কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ

কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ (/ˈkmən/ বা /kˈmæn/) পশ্চিম ক্যারিবিয়ান সাগরের একটি স্বায়ত্তশাসিত ব্রিটিশ বিদেশের অঞ্চল। অঞ্চলটিতে ২৬৪-বর্গকিলোমিটার (১০২-বর্গমাইল) এলাকা জুড়ে গ্র্যান্ড কেইম্যান, কেইম্যান ব্র্যাক এবং লিটল কেইম্যান নামে তিনটি দ্বীপ রয়েছে, যা কিউবার দক্ষিণে এবং হন্ডুরাসের উত্তর-পূর্বে, জামাইকা এবং মেক্সিকোয়ের ইউক্যাটিন উপদ্বীপের মধ্যে অবস্থিত। ২০১৮ এর বসন্ত পর্যন্ত কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জের জনসংখ্যা ৬৪,৪২০ অনুমান করা হয়েছিল যার ফলে এটি বারমুডার পরে দ্বিতীয় সর্বাধিক জনবহুল ব্রিটিশ বিদেশের অঞ্চলে পরিণত হয়।[৩] রাজধানী শহরটি হচ্ছে জর্জ টাউন, গ্র্যান্ড কেইম্যানে অবস্থিত এবং তিনটি দ্বীপের মধ্যে সবচেয়ে জনবহুল অঞ্চল।

কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ

কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জৱ জাতীয় পতাকা
পতাকা
কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জৱ জাতীয় মর্যাদাবাহী নকশা
জাতীয় মর্যাদাবাহী নকশা
নীতিবাক্য: "He hath founded it upon the seas"[১]
সঙ্গীত: "গড সেইভ দ্য কুইন" (অফিসিয়াল)

জাতীয় সঙ্গীত: "Beloved Isle Cayman"
 কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ-এর অবস্থান (লাল বৃত্তে চিহ্নিত)
 কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ-এর অবস্থান (লাল বৃত্তে চিহ্নিত)
কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জৱ অবস্থান
অবস্থাব্রিটিশ বিদেশের অঞ্চল
রাজধানী
ও বৃহত্তম নগরী বা বসতি
জর্জ টাউন
১৯°২০′ উত্তর ৮১°২৪′ পশ্চিম / ১৯.৩৩৩° উত্তর ৮১.৪০০° পশ্চিম / 19.333; -81.400
সরকারি ভাষাইংরেজি
স্থানীয় উপভাষা
কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জের ইংরেজি
জাতিগোষ্ঠী
(২০১১)
জাতীয়তাসূচক বিশেষণকেইম্যানিয়ান
সরকারসংসদীয় রাজতন্ত্রের অধীনে সংসদীয় ব্যবস্থা
এলিজাবেথ ২
মার্টিন রোপার
আলদেন ম্যাকলফলীন
তারিখ আহমদ
আইন-সভাবিধানসভা
প্রতিষ্ঠিত 
• প্রতিষ্ঠিত
১৯৬২
৬ নভেম্বর ২০০৯
আয়তন
• মোট
২৬৪ কিমি (১০২ মা)
• পানি/জল (%)
১.৬
জনসংখ্যা
• আদমশুমারি
৬৪,৪২০[৩]
• ঘনত্ব
[রূপান্তর: অকার্যকর সংখ্যা] (৫৯তম)
জিডিপি (পিপিপি)২০১৪[৫] আনুমানিক
• মোট
$২.৫০৭ বিলিয়ন[৫] (১৯২তম)
• মাথাপিছু
$৭৩,৮০০ (২০০৪ আনু:)[৫] (১১তম)
জিডিপি (মনোনীত)২০১৪[৬] আনুমানিক
• মোট
$৩.৪৮০ বিলিয়ন[৬][৭] (১৬০তম)
• মাথাপিছু
$৫৮,৮০৮[৬][৭] (৯ম)
এইচডিআই (২০১৩)০.৮৮৮
অতি উচ্চ
মুদ্রাকেইম্যান দ্বীপপুঞ্জীয় ডলার (KYD)
সময় অঞ্চলইউটিসি–৫ (ইএসটি)
সারা বছর পূর্বাঞ্চলী মান সময় (ইএসটি) এ দিবালোক সংরক্ষণ সময় (ডিএসটি) প্রতিপালিত হয়না।
গাড়ী চালনার দিকবাম
কলিং কোড+১-৩৪৫
আইএসও ৩১৬৬ কোডKY
ইন্টারনেট টিএলডি.ky
ওয়েবসাইট
www.gov.ky
  1. ^ বিদেশী এবং কমনওয়েলথ অফিস রাজ্যের মন্ত্রী যার উপর ব্রিটিশ বৈদেশিক অঞ্চলগুলোর দায়িত্ব ন্যস্ত থাকে।

কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জকে ভৌগোলিক অবস্থান অনুযায়ী পশ্চিম ক্যারিবিয়ান অঞ্চলের পাশাপাশি গ্রেটার অ্যান্টিলিসের অঙ্গ হিসাবে বিবেচনা করা হয়। অঞ্চলটি প্রায়শই আন্তর্জাতিক সামুদ্রিক ব্যবসায়ী এবং অনেক ধনী ব্যক্তিদের জন্য বিশ্ব একটি বড় বৈদেশিক অর্থের আশ্রয়স্থল হিসাবে বিবেচনা করা হয়।[৮]

ইতিহাসসম্পাদনা

দ্বীপগুলিতে কোন দেশীয় প্রত্নতাত্ত্বিক উপস্থিতির প্রমাণ পাওয়া যায় নি[৯] এবং তাই এটি ভেবে নেয়া হয় যে, ১৫০৩ সালের ১০ মে ক্রিস্টোফার কলম্বাস যখন আমেরিকায় শেষ সফর করেছিলেন তখনই এই দ্বীপপুঞ্জগুলো আবিস্কৃত হয়েছিল।[১০][১১] দ্বীপগুলোতে অতিমাত্রা কচ্ছপ থাকার কারণে তিনি এর নাম দিয়েছিলেন লাস টর্টোগাস (যদিও পরে তা শিকার করে বিলুপ্ত করা হয়)।[১০][১২] তবে পরবর্তী দশকগুলোতে দ্বীপগুলোতে কেইম্যানদের উপস্থিতির কারণে এটি কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ হিসাবে পরিচিতি পায়।[১০][১১] কলম্বাসের আবিস্কারের পরে তাৎক্ষিণক উপনিবেশ গড়ে উঠেনি, তবে বিভিন্ন ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে আগত বিভিন্ন ধরনের জলদস্যুরা, জাহাজ ভাঙ্গা নাবিক এবং জ্যামাইকার অলিভার ক্রমওয়েলের সেনাবাহিনীর অভিযাত্রী সহ অনেকেই দ্বীপগুলিতে তাদের বাড়ি তৈরি করেছিলেন।[১৩] স্যার ফ্রান্সিস ড্রেক উক্ত দ্বীপপুঞ্জ সংক্ষিপ্ত সংক্ষিপ্ত পরিদর্শনে এসেছিলেন ১৫৮৬ সালে।[১৪]

 
কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জের জাতীয় জাদুঘর, জর্জ টাউন, গ্র্যান্ড কেইম্যান

কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জের প্রথম রেকর্ডকৃত স্থায়ী বাসিন্দা হলেন আইজাক বোডেন, যিনি ১৬৬১ সালের দিকে গ্র্যান্ড কেইম্যানে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তিনি বোডেন নামে আদি বসতিকারের নাতি ছিলেন যিনি সম্ভবত ১৬৬৫ সালে জামাইকা গ্রহণের সময় অলিভার ক্রমওয়েলের সৈনিক ছিলেন।[১৫]

১৬৭০ সালের মাদ্রিদের সন্ধির ফলে ইংল্যান্ড জামাইকা সহ কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জের আনুষ্ঠানিক নিয়ন্ত্রণ নিয়েছিল।[১১] একই বছর ম্যানুয়েল রিবেইরো পারদালের অধীনে স্প্যানিশদের দ্বারা কেইম্যানের একটি ছোট্ট কচ্ছপ চাষের এলাকায় বন্দুক হামলা হয়েছিল।[১৪] পরবর্তীতে অনেক ব্যর্থ প্রচেষ্টা চালানো হয়, যা বর্তমানে জলদস্যুদের আশ্রয়স্থলে পরিণত হয়েছে,[১২] এবং ১৭৩০ সালের দিকে একটি স্থায়ী ইংরেজ জনবসতিপূর্ণ একটি দ্বীপে পরিণত হয়।[১২] বন্দোবস্তের সাথে সাথে, ১৭৩৪ সালে জামাইকার গভর্নরের প্রথম রাজকীয় জমি অনুদানের পরে, দাসদের প্রয়োজনীয়তা উপস্থিত হয়েছিল।[১৬] এদের অনেককে আফ্রিকা থেকে এ দ্বীপে নিয়ে আসা হয়েছিল; তাই এটি আজ স্পষ্টতই দেখা যায় যে বেশিরভাগ দেশীয় কেইম্যানিয়ানরা আফ্রিকান এবং/অথবা ইংরেজি বংশোদ্ভূত।[১১] ১৮০২ সালে দ্বীপপুঞ্জগুলিতে নেওয়া প্রথম আদমশুমারির ফলাফলে দেখা যায় গ্র্যান্ড কেইম্যানের জনসংখ্যা ৯৩৩ জন, যার ৫৪৫ জন বাসিন্দাকেই দাস করে আনা হয়েছিল।[১২] কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জে দাসত্ব প্রথা বিলুপ্ত করা হয় ১৮৩৩ সালে। বিলুপ্তির সময় দেখা যায়, ১১৬টি ইংরেজ বংশোদ্ভুত সাদা পরিবার ৯৫০ জনেরও বেশি কালো আফ্রিকান বংশোদ্ভুতকে দাস করে রেখেছিল।[১০][১৭]

এই দ্বীপপুঞ্জটি ১৯৬২ সাল পর্যন্ত জামাইকার উপনিবেশের অংশ হিসাবে পরিচালিত হতে থাকে, যখন তারা পৃথক রাজকীয় উপনিবেশে পরিণত হয় তখন জামাইকা একটি স্বাধীন কমনওয়েলথ রাজ্যে পরিণত হয়েছিল।[১১][১৮]

 
জর্জ টাউনের কেন্দ্র বিন্দুতে হিরো স্কয়ার, যা কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জের যুদ্ধ নিহতদের স্মৃতি বহন করে। বিধানসভা ভবনটি এর বাম দিকে অবস্থিত।

৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৪ এ, কেইম্যানিয়ানরা দশটি বণিক জাহাজের ক্রুদের উদ্ধার করেছিল, এইচএমএস কনভার্ট সহ, একটি ঘটনা যা তখন থেকে রেক অফ দ্য টেন সেল নামে পরিচিতি লাভ করে।[১০][১২] জাহাজগুলো সমুদ্রের শুষ্কতার মৌসুমে সমুদ্রের প্রাচীরে আটকে যেত।[১৯] জনশ্রুতি আছে যে রাজা তৃতীয় জর্জ দ্বীপটিকে তাদের উদারতার জন্য ক্ষতিপূরণ হিসাবে ট্যাক্স চালু না করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে পুরস্কৃত করেছিলেন, কারণ একটি জাহাজ রাজার নিজস্ব পরিবারের সদস্যকে বহন করেছিল। যদিও এটি একজন জনপ্রিয় কিংবদন্তিকে নিয়ে, কিন্তু গল্পটি সত্য নয়।[১২][২০]

১৯৫০ এর দশকে বিমানবন্দর, একটি ব্যাংক এবং বেশ কয়েকটি হোটেল এবং অনেকগুলি নির্ধারিত ফ্লাইট এবং ক্রুজ স্টপ-ওভার খোলার মধ্য দিয়ে দেশটিতে পর্যটন শুরু হয়েছিল।[১২][১৪] রাজনৈতিকভাবে কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জ ছিল ১৯৫৮ থেকে ১৯৬২ সাল পর্যন্ত জামাইকার অভ্যন্তরীণ স্ব-শাসিত অঞ্চল, তবে তারা ১৯৬২ সালে জামাইকার স্বাধীনতার পরে সরাসরি ব্রিটিশ শাসনে ফিরে যায়।[১১] ১৯৭২ সালে একটি নতুন সংবিধান তৈরীর মাধ্যমে অভ্যন্তরীণ স্বায়ত্তশাসনের ক্ষেত্রে একটি বৃহৎ পরিবর্তন নিয়ে আসা হয়েছিল এবং পরবর্তী সংশোধনীগুলি আনা হয়েছিল ১৯৯৪ সালে[১১] কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জের সরকার এই অঞ্চলটির অর্থনীতি পর্যটন ও উপকূলীয় অর্থের মাধ্যমে উন্নীত করার দিকে মনোনিবেশ করেছিল, কিন্তু ১৯৭০ দশকের পর থেকে উভয়ই ক্ষেত্রই বেশ টানাপোড়েনে পড়ে যায়।[১১][১২] কেইম্যানরা ঐতিহাসিকভাবে একটি কর-বিহীন দেশের বাসিন্দা, এবং সরকার কখনোই প্রত্যক্ষ এবং প্রত্যক্ষ করের উপর নির্ভর করে না। অঞ্চলটি কখনই আয়কর, মূলধন উপার্জন ট্যাক্স, বা কোনও সম্পদ কর আদায় করে নি, যা তাদেরকে জনপ্রিয় কর স্বর্গে পরিণত করেছে।[২১]

