কেপলার-৯বি

বহির্গ্রহ

কেপলার-৯বি হচ্ছে নাসার কেপলার মিশন কর্তৃক সৌরজগতের বাইরে আবিষ্কৃত প্রথম গ্রহগুলোর একটি। [২][৩] এটি Lyra Constellation বা বীণা মণ্ডলে কেপলার-৯ নক্ষত্রের চারপাশে আবর্তন করে। কেপলার-৯বি হচ্ছে কেপলার সিস্টেমের তিন গ্রহের মধ্যে সবচেয়ে বড়; এটির ভর শনির খানিক কম। কেপলার-৯বি এবং কেপলার-৯সি দুটো মিলে কক্ষপথের অনুরণন প্রদর্শন করে, যার মাধ্যমে এক গ্রহ সেটার মহাকর্ষীয় টানের মাধ্যমে অপরটাকে পরিবর্তন করে এবং একে অপরের কক্ষপথকে স্থির রাখে। ২০১০ সালের ২৬শে আগস্ট গ্রহটির আবিষ্কার ঘোষণা করা হয়।

কেপলার-৯বি
বহির্গ্রহ বহির্গ্রহসমূহের তালিকা
Kepler-9b, Jupiter size comparison.jpg
কেপলার-৯বি এর তুলনামূলক আকার(বামে), জুপিটারের সাপেক্ষে (ডানে)।
মাতৃ তারা
তারা কেপলার-৯[১]
তারামণ্ডল বীণা মণ্ডল
বিষুবাংশ (&আলফা;)  ১৯ ২মি ১৭.৭৬সে
বিষুবলম্ব (&ডেল্টা;) +৩৮° ২৪′ ৩.২″
আপাত মান (mV) ~১৩
দূরত্ব২১২০ ly
(৬৫০ পিসি)
ভর (m) ১.০৭ M
ব্যাসার্ধ (r) ১.০২ R
তাপমাত্রা (T) ৫৭৭৭ ± ৬১ K
ধাতবতা [Fe/H] +০.১২ ± 0.০৪
বয়স ~১ Gyr
ভৌত বৈশিষ্ট্যসমূহ
ভর(m)০.২৫২ ± ০.০১৩ MJ
ব্যাসার্ধ(r)০.৮৪২ ± ০.০৬৯ আরজে
কক্ষপথের রাশি
অর্ধ-মুখ্য অক্ষ(a) ০.১৪০ ± ০.০০১ AU
উৎকেন্দ্রিকতা (e)
কক্ষীয় পর্যায়কাল(P) ১৯.২৪ d
নতি (i) ৮৮.৫৫°
আবিষ্কারের তথ্য
আবিষ্কারের তারিখ ২৬শে আগস্ট ২০১০
আবিষ্কারক(সমূহ) কেপলার মিশন টিম
আবিষ্কারের পদ্ধতি ট্রানজিট পদ্ধতি, (কেপলার মিশন)
অন্য সনাক্তকরণ পদ্ধতি Radial velocity
Transit timing variations
আবিষ্কারের অবস্থা Announced

নামকরণ এবং ইতিহাসসম্পাদনা

কেপলার-৯বি হচ্ছে কেপলার-৯ নক্ষত্রকে আবর্তন করা প্রথম বহির্গ্রহ। নক্ষত্রটির নামকরণ করা হয়েছিল কেপলার মিশনের অংশ হিসেবে। কেপলার-৯ মিশন নাসার একটি প্রকল্প যার পরিকল্পনা করা হয়েছে পৃথিবীর মত গ্রহ খুঁজে বের করতে।[৪] কেপলার-৯ এর গ্রহগুলো হচ্ছে কেপলারের অভিযানের প্রথম ৪৩ দিনের মধ্যে পাওয়া ৭০০টি গ্রহের অন্তর্ভুক্ত সদস্য। কেপলার সিস্টেম হচ্ছে পাঁচটি সিস্টেমের এক সদস্য যেগুলোর একের বেশি বহির্গ্রহ ট্রানজিট করে। কেপলার-৯বি গ্রহের আবিষ্কারের ঘোষণা করা হয় ২৬শে আগস্ট, ২০১০এ । এটি হচ্ছে প্রথম গ্রহ যেটির নক্ষত্র সিস্টেমের একাধিক গ্রহ ট্রানজিট করে একই নক্ষত্রকে।[৫]

গ্রহটি নিশ্চিত করা হয় কেপলার উপগ্রহের ট্রানজিট পদ্ধতির মাধ্যমে। এ পদ্ধতিতে গ্রহটি সেটার নক্ষত্রের  অবয়বের উপর দিয়ে অতিক্রম করার চিত্র পৃথিবীর সাপেক্ষে ধরে ফেলা হয়। সে নক্ষত্রের ক্ষীণ আলোর পরিমাণ দিয়ে যে সামান্য আলোক পার্থক্য তৈরী হয় তা থেকে গ্রহ এবং কিছু বৈশিষ্ট্য শনাক্ত করা যায়। [৬] যেমনঃ গ্রহের আকার, এর নক্ষত্র থেকে গ্রহের দূরত্ব।

