ইসলামিক স্টাডিজ লাইব্রেরী (ম্যাকগিল বিশ্ববিদ্যালয়)

গ্রন্থাগার

ম্যাকগিল বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগারের একটি শাখা ইসলামিক স্টাডিজ লাইব্রেরী-র সংগ্রহগুলি টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের রবার্টস লাইব্রেরির সাথে কানাডার প্রধান গ্রন্থাগার হিসেবে ইসলামী বিশ্ব সম্পর্কে এবং প্রকৃতপক্ষে উত্তর আমেরিকার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সংগ্রহগুলি নিয়ে গবেষণার জন্য একত্রিত হয়েছে।[২]

ইসলামিক স্টাডিজ লাইব্রেরী
Desk in Islamic Studies Library.jpg
ইসলামিক স্টাডিজ লাইব্রেরীতে টেবিল
ধরনম্যাকগিল বিশ্ববিদ্যালয় গ্রন্থাগারের একটি শাখা
প্রতিষ্ঠিত১৯৫২
সংগ্রহ
সংগৃহীত আইটেমইসলামী পান্ডুলিপি, তালিকা, সূত্র নির্দেশক উপকরণ, ইসলামী ইতিহাস, শাস্ত্রীয় ইসলামী পাঠ এবং কর্মসমূহ
সংগ্রহের মানদণ্ডইসলাম শিক্ষা, মুসলিম বিশ্ব
অন্যান্য তথ্য
পরিচালকআনাইস সালামন
কর্মচারী[১]
ওয়েবসাইটইসলাম শিক্ষা গ্রন্থাগার
মানচিত্র

ইতিহাসসম্পাদনা

১৯৫২ সালে ম্যাকগিল ইউনিভার্সিটি ইন্সটিটিউট অব ইসলামিক স্টাডিজের সাথে ইসলামিক স্টাডিজ লাইব্রেরীটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।[৩] এটি একটি পরিমিত বিভাগীয় গ্রন্থাগার থেকে পুরো ইসলামী সভ্যতার প্রায় দেড় হাজার খন্ডের একটি সম্মানজনক গ্রন্থাগার হিসাবে রুপান্তরিত হয়েছে। গ্রন্থাগারটি মরিস হল-এ অবস্থিত, এটি জন জে ব্রাউনের নকশায় ১৮৮২ সালে নির্মাণ করা হয়েছে।[৪]

সংগ্রহসম্পাদনা

গ্রন্থাগারের সংগ্রহগুলি মুদ্রিত, পাণ্ডুলিপি এবং অডিওভিজুয়াল বিন্যাসে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। পাণ্ডুলিপির এই সংগ্রহটিতে আরবী, ফারসি, তুর্কি (উসমানীয় তুর্কি সহ) এবং উর্দুতে মিলিয়ে প্রায় ৬৪০ খণ্ডের সাহিত্যের সমন্বয়ে গঠিত হয়েছে।[৫] এই সংগ্রহগুলি রেয়ার বুকস এন্ড স্পেশাল কালেকশনস-এ অবস্থিত, অডিওভিজুয়াল সংগ্রহগুলিতে বিরল বইগুলির মাইক্রোফিল্ম এবং পান্ডুলিপি (৫৩৫টি রিল) রয়েছে। মুদ্রিত বইগুলির মধ্যে লিথোগ্রাফি দ্বারা মুদ্রিত আরবি, ফার্সি, উর্দু এবং তুর্কি বইয়ের ৭০০ খণ্ডের সংকলন সহ প্রায় ৩,০০০ বিরল আইটেমের সংকলন রয়েছে।

গ্রন্থাগারের এই সংগ্রহটি ইসলামী সভ্যতার সমুদয় বিষয়াবলীর পরিসীমা বিস্তৃতিকরণে আগ্রহী। ভৌগোলিকভাবে যার অর্থ দাঁড়ায় দক্ষিণ এশিয়া (বাংলাদেশ, ভারত, আফগানিস্তান, পাকিস্তান ইত্যাদি), দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া (ইন্দোনেশিয়া), মধ্য এশিয়া (কিরগিজস্তান, তাজিকিস্তান, কাজাখস্তান, উজবেকিস্তান এবং তুর্কমেনিস্তান), মধ্যপ্রাচ্য (ইরান, ইরাক, সৌদি আরব, ফিলিস্তিন, ইসরায়েল, সিরিয়া, জর্ডান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান এবং ইয়েমেন) এবং উত্তর আফ্রিকা (মিশর, লিবিয়া, তিউনিসিয়া, আলজেরিয়া, মরক্কো এবং সুদান) এ সম্পর্কিত সংগ্রহশালাকে অন্তর্ভুক্ত করা।[৬]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "ISL Staff"Islamic Studies Library। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  2. "Islamic studies collection policy"McGill Library website। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  3. "McGill Library website"About the Islamic Studies Library। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  4. "Morrice Hall"Virtual McGill 
  5. "ইসলামী পান্ডুলিপি"ম্যাগগিল গ্রন্থাগার ওয়েবসাইট (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 
  6. "সংগ্রহশালার নীতি"ইসলামীক স্ট্যাডীজ লাইব্রেরী। সংগ্রহের তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৪ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা