১০)
২০১৯– চেলসি ২৫ (৯)
২০১৯বরুসিয়া ডর্টমুন্ড (লোন) (৩)
জাতীয় দল
২০১২–২০১৩ যুক্তরাষ্ট্র অনূর্ধ্ব-১৫ ১০ (২)
২০১৩–২০১৫ যুক্তরাষ্ট্র অনূর্ধ্ব-১৭ ৩৪ (২০)
২০১৬– যুক্তরাষ্ট্র ৩৪ (১৪)
অর্জন ও সম্মাননা
 United States-এর প্রতিনিধিত্বকারী
ব্রোঞ্জ পদক - তৃতীয় স্থান CONCACAF U-17 Championship 2015
রানার-আপ CONCACAF Gold Cup 2019
* শুধুমাত্র ঘরোয়া লীগে ক্লাবের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে এবং জুলাই ২৬, ২০২০ তারিখ অনুযায়ী সকল তথ্য সঠিক।
‡ জাতীয় দলের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা অক্টোবর ১৬, ২০১৯ তারিখ অনুযায়ী সঠিক।

অনেকে প্রত্যাশা করেন আমেরিকার সেরা সকার বা ফুটবল খেলোয়াড় হিসেবে,[৭] তিনি সর্বকনিষ্ঠ ফুটবলার যিনি তার দেশের জেষ্ঠ জাতীয় দল-এর হয়ে ফিফা বিশ্বকাপ-এর বাছাইপর্বে প্রতিনিধিত্ব করেছেন। যুক্তরাষ্ট্র বয়স ভিত্তিক জাতীয় দল সমূহের সাথে তার দ্রুত উত্থান জনপ্রিয় জার্মান ক্লাব বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের একাডেমীতেও প্রতিফলিত হয়েছে, ২০১৫-১৬ সালের শীতকালীন বিরতির আগের সময়কালে তাকে প্রথম দলে আনার আগ পযন্ত তিনি মাত্র ১৫ ম্যাচ খেলেছিলেন।[৮]

২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে, তিনি জনপ্রিয় জার্মান ঘরোয়া লিগ বুন্দেসলিগা-এ সর্বকনিষ্ঠ গোল করা বিদেশী খেলোয়াড় হয়ে যান।[৯] একই মাসের শেষের দিকে, তিনি বুন্দেসলিগা'র ইতিহাসে দুটি গোল করা সর্ব কনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে বোনে যান।[১০] ২০১৬ সালের ২৮শে মে, তার আঠারোতম জন্ম তারিখের কিছু দিন বাকি থাকতেই, তিনি বলিভিয়া'র বিপক্ষে অনুষ্ঠিত হওয়া এক আন্তর্জাতিক বন্ধুত্বপূর্ণ ম্যাচে গোল করেন, যা তাকে তার দেশ যুক্তরাষ্ট্র-এর হয়ে আধুনিক যুগে গোল করা সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় বানিয়ে দেয়। ২০১৬ সালের ২রা সেপ্টেম্বর, মাত্র ১৭ বছর ৩৪৯ দিন বয়সে তিনি বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব-এর ম্যাচে গোল করে বাছাই পর্বে গোল করা মার্কিন ইতিহাসের সর্বকনিষ্ঠ পুরুষ খেলোয়াড় হয়ে যান।

প্রাথমিক জীবন এবং ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

পুলিশিচের জন্ম হয়, মার্কিন যযুক্তরাষ্ট্রের পেন্সিল্‌ভেনিয়া রাজ্যের হার্শে শহরে, যেখানে তিনি তার শৈশবের সিংহভাগ সময় ব্যয় করেছেন। তার পিতা-মাতা হলেন, মার্ক এবং কেলি পুলিশিচ, তারা দু'জন-ই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়া রাজ্যের ফেয়ারফেক্স কান্ট্রি জেলায় অবস্থিত জর্জ মাসন বিশ্ববিদ্যালয়-এ কলেজিয়েট ফুটবল বা সকার খেলেছেন এবং তার বাবা ১৯৯০ সালের দিকে মার্কিন সাবেক আভ্যন্তরীন সকার ক্লাব হেরিসবার্গ হিট-এর হয়ে পেশাদার আভ্যন্তরীন সকার খেলেছেন এছাড়াও পরবর্তীতে তরুন এবং পেশাদার উভয় ভাগ সমূহে কোচের দাইত্ব পালন করেন।[১১] পুলিশিচের সাত বছর বয়স থাকাকালীন সময়ে, এক বছর তিনি ইংল্যান্ড-এ বসবাস করেছেন, সেখানে তিনি ইংলিশ ক্লাব ব্রেকলি টাউন-এর তরুন দলে খেলেছেন।

