ওয়ার্নার পার্ক স্পোর্টিং কমপ্লেক্স

ওয়ার্নার পার্ক স্পোর্টিং কমপ্লেক্স সেন্ট কিটসের বাসেতের এলাকায় অবস্থিত একটি অ্যাথলেটিক সুযোগ-সুবিধাদি বিদ্যমান ক্রীড়া কমপ্লেক্স। কমপ্লেক্সের অভ্যন্তরে ওয়ার্নার পার্ক স্টেডিয়াম রয়েছে যা ২০০৭ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। বিখ্যাত পর্যটক স্যার টমাস ওয়ার্নারের নাম অনুসরণে কমপ্লেক্সের নামকরণ হয়েছে। তাঁর আগমনের কারণেই সেন্ট কিটসে প্রথম ইংরেজ উপনিবেশ গড়ে উঠে।

ওয়ার্নার পার্ক
স্টেডিয়ামের তথ্যাবলী
অবস্থানবাসেতের, সেন্ট কিটস ও নেভিস
প্রতিষ্ঠাকাল২০০৬
ধারন ক্ষমতা৮,০০০

প্রথম টেস্ট২২ জুন ২০০৬: ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট২০ মে ২০১১: ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম পাকিস্তান
প্রথম ওডিআই২৩ মে ২০০৬: ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম ভারত
শেষ ওডিআই৩১ জুলাই ২০০৯: ওয়েস্ট ইন্ডিজ বনাম বাংলাদেশ
ঘরোয়া দলের তথ্য
লিওয়ার্ড আইল্যান্ডস (১৯৬২ – বর্তমান)
২৪ মে ২০১১ অনুযায়ী
উৎস: CricketArchive

পূর্বদিকে ক্রিকেট পিচ, প্যাভিলিয়ন, সম্প্রচারকেন্দ্র রয়েছে। চার হাজার আসনবিশিষ্ট এ অংশে বৃহৎ ক্রীড়া আসরে সাময়িকভাবে দশ হাজার আসনের ব্যবস্থা করা যায়। তাইওয়ান সরকারের বড় ধরনের অর্থ সহায়তা রয়েছে যাতে ২.৭৪ মিলিয়ন মার্কিন ডলার অনুদান দেয়া হয়। সামগ্রীকভাবে প্রকল্প বাস্তবায়নে ১২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয়িত হয় যার অর্ধাংশ ক্রিকেট খেলা ও অর্ধেক ফুটবল খেলার জন্য।

পশ্চিমাংশে ফুটবল স্টেডিয়াম রয়েছে। তিন হাজার পাঁচশত আসনে দর্শক উপবেশন করেন। উত্তরাংশে তিনটি টেনিস কোর্ট, তিনটি নেটবল/ভলিবল কোর্ট, লেন হ্যারিস ক্রিকেট একাডেমি আছে। উৎসব আয়োজনের জন্য রয়েছে কার্নিভাল সিটি।

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

স্থানাঙ্ক: ১৭°১৭′৫৫″ উত্তর ৬২°৪৩′১৯″ পশ্চিম / ১৭.২৯৮৬১° উত্তর ৬২.৭২১৯৪° পশ্চিম / 17.29861; -62.72194