ইজ্জুদ্দীন ইবনে আবদুস সালাম

ইজ্জুদ্দীন আব্দুল আজিজ ইবনে আবদুস সালাম ইবনে আবুল কাসিম ইবনে আল-হাসান আল-দামেস্কি, সুলতানুল উলামা, আবু মুহাম্মদ আল-সুলামি ছিলেন ত্রয়োদশ শতাব্দীর বিখ্যাত মুজতাহিদ, ধর্মতত্ত্ববিদ, ফিকাহবিদ এবং তাঁর প্রজন্মের শীর্ষস্থানীয় শাফেঈ আলেম। [৪]

Al-‘Izz ibn ’Abd is-Salām
مخطوطة العز بن عبد السلام.png
আরবি ক্যালিগ্রাফি, তাঁর নাম ও উপাধি লিপিবদ্ধ এতে
উপাধিসুলতানুল উলামা [১]
শায়খুল ইসলাম[২]
ব্যক্তিগত
জন্মহিজরি ৫৭৭ (১১৮১-১১৮২)[১]
মৃত্যুহিজরি ৬৬০ (১২৬২ খ্রিষ্টাব্দ)[১][৩]
ধর্মIslam

জন্ম ও শিক্ষাসম্পাদনা

ইজ্জুদ্দীন ইবনে আবদুস সালাম ৫৭৭ হিজরিতে [৫]দামেস্কে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি তৎকালীন দামেস্কের প্রথিতযশা আলেমদের থেকে শিক্ষাগ্রহণ করেন। ইবনে আসাকির এবং জামালুদ্দীন হারাস্তানির কাছে উচ্চতর আইন বিষয়ে পড়াশোনা করেন, সাইফুদ্দীন আল-আমিদীর সান্নিধ্যে উসূল আল-ফিকাহ এবং ধর্মতত্ত্ব শিক্ষা করেন, তাসাওউফ-এর দীক্ষাগ্রহণ করেন সোহরাওয়ার্দী এবং আবুল হাসান আল-শাজিলির সান্নিধ্যে।

কারাবাসসম্পাদনা

দামেস্কে উমাইয়া মসজিদের খুতবা প্রদানকারী (খতিব) হিসেবে তিনি পূর্বেকার খতিবদের অনেক প্রথা ভেঙে ফেলেছিলেন। যেমন, তিনি খতিবদের জন্য নির্ধারিত কালো হাবাকাবা না পরে খুতবা প্রদান করতেন, ছন্দোবদ্ধ ভাষায় খুতবা প্রদান করতেন না এবং খুতবার মধ্যে সুলতান ও শাহজাদাদের উদ্দেশ্যে প্রশংসাবাক্য পড়তেন না। বার্নস ক্রুসেড চলাকালীন দামেস্কের শাসক আস-সালিহ ইসমাইল খ্রিষ্টান ক্রুসেডার থিওবাল্ড অভ নাভারের সঙ্গে আঁতাতমূলক সন্ধি করলে ইজ্জুদ্দিন ইবনে আবদুস সালাম জুমআর খুতবায় তার নিন্দা করেন এবং খুতবা পরবর্তী মোনাজাতে তাঁর কল্যাণ কামনা করা থেকে বিরত থাকেন। ফলস্বরূপ তাকে কারাগারে বন্দী করা হয় এবং মুক্তি পেয়ে মিশরে চলে যায়। [৬]

মিশরে হিজরতসম্পাদনা

দামেস্ক ত্যাগ করার পর ইজ্জুদ্দীন ইবনে আবদুল সালাম কায়রোতে স্থায়ী হন। এখানে তাকে প্রধান বিচারক ও জুমার নামাজের ইমাম নিযুক্ত করা হয়। ফলে জনগণের মাঝে তিনি এমন প্রভাব বিস্তার করেছিলেন যে কোনো ন্যায় ও অন্যায়ের বিচার তিনি ইসলামি আইনের মাধ্যমে সমাধা করতেন। [৬]

ইবনে আবদুল সালাম পরবর্তীতে বিচার বিভাগ থেকে পদত্যাগ করেন এবং মাদরাসায়ে সালেহিয়ায় ইসলামি আইনের শিক্ষক হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন। মিশরের শাসক আল-মালিক আস-সালিহ কায়রোর কেন্দ্রস্থলে উচ্চ শিক্ষালয় হিসেবে এটি নির্মাণ করেন এবং মিশরে এটি ছিল প্রথম প্রতিষ্ঠান যেখানে চার মাজহাব একসঙ্গে শিক্ষা দেয়া হতো। জীবনীদাতারা ইঙ্গিত দেয় যে তিনিই প্রথম মিশরে কুরআন তাফসিরের শিক্ষা শুরু করেন। [৭]

ইবনে আবদুস সালামের জ্ঞান ও প্রজ্ঞার দরুণ তাঁকে সুলতানুল উলামা (পণ্ডিতদের সুলতান) উপাধি প্রদান করা হয়। [৮]

কর্মময় জীবনসম্পাদনা

তিনি শাফেঈ আইনশাস্ত্র, কুরআনের আইনশাস্ত্র, তাফসির, ধর্মীয় আইনের পদ্ধতিগত মৌলিক বিষয়াদি, রাষ্ট্রীয় ও সরকারি আইনী মতামত এবং সুফিবাদের ওপর অনেক গ্রন্থ রচনা করেন। কাওয়ায়িদুল আহকাম ফি মাসালিহিল আনআম [৬] তাঁর অন্যতম সৃষ্টিকর্ম।

কুরআন

  1. তাফসিরুল কুরআনিল আজিম,
  2. মুখতাসারুল নুকাত ওয়াল 'উয়ুন লিল ইমাম আল-মাওয়ারদী,
  3. আল-ইশারাহ ইলাল-ইজাজ,
  4. ফাওয়ায়িদ ফি মুশকিলিল-কুরআন,
  5. আমালি

হাদিস / সিরাহ

  1. মুখতাসার সহিহ মুসলিম,
  2. বিদায়াতুস সুল ফি তাফদিলির-রাসুল,
  3. তারগীব আহলুল ইসলাম ফি সাকনিশ-শাম

ধর্মীয় বিশ্বাস

  1. আল-মুলহাত ফি ইতেকাদ আহলে হাক্ক / আররাদ্দ আলাল-মুবতাদি ওয়াল হাশাওয়িয়াহ
  2. আল-ফারকু বাইনাল ঈমান ওয়াল ইসলাম বা মা'না আল-ঈমান ওয়াল ইসলাম,
  3. আল-আনওয়া ফিল ইলমিত্তাওহিদ,
  4. বায়ানু আহওয়ালান্নাসি ইয়াওমাল কিয়ামাহ,

তাসাওউফ

  1. শাজারাতুল অারিফ ওয়াল আহওয়াল ওয়া সালিহ ‍আল আকওয়াল ওয়াল আমাল,
  2. আল-ফিতান ওয়াল বালায়া ওয়াল মিহান,
  3. মুখতাসার রাহায়াহ আল-মুহাসিবি / মাকাসিদ আল-রিয়ায়াহ লি হক্কিল্লাহ,

উসুল

  1. কাওয়ায়েদ আল-কুবরা,
  2. আল-কাওয়ায়েদ আল-সুগরা,
  3. আল-ইমাম ফি বায়ান আদিল্লাত আল-আহকাম,

ফিকহ

  1. আল-গায়াহ ফি ইখতিসার আল-নিহায়াহ,
  2. আল-জামে বায়ান আল-হাভি ওয়াল নিহায়াহ;

আল-ফাতাওয়া আল-মিসরিয়াহ, আল-ফাতাওয়া আল-মুসিলিয়্যাহ, আত-তারগিব 'সালাত আল-রাগায়েব, বা অন্য শিরোনামে; আল-তারগীব 'সালাত আল-রাঘায়েব আল-মাওদু'আ ওয়া বায়ান মা ফিহা মিন মুখালাত আল-সুনান আল-মাশরুআহ বা অন্য শিরোনামে; রিসালাত ফী ধাম্ম সালাত আল রাগায়েব।

  1. রিসালাত ফি রদ্দ জাওয়াজ সালাত আল-রাগায়েব
  2. মাকাসিদ আল-সাওম,
  3. মানসিক আল-হজ,
  4. মাকাসিদ আল-সালাহ,
  5. আহকাম আল-জিহাদ ওয়া ফাদলিহি,