মানবাধিকার আইন সম্পর্কিত বিভিন্ন দিককে কোড করে ২০০১ ও ২০০৯ সালে দেশের সংবিধানটিকে আরও সংশোধন করা হয়েছিল।[১১]

গ্র্যান্ড কেইম্যান দ্বীপটির অধিকাংশ এলাকাতে অরক্ষিত সমুদ্র সীমা বিরাজমান। ২০০৪ সালের ১১ সেপ্টেম্বর দ্বীপটিতে হারিকেন ইভান আঘাত হানে এবং প্রায় 8-ft (2.4 m) ঝড়ো বৃষ্টির কারণে অধিকাংশ এলাকা প্লাবিত হয়ে যায়।[১১] আনুমানিক দ্বীপের ৮৩% আবাসগুলি ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে যায়, যার মধ্যে ৪% সম্পূর্ণ পুনর্নির্মাণের প্রয়োজন দেখা দেয়। এক প্রতিবেদনে দেখা গেছে যে সমস্ত আবাসনের ৭০% বন্যা বা বাতাসের ফলে গুরুতর ক্ষতি করেছে। আংশিক ছাদ অপসারণ, নিম্নস্তরের বন্যা বা হারিকেনের ধ্বংসাবশেষের ভাসমান বা বায়ুচালিত প্রভাবের সাথে আরও ২৬% স্থায়ী ছোটোখাটো ক্ষয়ক্ষতি সম্মুখীন হয়েছে।[২২] কিছু কিছু অঞ্চলগুলিতে কয়েক মাস ধরে বিদ্যুৎ, জল এবং যোগাযোগ ব্যবস্থা বিঘ্নিত হয়েছিল কারণ বিগত ৮৬ বছরের ইতিহাসে ইভান ছিল এই দ্বীপপুঞ্জগুলিতে সবচেয়ে মারাত্মক হারিকেন।[২৩] গ্র্যান্ড কেইম্যান দ্বীপটি একটি বড় ধরনের পুননির্মাণ প্রক্রিয়া শুরু করে এবং দুই বছরের মধ্যেই এর অবকাঠামোকে প্রায় হারিকেন-পূর্ব অবস্থায় ফিরিয়ে নিয়ে আসে। দ্বীপপুঞ্জের ক্রান্তীয় অবস্থানের কারণে, আটলান্টিক অববাহিকার অন্যান্য অঞ্চলের তুলনায় কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জকে বেশি হারিকেন বা ক্রান্তীয় দূর্যোগের শিকার হয় প্রভাব ফেলেছে; এটি গড়ে প্রতি ২.২৩ বছরে একবার প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে আঘাত করে থাকে।[২৪]

ভৌগোলিক অবস্থানসম্পাদনা

 
কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জের মানচিত্র, তিনটি দ্বীপকে প্রায় ১২০ কিলোমিটার (৭৫ মাইল) দুরে দেখাচ্ছে।

দ্বীপপুঞ্জগুলি পশ্চিম ক্যারিবিয়ান সাগরে এবং কেইমান রিজ (অথবা কেইম্যান রাইস) নামে পরিচিত একটি পাতাল পর্বত রেঞ্জের চূড়ায় অবস্থিত। এই পর্বতটির পার্শ্বে রয়েছে কেইম্যান নালা, যার গভীরতা ৬,০০০ মিটার (২০,০০০ ফুট)[২৫] এবং দক্ষিণের দিকেয় প্রায় ৬ কিলোমিটার (৩.৭ মাইল) পর্যন্ত বিস্তৃত।[২৬] এই দ্বীপপুঞ্জটি ক্যারিবিয়ান সাগরের উত্তর-পশ্চিমে, মেক্সিকো'র কুইন্টানা রো এবং যুকাটান রাজ্যের পূর্বে, কোস্টারিকার উত্তরপূর্বে, পানামার উত্তরে, কিউবার দক্ষিণে এবং জ্যামাইকার পশ্চিমে অবস্থিত। তাদের অবস্থান মিয়ামি, ফ্লোরিডা থেকে ৭০০ কিলোমিটার (৪৩০ মাইল) দক্ষিণে,[২৭] মেক্সিকো থেকে ৭৫০ কিলোমিটার (৪৭০ মাইল) দক্ষিণে,[২৮] কিউবা থেকে ৩৬৬ কিলোমিটার (২২৭ মাইল) দক্ষিণে,[২৯] এবং জ্যামাইকা থেকে প্রায় ৫০০ কিলোমিটার (৩১০ মাইল) উত্তরপশ্চিমে। [৩০] আয়তনের দিক দিয়ে গ্র্যান্ড কেইম্যান হচ্ছে সর্ববৃহত, যার আয়তন প্রায় ১৯৭ বর্গকিলোমিটার (৭৬ বর্গমাইল).[৩১] গ্র্যান্ড কেইম্যানের দুটি ভগ্নি দ্বীপ, কেইম্যান ব্রাক এবং লিটল কেইম্যান এর অবস্থান গ্র্যান্ড কেইমান থেকে ১২০ কিমি (৭৫ মা) পূর্ব উত্তর-পূর্বে এবং আয়তন পর্যায়ক্রমে ৩৮ এবং ২৮.৫ বর্গকিলোমিটার (১৪.৭ এবং ১১.০ বর্গমাইল)[৩২] গ্র্যান্ড কেইম্যান থেকে নিকটবর্তী স্থলভূমি হচ্ছে (প্রায় ১৫০ মাইল দূরে) ক্যানারোয়েস আর্কিপেলাগো, অপরদিকে পূর্বপার্শ্বে দ্বীপ কেইম্যান ব্রাক এর নিকটবর্তী স্থলভাগ হচ্ছে জার্দিনেস ডি লা রেইনা (প্রায় ১০০ মাইল দূরে)- উভয়ই কিউবা এর অংশ।