পুলিশিচের দাদা, মেইটের জন্ম হয়েছিলো ক্রোয়েশিয়া-এর ওলিব নামক দ্বীপে।[১২] পুলিশিচ জার্মানিতে চলে আসার পর, সে দেশের কর্ম ভিসায় আবেদন এড়ানোর জন্য ক্রোয়েশিয়ান (এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন) -এর নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করেন। তাকে ক্রোয়েশিয়া জাতীয় দল-এর হয়ে খেলার জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয়, কিন্তু তিনি তা নাকচ করে দেন।[১৩]

পুলিশিচের চাচাতো ভাই, উইল পুলিশিচ, তিনিও যুক্তরাষ্ট্র অনূর্ধ্ব-১৭ দলের হয়ে একজন গোলকিপার হিসেবে তার দেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। ২০১৬ সালের মার্চ মাসে তিনি ঘোষণা দেন যে, তিনিও বরুশিয়া ডর্টমুন্ডে আসতে আগ্রহী।[১৪]

খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যানসম্পাদনা

ক্লাবসম্পাদনা

মে ১২, ২০১৮ [১৫] পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।
ক্লাব মৌসুম লিগ কাপ1 ইউরোপ2 অন্যান্য3 সর্বমোট
বিভাগ উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল উপস্থিতি গোল
বরুশিয়া ডর্টমুন্ড ২০১৫–১৬ বুন্দেসলিগা ১২
২০১৬–১৭ ২৯ ১০ ৪৩
২০১৭–১৮ ৩২ ৪২
সর্বমোট ৭০ ২১ ৯৭ ১২
খেলোয়াড়ী জীবনে সর্বমোট ৭০ ২১ ৯৭ ১২

আন্তর্জাতিকসম্পাদনা

মে ২৮, ২০১৮ [১৬] পর্যন্ত হালনাগাদকৃত।
যুক্তরাষ্ট্র
সাল উপস্থিতি গোল
২০১৬ ১১
২০১৭
২০১৮
সর্বমোট ২১

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "FIFA U-17 World Cup Chile 2015 List of Players" (PDF)fifadata.com। নভেম্বর ৩, ২০১৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৩১, ২০১৬ 
  2. Ames, Nick (মে ৩১, ২০১৬)। "Christian Pulisic: the making of a young man ready to step up"। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৩১, ২০১৬ – The Guardian-এর মাধ্যমে। 
  3. "Rush Alumni Christian Pulisic Makes Bundesliga Debut with Borussia Dortmund"Rush Soccer Club। RushCanada.com। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ৬, ২০১৭ 
  4. "Christian Pulisic"। ussda.demosphere.com। ২ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ৩১, ২০১৬ 
  5. "Christian Pulisic"। soccerway.com। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৪, ২০১৬ 
  6. "Christian Pulisic – USMNT – US Mens Soccer Official Site"www.ussoccer.com। ৩০ জানুয়ারি ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৬, ২০১৬ 
  7. Bird, Liviu। "USA's Pulisic a fast-rising talent at Dortmund"www.si.com। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৬, ২০১৬ 
  8. Pulisic, Christian। "MLS Soccer" 
  9. "Christian Pulisic becomes youngest non-German to score in Bundesliga"ESPNFC.com 
  10. "Christian Pulisic scores again to become youngest player ever with two Bundesliga goals"। Fox Sports। এপ্রিল ২৩, ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ২৩, ২০১৬ 
  11. VICE Sports (নভেম্বর ৯, ২০১৬)। "Das American: Christian Pulisic's Spectacular Rise" – YouTube-এর মাধ্যমে। 
  12. "Pulisic makes history as USA beat Guatemala"BundesligaDFL Deutsche Fußball Liga GmbH। মার্চ ৩, ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ২৫, ২০১৭ 
  13. "Pulisic nikada neće postati Pulišić" (Croatian ভাষায়)। Slobodna Dalmacija। মার্চ ৩১, ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১১, ২০১৬ 
  14. "U.S. under-17 keeper Will Pulisic set to join cousin Christian at Dortmund"। ESPN FC। মার্চ ২২, ২০১৬। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ১৮, ২০১৬ 
  15. "Christian Pulisic Player Profile – ESPN FC"। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ৩১, ২০১৬ 
  16. উদ্ধৃতি ত্রুটি: <ref> ট্যাগ বৈধ নয়; Soccerway নামের সূত্রটির জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি

বহিঃসংযোগসম্পাদনা