কেপলার-৯বি এর ভরের প্রাথমিক অনুমান করা হয়েছিল হাওয়াই এর মাওনা কিয়াতে অবস্থিত ডব্লিউ এম কেক  অবজারভেটরি কর্তৃক। এটা হিসেব করতে গিয়ে, বিজ্ঞানীরা দেখলেন কেপলার-৯বি কেপলার-৯ সিস্টেমের মধ্যে অন্য দুটি গ্যাসীয় গ্রহের চেয়ে বড়। ভরের দিক দিয়ে আমাদের সৌরজগতের শনিগ্রহের চেয়ে সামান্য ছোট। [৫]

বৈশিষ্ট্যসম্পাদনা

কেপলার-৯বি একটি গ্যাসীয় গ্রহ যার আসন্ন ভর ০.২৫২জুপিটারের ভরের সমান; অর্থাৎ, এটি জুপিটারের ভরের চারভাগের একভাগ। এটির ব্যাসার্ধ ০.৮৪২জুপিটারের ভরের সমান, অর্থাৎ প্রায় ৮০ শতাংশ। গ্রহটি কেপলার-৯কে ১৯.২৪৩ দিনে একবার প্রদক্ষিণ করে। নক্ষত্র থেকে এটির দূরত্ব ১৪ এস্ট্রোনোমিকাল ইউনিট।[৭] তুলনায়, বুধের গড় দূরত্ব ০.৩৮৭ এস্ট্রোনোমিকাল ইউনিট এবং বার্ষিক গতিতে সময় নেয় ৮৭.৯৬৯ দিন। কেপলার-৯বি হচ্ছে এর নক্ষত্রের দ্বিতীয় নিকটতম গ্রহ। [৮]

কেপলার-৯বি এবং কেপলার-৯সি এর মধ্যকার কক্ষপথীয় অনুরণন হচ্ছে বহির্গ্রহে খুঁজে পাওয়া প্রথম ঘটনা। দুটি গ্রহের কক্ষপথের অনুপাত মোটামুটিভাবে ১ঃ২, যারা আবার একে অপরের মহাকর্ষীয় টানের মাধ্যমে কক্ষপথকে নিয়ন্ত্রণ করে।  

কেপলার-৯বি এর কক্ষপথ গড়পড়তায় প্রতি পরিভ্রমণে চার মিনিট বাড়ে। আবার এই প্রক্রিয়াটি বিপরীত হয়ে কমতেও থাকে। সময়ের বড় পরিসরে দেখা যায়, গ্রহদুটির কক্ষপথের আকার মোটামুটি ১ঃ২ অনুপাতে কমে বেড়ে দুলতে থাকে। [৯] কার্নেগি ইন্সটিটিউটের এলিসিয়া ওয়েইনবার্গার মত দেন যে, কেপলার-৯বি গ্যাস দানবটি কেপলার-৯ নক্ষত্র থেকে এখন যে দূরত্বে আছে সম্ভবত আরো অনেক দূরে গঠিত হয়েছিল। কক্ষপথের অনুরণনের ঘটনা হয়তো অভ্যন্তরীণ পরিযায়বৃত্তির ঘটনা ব্যাখ্যায় সহায়ক হবে। [১০]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Guillermo Torres; ও অন্যান্য (২০১০-০৮-২৭)। "Modeling Kepler transit light curves as false positives: Rejection of blend scenarios for KOI-377, and strong evidence for a super-Earth-size planet in a multiple system"। arXiv:1008.4393v2  [astro-ph.EP]। 
  2. "Summary Table of Kepler Discoveries"। NASA। ২০১০-০৮-২৬। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৯-০১ 
  3. Matthew J. Holman; ও অন্যান্য (২০১০-০৮-২৬)। "Kepler-9: A System of Multiple Planets Transiting a Sun-Like Star, Confirmed by Timing Variations"। Science330 (6000): 51–4। ডিওআই:10.1126/science.1195778পিএমআইডি 20798283বিবকোড:2010Sci...330...51H 
  4. "Kepler: About the Mission"NASA। ২০১১। ৮ মে ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 
  5. "NASA's Kepler Mission Discovers Two Planets Transiting the Same Star"NASA। ২৬ আগস্ট ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 
  6. "NASA's Kepler Mission Discovers Two Planets Transiting Same Star"Jet Propulsion LaboratoryNASA। ২৬ আগস্ট ২০১০। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 
  7. "Notes for star Kepler-9"Extrasolar Planets Encyclopaedia। ২০১০। ৩ জানুয়ারি ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 
  8. Kaufmann (২০০৫)। "Solar System Data"HyperPhysicsGeorgia State University। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 
  9. Alan Boyle (২৬ আগস্ট ২০১০)। "Planets Spotted in Changing Orbits"Cosmic LogMSNBC। ৮ জানুয়ারি ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 
  10. William Harwood (২৬ আগস্ট ২০১০)। "NASA spacecraft spots multiplanet system"CNet News। সংগ্রহের তারিখ ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১১ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

  উইকিমিডিয়া কমন্সে কেপলার-৯বি সম্পর্কিত মিডিয়া দেখুন


স্থানাংক:   ১৯মি ১৭.৭৬সে, +৩৮° ২৪′ ৩.২″