 
জর্জ টাউন ওয়াটারফ্রন্ট

দ্বীপ তিনটির গঠনের মূল উপাদান হচ্ছে প্রবাল প্রধান এবং সম্প্রসারিত তুষারযুক্ত। অধিকাংশ এলাকাই সমতল। কেবল একটি উল্লেখযোগ্য ব্যতিক্রম হচ্ছে কেইম্যান ব্রাক'স এর পূর্বাংশের ব্লাফ এলাকা এবং এটি সমুদ্র স্তর থেকে প্রায় ৪৩ মিটার (১৪১ ফুট) উপরের দিকে উত্তীত, দ্বীপপুঞ্জের সর্বোচ্চ ভূমি।[৩৩]

এর ভূখণ্ড মূলত প্রবাল প্রাচীর দ্বারা বেষ্টিত একটি নিম্ন-স্তরের চুনাপাথর নির্ভর।

প্রাণিকূলসম্পাদনা

The mammalian species in the Cayman Islands include the introduced Central American agouti[৩৪] and eight species of bats. At least three now extinct native rodent species were present up until the discovery of the islands by Europeans. Marine life around the island of the Grand Cayman includes tarpon, silversides (Atheriniformes), French angelfish (Pomacanthus paru), and giant barrel sponges. A number of cetaceans are found in offshore waters. These species include the goose-beaked whale (Ziphius cavirostris), Blainville's beaked whale (Mesoplodon densirostris) and sperm whale (Physeter macrocephalus).

Cayman avian fauna includes two endemic subspecies of Amazona parrots: Amazona leucocephala hesterna or Cuban amazon, presently restricted to the island of Cayman Brac, but formerly also on Little Cayman, and Amazona leucocephala caymanensis or Grand Cayman parrot, which is native to the Cayman Islands, forested areas of Cuba, and the Isla de la Juventud. Little Cayman and Cayman Brac are also home to red-footed and brown boobies.[৩৫][৩৬] Although the barn owl (Tyto alba) occurs in all three of the islands but they are not commonplace. The Cayman Islands also possess five endemic subspecies of butterflies on the islands.[৩৭] These butterfly breeds can be viewed at the Queen Elizabeth II Botanic Park on the Grand Cayman.

Among other notable fauna at the Queen Elizabeth II Botanic Park is the critically threatened blue iguana which is also known as the Grand Cayman iguana (Cyclura lewisi). The blue iguana is endemic to the Grand Cayman[৩৮] particularly because of rocky, sunlit, open areas near the island's shores that are advantageous for the laying of eggs. Nevertheless, habitat destruction and invasive mammalian predators remain primary reasons that blue iguana hatchlings do not survive naturally.[৩৯]

The Cuban crocodile (Crocodylus rhombifer) once inhabited the islands;[৪০] and the American crocodile (C. acutus) is thought to be repopulating Grand Cayman. The name "Cayman" is derived from a Carib word for various crocodilians.[৪১]

আবহাওয়াসম্পাদনা

 
Signs at Rum Point commemorating landed and near-miss hurricanes

কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জে সর্বদা গ্রীষ্মমন্ডলীয় ভেজা এবং শুষ্ক জলবায়ু বিরাজ করে, মে থেকে অক্টোবর পর্যন্ত একটি আর্দ্র মৌসুম এবং নভেম্বর থেকে এপ্রিল পর্যন্ত শুষ্ক মৌসুম থাকে। মৌসুমভেদে সেখানে তাপমাত্রার সামান্যতম পরিবর্তন লক্ষ্য করা যায়।[৪২]

এ অঞ্চলের প্রধান প্রাকৃতিক দুর্যোগটি হচ্ছে জুন থেকে নভেম্বরে আটলান্টিক হারিকেন মৌসুমের উষ্ণমন্ডলীয় সাইক্লোন

২০০৪ সালের ১১ ও ১২ সেপ্টেম্বর হারিকেন ইভান, কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জে আঘাত আনে। হারিকেন ঝড়ের ফলাফল ছিল দুই জনের মৃত্যু এবং দেশটির গোটা অবকাঠামোকে তছনক করে যায়। উক্ত হারিকেনের ফলে দেশটিতে অর্থনৈতিক প্রভাব তৈরী হয় প্রায় $৩.৪ বিলিয়ন। [৪৩]

জর্জ টাউন (রবার্ট আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর অনুসারে) ১৯৮১-২০১০, অতিমাত্রায় ১৯৭১-২০১৩-এর আবহাওয়া সংক্রান্ত তথ্য
মাস জানু ফেব্রু মার্চ এপ্রিল মে জুন জুলাই আগস্ট সেপ্টে অক্টো নভে ডিসে বছর
আর্দ্রতা সূচকে সর্বোচ্চ রেকর্ড ৩৯.২ ৪২.৬ ৪৩.৩ ৪৩.৫ ৪৫.৪ ৪৩.৮ ৪৫.৫ ৪৪.৮ ৪৪.৮ ৪৪.১ ৪৩.১ ৪৩.১ ৪৫.৫
সর্বোচ্চ রেকর্ড °সে (°ফা) ৩২.২
(৯০.০)
৩১.৭
(৮৯.০)
৩২.২
(৯০.০)
৩২.৮
(৯১.০)
৩৩.৯
(৯৩.০)
৩৪.৪
(৯৪.০)
৩৪.৪
(৯৪.০)
৩৫.০
(৯৫.০)
৩৪.৪
(৯৪.০)
৩৩.৬
(৯২.৪)
৩২.৮
(৯১.০)
৩২.২
(৯০.০)
৩৫.০
(৯৫.০)
সর্বোচ্চ গড় °সে (°ফা) ২৮.২
(৮২.৮)
২৮.৬
(৮৩.৪)
২৯.১
(৮৪.৩)
২৯.৯
(৮৫.৯)
৩০.৭
(৮৭.৩)
৩১.৬
(৮৮.৯)
৩২.২
(৮৯.৯)
৩২.২
(৮৯.৯)
৩১.৭
(৮৯.০)
৩১.০
(৮৭.৮)
২৯.৬
(৮৫.২)
২৮.৬
(৮৩.৫)
৩০.৩
(৮৬.৫)
দৈনিক গড় °সে (°ফা) ২৫.৮
(৭৮.৪)
২৬.১
(৭৯.০)
২৬.৬
(৭৯.৯)
২৭.৬
(৮১.৭)
২৮.৫
(৮৩.৩)
২৯.২
(৮৪.৬)
২৯.৬
(৮৫.৩)
২৯.৭
(৮৫.৫)
২৯.৩
(৮৪.৭)
২৮.৫
(৮৩.৩)
২৭.৫
(৮১.৫)
২৬.২
(৭৯.২)
২৭.৯
(৮২.২)
সর্বনিম্ন গড় °সে (°ফা) ২২.৩
(৭২.২)
২২.৪
(৭২.৩)
২২.৭
(৭২.৯)
২৩.৭
(৭৪.৬)
২৪.৭
(৭৬.৪)
২৫.৫
(৭৭.৯)
২৫.৭
(৭৮.২)
২৫.৬
(৭৮.০)
২৫.৩
(৭৭.৬)
২৪.৭
(৭৬.৫)
২৪.১
(৭৫.৪)
২৩.২
(৭৩.৮)
২৪.২
(৭৫.৫)
সর্বনিম্ন রেকর্ড °সে (°ফা) ১৫.০
(৫৯.০)
১৫.০
(৫৯.০)
১৬.১
(৬১.০)
১৬.৭
(৬২.০)
১৭.২
(৬৩.০)
২১.৭
(৭১.০)
২০.৬
(৬৯.০)
২০.০
(৬৮.০)
২১.১
(৭০.০)
২১.১
(৭০.০)
১৮.০
(৬৪.৪)
১৪.১
(৫৭.৩)
১৪.১
(৫৭.৩)
বৃষ্টিপাতের গড় মিমি (ইঞ্চি) ৫২
(২.০৪)
৩৮
(১.৫০)
৩৪
(১.৩২)
৩২
(১.২৭)
১৫১
(৫.৯৬)
১৫৭
(৬.২০)
১৪৭
(৫.৭৮)
১৫০
(৫.৯০)
২২২
(৮.৭৪)
২২০
(৮.৬৫)
১৫৪
(৬.০৫)
৭১
(২.৭৯)
১,৪২৭
(৫৬.২০)
অধঃক্ষেপণ দিনগুলির গড় ১০ ১১ ৬৮
আপেক্ষিক আদ্রতার গড় (%) ৭৬ ৭৬ ৭৫ ৭৫ ৭৭ ৭৮ ৭৭ ৭৮ ৭৯ ৭৯ ৭৮ ৭৮ ৭৭
উৎস ১: National Weather Service (Cayman Islands)[৪৪]
উৎস ২: Weather In Cayman [৪৫] Weather Spark [৪৬]
জর্জ টাউনের আবহাওয়া তথ্য
মাস জানু ফেব্রু মার্চ এপ্রিল মে জুন জুল আগস্ট সেপ্টে অক্টো নভে ডিসে বছর
গড় সামুদ্রিক তাপমাত্রা °সে (°ফা) ২৬.৬
(৭৯.৯)
২৬.৬
(৭৯.৯)
২৬.৮
(৮০.২)
২৭.৭
(৮১.৯)
২৮.৩
(৮২.৯)
২৮.৭
(৮৩.৭)
২৯.২
(৮৪.৬)
৩০.০
(৮৬.০)
২৯.৯
(৮৫.৮)
২৯.৩
(৮৪.৭)
২৮.৬
(৮৩.৫)
২৮.০
(৮২.৪)
২৭.৯
(৮২.২)
দৈনিক আলোক ঘণ্টা বুঝাতে ১১.০ ১২.০ ১২.০ ১৩.০ ১৩.০ ১৩.০ ১৩.০ ১৩.০ ১২.০ ১২.০ ১১.০ ১১.০ ১২.২
গড় আল্ট্রাভায়োলেট সূচী ১০ ১২ ১২ ১২ ১২ ১২ ১২ ১১ ১০ ১০.৫
সূত্র #১: seatemperature.org[৪৭]
সূত্র #২: Weather Atlas[৪৮]

