আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানীনগর

নারায়ণগঞ্জ জেলার একটি কওমি মাদ্রাসা

আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানীনগর-ঢাকা (সংক্ষেপে মাদানীনগর মাদ্রাসা) নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জের ঢাকা- চট্রগ্রাম বিশ্বরোডের উত্তর পার্শ্বে অবস্থিত একটি কওমি মাদ্রাসাদারুল উলুম দেওবন্দের মূলনীতির আলোকে ইদ্রিস সন্দ্বীপি ১৯৮৪ সালের ৩১ ডিসেম্বর এটি প্রতিষ্ঠা করেন। এর ভিত্তি প্রস্তর করেছেন জমিয়ত উলামায়ে হিন্দের তৎকালীন সভাপতি আসআদ মাদানি। মাত্র ১৬ জন ছাত্র নিয়ে এই মাদ্রাসার প্রথম শিক্ষাবর্ষ শুরু হয়। বর্তমানে তার ছাত্র সংখ্যা প্রায় তিন হাজার।

আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানীনগর-ঢাকা
ধরনকওমি মাদ্রাসা
স্থাপিত৩১ ডিসেম্বর ১৯৮৪
প্রতিষ্ঠাতাশায়খ ইদ্রিস সন্দ্বীপি রহঃ
মূল প্রতিষ্ঠান
দারুল উলুম দেওবন্দ
অধিভুক্তিআল হাইআতুল উলয়া লিল জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশবেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়্যাহ বাংলাদেশ
ধর্মীয় অধিভুক্তি
ইসলাম
আচার্যমাওলানা ফয়জুল্লাহ সন্দ্বীপি
উপাচার্যমাওলানা আকবর হুসাইন স্বন্দীপী
শিক্ষার্থীপ্রায় সাড়ে তিন হাজার
অবস্থান
শিক্ষাঙ্গনশহর
সংক্ষিপ্ত নামমাদানীনগর মাদ্রাসা
ওয়েবসাইটdarululoommadaninagar.com

প্রতিষ্ঠাতা ইদ্রিস সন্দ্বীপি নিজ এলাকায় ৩০ বছর ধর্মীয় শিক্ষাদানে ব্যয় করার পর ঢাকার কাচপুর ব্রিজের অদূরে নিমাইকাশারী এলাকায় পৌছে সেখানে এ মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেন। বর্তমানে এটিই মাদানীনগর হিসেবে খ্যাত। এ মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠার পর থেকে ১৯৯৫ পর্যন্ত তিনি পরিচালকের দায়িত্ব পালন করেন। তারপর পরিচালনার দায়িত্ব পান প্রতিষ্ঠাতার বড় পুত্র মাওলানা ফয়জুল্লাহ সন্দ্বীপি। প্রায় চার বিঘা জমির উপর প্রতিষ্ঠিত এই মাদ্রাসায় তিনটি ছাত্রাবাস (যথাক্রমে সাত তলা,ছয় তলা ও তিন তলা) ও একটি আট তলা বিশিষ্ট আধুনিক নির্মাণ শিল্পে সমৃদ্ধ মসজিদ রয়েছে।[১][২]

আরও দেখুন সম্পাদনা

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. গোলাম ছরোয়ার, মুহাম্মদ (নভেম্বর ২০১৩)। "বাংলা ভাষায় ফিকহ চর্চা (১৯৪৭-২০০৬): স্বরূপ ও বৈশিষ্ঠ্য বিচার"। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: ৩০৫। 
  2. "মাদ্রাসা পরিচিতি"আল জামিয়াতুল ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানীনগর। ৩০ জুলাই ২০২১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ আগস্ট ২০২১