স্মৃতিচারণসম্পাদনা

বিশিষ্ট হাদীস বিশেষজ্ঞ ও শাফেঈ ফকিহ জাকিউদ্দিন আল-মুনজিরি বলেন, " শাইখ ইজ্জুদ্দীন আসার আগে আমরা আইনী মতামত দিতাম ; এখন তিনি আমাদের মধ্যে রয়েছেন, আমরা আর তা করি না।" [৯]

কারাফি ইবনে আবদুস সালামকে "সুন্নতের আপোসহীন রক্ষাকারী হিসেবে বর্ণনা করেছেন, যিনি ক্ষমতায় থাকা লোকদের ভয় পেতেন না" [১০]

বেশ কয়েকটি সূত্র জানায় যে ইবনে আবদুল সালাম পুরোপুরি শাফেঈ মাজহাবকে অতিক্রম করে ইজতিহাদের পর্যায়ে পৌঁছেছিলেন। [১১]

মৃত্যুসম্পাদনা

ইজ্জুদ্দিন ইবনে আবদুস সালাম ৬৬০ হিজরিতে কায়রোতে মারা যান[১২]

  1. Bosworth, C.E.; van Donzel, E.; Heinrichs, W.P.; Lecomte, G. (১৯৯৭)। Encyclopaedia of Islam (New Edition)। Volume IX (San-Sze)। Leiden, Netherlands: Brill। পৃষ্ঠা 812। আইএসবিএন 9004104224 
  2. Jackson, Sherman (১৯৯৬)। Islamic Law and the State: The Constitutional Jurisprudence of Shihab Al-Din Al-Qarafi (Studies in Islamic Law & Society)। Brill। পৃষ্ঠা 10। আইএসবিএন 9004104585 
  3. Elmore, Gerald T. (১৯৯৯)। Islamic Sainthood in the Fullness of Time: Ibn Al-Arabi's Book of the Fabulous Gryphon (Islamic Philosophy, Theology, and Science)। Brill Academic Pub। পৃষ্ঠা 45। আইএসবিএন 9004109919 
  4. Elmore, Gerald T. (১৯৯৯)। Islamic sainthood in the fullness of time : Ibn al-ʻArabī's Book of the fabulous gryphon। Leiden: Brill। আইএসবিএন 90-04-10991-9ওসিএলসি 39399302 
  5. Bosworth, C.E.; van Donzel, E.; Heinrichs, W.P.; Lecomte, G. (1997). Encyclopaedia of Islam (New Edition). Volume IX (San-Sze). Leiden, Netherlands: Brill. p. 812. ISBN 9004104224.
  6. Keller, Nuh Ha Mim (১৯৯৭)। Reliance of the Traveller. A classic manual of Islamic Sacred Law। Amana Publications। পৃষ্ঠা 1064। আইএসবিএন 0915957728 
  7. The encyclopaedia of Islam.। Gibb, H. A. R. (Hamilton Alexander Rosskeen), 1895-1971., Bearman, P. J. (Peri J.) (New edition সংস্করণ)। Leiden: Brill। ১৯৬০–২০০৯। আইএসবিএন 90-04-16121-Xওসিএলসি 399624 
  8. Jackson, Sherman A. (১৯৯৬)। Islamic law and the state : the constitutional jurisprudence of Shihāb al-Dīn al-Qarāfī। Leiden: E.J. Brill। আইএসবিএন 90-04-10458-5ওসিএলসি 33403562 
  9. Jackson, Sherman A. (১৯৯৬)। Islamic law and the state : the constitutional jurisprudence of Shihāb al-Dīn al-Qarāfī। Leiden: E.J. Brill। আইএসবিএন 90-04-10458-5ওসিএলসি 33403562 
  10. Holmes Katz, Marion (২০০৭)। The Birth of The Prophet Muhammad: Devotional Piety in Sunni Islam। Routledge। পৃষ্ঠা 1064। আইএসবিএন 0415771277 
  11. Jackson, Sherman A. (১৯৯৬)। Islamic law and the state : the constitutional jurisprudence of Shihāb al-Dīn al-Qarāfī। Leiden: E.J. Brill। আইএসবিএন 90-04-10458-5ওসিএলসি 33403562 
  12. The encyclopaedia of Islam.। Gibb, H. A. R. (Hamilton Alexander Rosskeen), 1895-1971., Bearman, P. J. (Peri J.) (New edition সংস্করণ)। Leiden: Brill। ১৯৬০–২০০৯। আইএসবিএন 90-04-16121-Xওসিএলসি 399624