উল্লেখযোগ্য ব্যক্তিত্বসম্পাদনা

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Psalms 24:2
  2. "Background Note: Cayman Islands"। State.gov। ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জুলাই ২০১১ 
  3. "The Economics and Statistics Office"। Government of the Cayman Islands। সংগ্রহের তারিখ ৩ এপ্রিল ২০১৯ 
  4. "Commonwealth Secretariat – Cayman Islands"। Thecommonwealth.org। ১৯ জুলাই ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জুলাই ২০১১ 
  5. Cayman Islands ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ তারিখে. CIA World Factbook.
  6. Cayman Islands. Data.un.org. Retrieved on 26 April 2017.
  7. United Nations Statistics Division ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ৫ মে ২০১৭ তারিখে. Unstats.un.org. Retrieved on 26 April 2017.
  8. Rogoff, Natasha Lance (১৯ ফেব্রুয়ারি ২০০৪)। "Tax me if you can. Haven or Havoc?"। pbs.org। 
  9. Stokes, Anne V.; Keegan, William F. (এপ্রিল ১৯৯৩)। "A SETTLEMENT SURVEY FOR PREHISTORIC ARCHAEOLOGICAL SITES ON GRAND CAYMAN"। Florida Museum of Natural History, Gainesville। সংগ্রহের তারিখ ৫ জানুয়ারি ২০১৩ 
  10. "History of Cayman Islands"। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুলাই ২০১৯ 
  11. "Encyclopedia Britannica – Cayman Islands"। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুলাই ২০১৯ 
  12. "History of the Cayman Islands"। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুলাই ২০১৯ 
  13. Bauman, Robert (2007) The Complete Guide to Offshore Residency. p. 115. আইএসবিএন ০-৯৭৮৯২১০-৯-৭.
  14. "Key to Cayman - HISTORY – ISLANDS THAT TIME FORGOT"। সংগ্রহের তারিখ ৭ জুলাই ২০১৯ 
  15. Keith Thompson, Life in The Caribbean (2010, আইএসবিএন ৯৯৮৭-১৬-০১৫-৮), p. 152
  16. "Cayman Islands History"। Gocayman.ky। ১২ অক্টোবর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। 
  17. The Cayman Islands Annual Report 1988 (Cayman Islands, 1988), p. 127
  18. Newman, Graeme R. (2010) Crime and Punishment Around the World: Africa and the Middle East. p. 82. আইএসবিএন ০-৩১৩-৩৫১৩৩-৩.
  19. Wood, Lawson (2007) The Cayman Islands. p. 12. আইএসবিএন ১-৮৪৫৩৭-৮৯৭-০.
  20. Alfredo Zayas y Alfonso, (১৯১৪)। Lexografía Antillana। El Siglo XX Press, Havana। 
  21. Biswas, Rajiv (2002) International Tax Competition: A Developing Country Perspective. Commonwealth Secretariat. p. 38. আইএসবিএন ০-৮৫০৯২-৬৮৮-২.
  22. "Hurricane Ivan Remembered"। Hazard Management Cayman Islands। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুলাই ২০১২ 
  23. Thompson, Keith (2010) Caribbean Islands: The Land and the People. p. 152. আইএসবিএন ৯৯৮৭-১৬-০১৮-২.
  24. "Grand Cayman's history with tropical systems"। hurricanecity.com। সংগ্রহের তারিখ ৩১ জুলাই ২০১১ 
  25. "Publications"। ২৩ ডিসেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ ডিসেম্বর ২০১৫ 
  26. Bush, Phillippe G. Grand Cayman, British West Indies. UNESCO Coastal region and small island papers 3.
  27. "Coordinates + total distance"web page। mapcrow। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১১ 
