আমিরুল আলম মিলন

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ

আমিরুল আলম মিলন বাংলাদেশের বাগেরহাট জেলার রাজনীতিবিদ, আইনজীবী ও বাগেরহাট-৪ (শরণখোলা-মোরেলগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য[১][২]

অ্যাডভোকেট

আমিরুল আলম মিলন
বাগেরহাট-৪ আসনের সাংসদ
কাজের মেয়াদ
২১ মার্চ ২০২০ – চলমান
পূর্বসূরীমোজাম্মেল হোসেন
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম২২ জানুয়ারি ১৯৫৩
মোরেলগঞ্জ উপজেলা, বাগেরহাট জেলা
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
প্রাক্তন শিক্ষার্থীরাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

জন্ম ও প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

আমিরুল আলম মিলন ২২ জানুয়ারি ১৯৫৩ সালে বাগেরহাট জেলার মোরেলগঞ্জ উপজেলার বারইখালী গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। এসএম কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগে ভর্তি হন।[৩]

রাজনৈতিক ও কর্মজীবনসম্পাদনা

আমিরুল আলম মিলন ১৯৭২ সালে মোরেলগঞ্জের এসএম কলেজের ছাত্রাবস্থায় ছাত্রলীগের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়েন। এর পর ১৯৭৯-১৯৮১ সাল পর্যন্ত রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি ছিলেন। তিনি বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে আইন পেশার পাশাপাশি ১৯৯১ সালে মোড়েলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হন। ২০০৩ সালে মোড়েলগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মনোনীত হন। ২০১৬ ও ২০১৯ সালে বাংলাদেশ  আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য মনোনীত হন।[৩]

২০১৫ সালে বীমা কর্পোরেশনের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পান তিনি।[৩]

তিনি বাগেরহাট-৪ (শরণখোলা-মোরেলগঞ্জ) আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য মোজাম্মেল হোসেনের মৃত্যুতে আসনটি শূন্য হওয়ার পর ২১ মার্চ ২০২০ সালের উপনির্বাচনে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "বাগেরহাট-৪ আসনের উপ-নির্বাচনে আ'লীগের মিলন জয়ী"বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম। ২১ মার্চ ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ এপ্রিল ২০২০ 
  2. "উপ-নির্বাচন, বাগেরহাট-৪ আসনে এ্যাড. আমিরুল আলম মিলন জয়ী"একুশে টেলিভিশন। ২১ মার্চ ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ এপ্রিল ২০২০ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "বাগেরহাট-৪ আসনে আ'লীগের মনোনয়ন পেলেন মিলন"দৈনিক যুগান্তর। ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০। সংগ্রহের তারিখ ১৯ এপ্রিল ২০২০