কল্পরঞ্জন চাকমা

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ

কল্পরঞ্জন চাকমা (১৩ জানুয়ারি ১৯২২–২৫ জুলাই ২০১৮) বাংলাদেশের পার্বত্য চট্টগ্রামের খাগড়াছড়ি জেলার রাজনীতিবিদ, খাগড়াছড়ি আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশের পার্বত্য চট্টগ্রামবিষয়ক প্রথম মন্ত্রী।[১][২]

কল্পরঞ্জন চাকমা
কল্পরঞ্জন চাকমা.jpg
পার্বত্য খাগড়াছড়ি আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
২৭ ফেব্রুয়ারি ১৯৯১ – ১৫ ফেব্রুয়ারি ১৯৯৬
পূর্বসূরীএ কে এম আলীম উল্লাহ
উত্তরসূরীওয়াদুদ ভূইয়া
কাজের মেয়াদ
১২ জুন ১৯৯৬ – ১ আক্টোবর ২০০১
পূর্বসূরীওয়াদুদ ভূইয়া
উত্তরসূরীওয়াদুদ ভূইয়া
প্রথম মন্ত্রী -পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়
কাজের মেয়াদ
১৫ জুলাই ১৯৯৮ – ১ আক্টোবর ২০০১
উত্তরসূরীমনি স্বপন দেওয়ান
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৩ জানুয়ারি ১৯২২
খাগড়াছড়ি জেলা
মৃত্যু২৫ জুলাই ২০১৮
ঢাকা কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মগবাজার
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
অন্যান্য
রাজনৈতিক দল
ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি
সন্তানদুই ছেলে ও এক মেয়ে
প্রাক্তন শিক্ষার্থীস্যার আশুতোষ সরকারি কলেজ

জন্ম ও প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

কল্পরঞ্জন ১৩ জানুয়ারি ১৯২২ সালে পার্বত্য চট্টগ্রামের খাগড়াছড়ি জেলার দীঘিনালা উপজেলার বাবুপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি স্যার আশুতোষ কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন।[১][৩]

রাজনৈতিক জীবনসম্পাদনা

কল্পরঞ্জন চাকমা ১৯৫২ সালে ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টিতে (ন্যাপ ভাষানী) যোগদান করেন। ১৯৬৪ সালে আওয়মী লীগে যোগদান করে খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। তিনি ১৯৬৬ সালে জেলা কাউন্সিলের সদস্য এবং ১৯৭২ সালে আরবিট্রেশন কোর্টের চেয়ারম্যান নিযুক্ত হন।[১]

তিনি ১৯৯১ সালের পঞ্চম ও জুন ১৯৯৬ সালের সপ্তম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রামের খাগড়াছড়ি আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন।[৪][৫] ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর তিনি দপ্তরবিহীন মন্ত্রী হন এবং ১৫ জুলাই ১৯৯৮ সালে মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় গঠন হলে প্রথম মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন তিনি।[৩][৬]

২০০১ সালের অষ্টম জাতীয় নির্বাচনে তিনি তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে একই আসন থেকে পরাজিত হয়েছিলেন।[২] এরপর থেকে তিনি রাজনীতি থেকে দূরে রাঙামাটি শহরের আনন্দ বিহার এলাকায় নিজ বাড়িতে বসবাস করতেন।[৩]

মৃত্যুসম্পাদনা

কল্পরঞ্জন চাকমা ২৫ জুলাই ২০১৮ সালে মগবাজারের ঢাকা কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।[৭]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "বিখ্যাত ব্যক্তিত্ব, পার্বত্য চট্টগ্রাম জেলা"বাংলাদেশ জাতীয় তথ্য বাতায়নবাংলাদেশ সরকার। ১৭ মে ২০২০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২০ 
  2. "কল্প রঞ্জন চাকমা, আসন নং: ২৯৮, পার্বত্য খাগড়াছড়ি, দল: আওয়ামী লীগ (নৌকা)"দৈনিক প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২০ 
  3. খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি (২৬ জুলাই ২০১৮)। "সাবেক মন্ত্রী কল্পরঞ্জন চাকমা মারা গেছেন"দৈনিক কালের কণ্ঠ। ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২০ 
  4. "৫ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  5. "৭ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  6. যুগান্তর রিপোর্ট, অনলাইন সংস্করণ (২৫ জুলাই ২০১৮)। "সাবেক মন্ত্রী কল্পরঞ্জন চাকমা আর নেই"দৈনিক যুগান্তর। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২০ 
  7. নিজস্ব প্রতিবেদক (২৫ জুলাই ২০১৮)। "পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রথম মন্ত্রী কল্পরঞ্জন চাকমা মারা গেছেন"বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। সংগ্রহের তারিখ ১৭ মে ২০২০