  28. "Quintana Roo to Cayman Islands"web page। distancesto। সংগ্রহের তারিখ ১৮ জানুয়ারি ২০১৫ 
  29. "Distance from Cayman Islands to Cuba"web page। distancefromto.net/। ২০১১। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১১ 
  30. "Coordinates and total distance"web page। Mapcrow। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১১ 
  31. Bush. Unesco.org. Retrieved on 12 April 2014.
  32. Glenn Gerber। "Lesser Caymans iguana Cyclura nubila caymanensis"web page। The World Conservation Union। ৮ অক্টোবর ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১১ 
  33. "World Atlas Highest and Lowest points"web page। Graphic Maps। সংগ্রহের তারিখ ২৩ অক্টোবর ২০১১ 
  34. টেমপ্লেট:MSW3 Hystricognathi
  35. Red-footed Boobies of Little Cayman – National Trust for the Cayman Islands. Nationaltrust.org.ky. Retrieved on 12 April 2014.
  36. Cayman Brac | Caribbean Diving, Cayman Islands Vacation | Cayman Islands. Caymanislands.ky. Retrieved on 12 April 2014.
  37. Askew, R. R. and Stafford, P. A. van B. (2008) Butterflies of the Cayman Islands. Apollo Books, Stenstrup. আইএসবিএন ৯৭৮-৮৭-৮৮৭৫৭-৮৫-৯.
  38. Grand Cayman Blue Iguana takes step back from extinction ওয়েব্যাক মেশিনে আর্কাইভকৃত ১১ নভেম্বর ২০১২ তারিখে. IUCN (20 October 2012). Retrieved on 12 April 2014.
  39. Cyclura lewisi, IUCN Red List। "Red List of Threatened Species"The IUCN Red List of Threatened Species। International Union for Conservation of Nature and Natural Resources (IUCN)। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জুন ২০১৮ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  40. Morgan, Gary; Franz, Richard; Ronald Crombie (১৯৯৩)। "The Cuban Crocodile, Crocodylus rhombifer, from Late Quaternary Fossil Deposits on Grand Cayman" (PDF)Caribbean Journal of Science29 (3–4): 153–164। 
  41. "The Cayman Islands – History"www.gov.ky। সংগ্রহের তারিখ ১৭ আগস্ট ২০১৮A 1523 map show[s] all three Islands with the name Lagartos, meaning alligators or large lizards, but by 1530 the name Caymanas was being used. It is derived from the Carib Indian word for the marine crocodile, which is now known to have lived in the Islands. 
  42. "When to Go in Cayman Islands | Frommer's"www.frommers.com। সংগ্রহের তারিখ ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  43. Boxall, Simon (৯ সেপ্টেম্বর ২০০৮)। "Hurricane Ivan Remembered – Cayman Prepared"gov.ky। সংগ্রহের তারিখ ২২ এপ্রিল ২০১২ 
  44. "Cayman Data Table"। Meteorological Service (Cayman)। ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ 
  45. "Weather In Cayman"। Weather In Cayman। সংগ্রহের তারিখ ২২ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  46. "Weather Spark"। Weather Spark। সংগ্রহের তারিখ ৪ এপ্রিল ২০১৯ 
  47. "George Town Sea Temperature"। seatemperature.org। সংগ্রহের তারিখ ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ 
  48. "George Town, Cayman Islands – Climate data"। Weather Atlas। সংগ্রহের তারিখ ২৪ জানুয়ারি ২০১৯ 

আরও পড়ুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা