কায়সার হামিদ

বাংলাদেশী ফুটবলার

মোহাম্মদ কায়সার হামিদ (জন্ম: ১ ডিসেম্বর ১৯৬৮; কায়সার হামিদ নামে সুপরিচিত) হলেন একজন বাংলাদেশী সাবেক পেশাদার ফুটবল খেলোয়াড়। হামিদ তার খেলোয়াড়ি জীবনের পুরো সময় ঢাকা মোহামেডান এবং বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে একজন রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছেন। তিনি মূলত একজন কেন্দ্রীয় রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছেন।

কায়সার হামিদ
Kaiser Hamid.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নাম মোহাম্মদ কায়সার হামিদ
জন্ম (1968-12-01) ১ ডিসেম্বর ১৯৬৮ (বয়স ৫৩)
জন্ম স্থান বাংলাদেশ
মাঠে অবস্থান রক্ষণভাগের খেলোয়াড়
জ্যেষ্ঠ পর্যায়*
বছর দল ম্যাচ (গোল)
ঢাকা মোহামেডান
জাতীয় দল
১৯৮৫–১৯৯৩ বাংলাদেশ ১৯ (১)
* শুধুমাত্র ঘরোয়া লীগে ক্লাবের হয়ে ম্যাচ ও গোলসংখ্যা গণনা করা হয়েছে

বাংলাদেশী ক্লাব ঢাকা মোহামেডানের হয়ে খেলার মাধ্যমে তিনি তার জ্যেষ্ঠ পর্যায়ের খেলোয়াড়ি জীবন শুরু করেছিলেন এবং ঢাকা মোহামেডানের হয়ে তার পুরো খেলোয়াড়ি জীবন অতিবাহিত করার পর তিনি অবসর গ্রহণ করেছিলেন।

১৯৮৫ সালে, হামিদ বাংলাদেশের হয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অভিষেক করেছিলেন; বাংলাদেশের জার্সি গায়ে তিনি সর্বমোট ১৯ ম্যাচে ১টি গোল করেছিলেন। ব্যক্তিগতভাবে, হামিদ বেশ কিছু পুরস্কার জয়লাভ করেছেন, যার মধ্যে ২০০৩ সালে জাতীয় ক্রীড়া পুরস্কার জয় অন্যতম।[১]

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

মোহাম্মদ কায়সার হামিদ ১৯৬৮ সালের ১লা ডিসেম্বর তারিখে বাংলাদেশের সিলেটে জন্মগ্রহণ করেছেন। তার বাবার নাম এম এ হামিদ, যিনি একজন সেনা কর্মকর্তা ছিলেন এবং তার মাতার নাম রাণী হামিদ, যিনি একজন দাবা খেলোয়াড় ছিলেন।

আন্তর্জাতিক ফুটবলসম্পাদনা

১৯৮৫ সালের ২রা এপ্রিল তারিখে, মাত্র ১৬ বছর ৪ মাস ২ দিন বয়সে, হামিদ ইন্দোনেশিয়ার বিরুদ্ধে ১৯৮৬ ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে অংশগ্রহণ করার মাধ্যমে আন্তর্জাতিক ফুটবলে বাংলাদেশের হয়ে অভিষেক করেছিলেন; ম্যাচে তিনি একজন কেন্দ্রীয় রক্ষণভাগের খেলোয়াড় হিসেবে খেলেছিলেন। ম্যাচটি বাংলাদেশ ২–১ গোলের ব্যবধানে জয়লাভ করেছিল।[২] জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক ম্যাচেই তিনি বাংলাদেশের জার্সি গায়ে প্রথম গোলটি করেছিলেন; ইন্দোনেশিয়ার বিরুদ্ধে ম্যাচে বাংলাদেশের প্রথম গোলটি করার মাধ্যমে তিনি আন্তর্জাতিক ফুটবলে তার প্রথম গোলটি করেছিলেন।

১৯৯৩ সালের ৭ই মে তারিখে হামিদ ২৪ বছর বয়সে বাংলাদেশের তার সর্বশেষ ম্যাচটি খেলে আন্তর্জাতিক ফুটবল থেকে অবসর গ্রহণ করেছিলেন। সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ের আল মাকতুম স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ৩–০ গোলের ব্যবধানে জয়লাভ করেছিল, ম্যাচটিতে তিনি বাংলাদেশের হয়ে প্রথম গোলটি করেছিলেন। আন্তর্জাতিক ফুটবলে, তার ৩ বছরের খেলোয়াড়ি জীবনে তিনি সর্বমোট ১৯ ম্যাচে ১টি গোল করেছিলেন।

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

১৯৯৩ সালে, হামিদ বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। তার কারিনা কায়সার (১৯৯৩ সালে জন্মগ্রহণ) নামে একটি কন্যাসন্তান এবং মুস্তফা শহির হামিদ (১৯৯৭ সালে জন্মগ্রহণ) ও মোহাম্মদ সাদাত হামিদ (২০০০ সালে জন্মগ্রহণ) নামে দুইটি পুত্রসন্তান রয়েছে।

অর্জনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "PM hands over Nat'l Sports Awards Dec 23"দ্য ডেইলি স্টার। ১৬ ডিসেম্বর ২০০৩। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০২০ 
  2. "Bangladesh 2:1(0:1) Indonesia"allworldcup (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৭ মার্চ ২০২১ 
  3. "প্রদান করা হলো ট্রাব অ্যাওয়ার্ড- ২০১৭"দৈনিক ইত্তেফাক। ২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮। ১৫ জুন ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৬ মে ২০২০ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা