কেপলার-৯সি

বহির্গ্রহ

কেপলার-৯সি হচ্ছে প্রথম সাতটি বহির্গ্রহের একটি, সৌরজগতের বাইরে, নাসার কেপলার মিশনের মাধ্যমে আবিষ্কৃত। এটি কেপলার-৯ নক্ষত্রকে প্রদক্ষিণকারী গ্রহ। কেপলার-৯সি এবং কেপলার-৯বি হচ্ছে প্রথম দুটি বহির্গ্রহ যে দুটো এদের নক্ষত্রকে ট্রানজিট করে। [২][৩] কেপলার মিশন টিম গ্রহটির আবিষ্কারের ঘোষণা করেছিল ২৬শে আগস্ট, ২০১০ এ। সেই সময়ে, এটি ছিল কেপলার দিয়ে চিহ্নিত করা ৭০০ গ্রহের একটি। 

Kepler-9c
বহির্গ্রহ বহির্গ্রহসমূহের তালিকা
Exoplanet Comparison Kepler-9 c.png
Size comparison of Kepler-9c (left) with Jupiter (right)
মাতৃ তারা
তারা Kepler-9[১]
তারামণ্ডল বীণা মণ্ডল
বিষুবাংশ (&আলফা;)  ১৯ ২মি ১৭.৭৬সে
বিষুবলম্ব (&ডেল্টা;) +৩৮° ২৪′ ৩.২″
আপাত মান (mV) ~১৩
দূরত্ব২১২০ ly
(৬৫০ পিসি)
ভর (m) ১.০৭ M
ব্যাসার্ধ (r) ১.০২ R
তাপমাত্রা (T) ৫৭৭৭ ± ৬১ K
ধাতবতা [Fe/H] +০.১২ ± ০.০৪
বয়স ~১ Gyr
ভৌত বৈশিষ্ট্যসমূহ
ভর(m)০.১৭১ ± ০.০১৩ MJ
ব্যাসার্ধ(r)০.৮২৩ ± ০.০৬৭ আরজে
তাপমাত্রা (T) ৫৩৬°K
কক্ষপথের রাশি
অর্ধ-মুখ্য অক্ষ(a) ০.২২৫ ± ০.০০১ AU
উৎকেন্দ্রিকতা (e)
কক্ষীয় পর্যায়কাল(P) ৩৮.৯১ d
নতি (i) ৮৮.১২°
আবিষ্কারের তথ্য
আবিষ্কারের তারিখ ২০১০-০৮-২৬
আবিষ্কারক(সমূহ)
আবিষ্কারের পদ্ধতি ট্রানজিট পদ্ধতি (কেপলার মিশন)
অন্য সনাক্তকরণ পদ্ধতি Radial velocity
Transit timing variations
আবিষ্কারের অবস্থা ঘোষিত

গ্রহটির উপর পর্যবেক্ষণের তথ্য থেকে ধারণা করা হয় এটি একটি হাইড্রোজেন-হিলিয়াম গ্যাস দানব, যা শনি থেকে সামান্য ছোট। এটি এর নক্ষত্র কেপলার-৯ থেকে ০.২২৫ এস্ট্রোনোমিকাল ইউনিট দূর দিয়ে আবর্তন করে। কেপলার-৯সি এবং বি , দুটো গ্রহ একটি কক্ষপথীয় অনুরণন মেনে চলে। এই কক্ষপথীয় অনুরণন একে অপরকে স্থিতিশীল রাখে তাদের কক্ষপথে। মহাকাশযান থেকে পর্যবেক্ষণ করার সময় এর কক্ষপথে পরিভ্রমণকাল গড়পড়তায় হিসেব করা হয়েছিল ৩৮দিন। এই প্রদক্ষিণকাল আবার ৩৯ মিনিট করে কমতে থাকে প্রতি কক্ষপথীয় ঘূর্ণনে। এর কক্ষপথ, দীর্ঘ সময়ের স্কেলে, বি গ্রহের সাথে ২:১ অনুপাতে কমে ও বেড়ে চলতে থাকে। অর্থাৎ দুটো গ্রহের মাঝে কক্ষপথীয় ঘূর্ণনের দোলন হয় যার অনুপাত মোটামুটিভাবে ২:১ এ ভারসাম্য রক্ষা করে। 

নামকরণ এবং ইতিহাসসম্পাদনা

বেশিরভাগ বহির্গ্রহের মত, কেপলার-৯সি নামটি নির্দেশ করে যে এটি কেপলার-৯ নক্ষত্রের দ্বিতীয় গ্রহ। কেপলার-৯ নামকরণ করা হয়েছিল কেপলার মিশনের কারণে, যেটি নাসার একটি প্রজেক্ট, যেক্ষেত্রে নক্ষত্রকে ট্রানজিট করে এমন গ্রহ আবিষ্কার ছিল প্রজেক্টের উদ্দেশ্য। [৪] গ্রহটি কেপলারের প্রথম ৪৩দিনের অভিযানে আবিষ্কার করা ৭০০টি গ্রহের একটি। কেপলার সিস্টেম হচ্ছে পাঁচটি সিস্টেমের এক সদস্য যেগুলোর একের বেশি বহির্গ্রহ ট্রানজিট করে। কেপলার-৯সি এবং কেপলার-৯বি একই নক্ষত্রকে ট্রানজিট করা প্রথম গ্রহ।[৫] প্রাথমিক অনুমান অনুযায়ী কেপলার-৯সিকে পর্যবেক্ষণ করে এর ভর পরিমাপ করা হয়েছিল হাওয়াই এর মওনা কেয়াতে অবস্থিত ডব্লিউ এম কেক অবজারভেটরির কেক১ টেলিস্কোপ দিয়ে। কেক এটা নিশ্চিত করতে সমর্থ হয়েছিল যে, কেপলার-৯সি এবং কেপলার-৯বি শনি গ্রহের চেয়ে সামান্য ছোট। [৫]

বৈশিষ্ট্যাবলীসম্পাদনা

কেপলার-৯সি একটি গ্যাস দানব যেটি শনির চেয়ে সামান্য ছোট এবং কম ভরের। এটি প্রায় ০.১৭১ MJ, অর্থাৎ জুপিটারের প্রায় ১৭% ভর। এর ব্যাসার্ধ ০.৮২৩RJ, যা একে শনির চেয়ে মাত্র দেড় শতাংশ ছোট আকার দিয়েছে। গ্রহটি এর নক্ষত্রকে গড়পড়তায় ০.২২৫ এস্ট্রোনোমিকাল ইউনিট দূরে দিয়ে প্রদক্ষিণ করে। [৬]

সম্ভবত, এ গ্রহটি হাইড্রোজেন এবং হিলিয়ামের সমন্বয়ে গঠিত। এটি কেপলার-৯বি এর সাথে একই তলে প্রদক্ষিণ করে। এটি কেপলার-৯ সিস্টেমের দ্বিতীয় বৃহত্তম গ্রহ। গ্রহটি পর্যবেক্ষণের সময় কেপলার দল লক্ষ করে যে কেপলার-৯বি এবং সি ১:২ অনুপাতে প্রদক্ষিণ করে, যেখানে কেপলার-৯বি ১৯দিনে এবং কেপলার-সি ৩৮ দিনে তাদের নক্ষত্রকে প্রদক্ষিণ করে। এ দুটো গ্রহের মধ্যে যে মহাকর্ষীয় টান আছে তা কক্ষপথীয় অনুরণন বলে পরিচিত, যার ফলে গ্রহ দুটি সাম্যাবস্থায় ভারসাম্য রক্ষা করে আছে। এ ঘটনাটি সৌরজগতের বাইরে আবিষ্কার করা প্রথম ঘটনা। প্রতিবার প্রদক্ষিণে কেপলার-৯সি এর প্রদক্ষিণকাল ৩৯মিনিট করে হ্রাস পায়। আবার কোনো এক পর্যায়ে এ প্রক্রিয়াটি বিপরীত দিকে চলে যায় এবং সময় বাড়তে থাকে। আর প্রদক্ষিণকালের হ্রাস-বৃদ্ধি চলতে থাকে যেন কেপলার-৯বি এর সাথে সি গ্রহটি ২:১ অনুপাতে দুলতে থাকে।[৭]

আরো দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Guillermo Torres; ও অন্যান্য (২০১০)। "Modeling Kepler transit light curves as false positives: Rejection of blend scenarios for KOI-377, and strong evidence for a super-Earth-size planet in a multiple system"। The Astrophysical Journal727 (24): 24। arXiv:1008.4393 ডিওআই:10.1088/0004-637X/727/1/24বিবকোড:2011ApJ...727...24T 
  2. "Summary Table of Kepler Discoveries"। NASA। ২০১০-০৮-২৬। ২০১৭-০৪-০১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৯-০১ 
  3. Matthew J. Holman; ও অন্যান্য (২০১০)। "Kepler-9: A System of Multiple Planets Transiting a Sun-Like Star, Confirmed by Timing Variations"। Science330 (6000): 51–4। ডিওআই:10.1126/science.1195778পিএমআইডি 20798283বিবকোড:2010Sci...330...51H 
  4. "Kepler: About the Mission"NASA। ২০১১। ৮ মে ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 
  5. "NASA's Kepler Mission Discovers Two Planets Transiting the Same Star"NASA। ২৬ আগস্ট ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 
  6. "Notes for star Kepler-9"Extrasolar Planets Encyclopaedia। ২০১০। ৩ জানুয়ারি ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 
  7. Alan Boyle (২৬ আগস্ট ২০১০)। "Planets spotted in changing orbits"Cosmic LogMSNBC। ৮ জানুয়ারি ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

  উইকিমিডিয়া কমন্সে কেপলার-৯সি সম্পর্কিত মিডিয়া দেখুন।