আব্দুল মুয়ীদ চৌধুরী

আব্দুল মুয়ীদ চৌধুরী বাংলাদেশি অবসরপ্রাপ্ত একজন সরকারি কর্মকর্তা যিনি ২০০১ সালে লতিফুর রহমান নেতৃত্বাধীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

আব্দুল মুয়ীদ চৌধুরী
তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা
কাজের মেয়াদ
১৬ জুলাই ২০০১ – ১০ অক্টোবর ২০০১
বাংলাদেশ সরকারের সচিব
কাজের মেয়াদ
১৯৯৪ – ২০০০
ব্যক্তিগত বিবরণ
জাতীয়তাবাংলাদেশি

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

আব্দুল মুয়ীদ ১৯৬৪ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগ থেকে স্নাতক সম্পন্ন এবং ১৯৬৫ সালে একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আধুনিক ইতিহাস বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।[১] ১৯৮০ থেকে ১৯৮১ সাল পর্যন্ত নয় মাস তিনি যুক্তরাষ্ট্রের টেনেসি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফুলব্রাইট বৃত্তির অধীনে লোকশাসন বিষয়ে শিক্ষালাভ করেন।[১]

কর্মজীবনসম্পাদনা

আব্দুল মুয়ীদ ১৯৬৭ সালে পাকিস্তান সিভিল সার্ভিসে (বর্তমান বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস) যোগদান করেন। তিনি ১৯৭৫ থেকে ১৯৭৮ সাল পর্যন্ত বৃহত্তর ফরিদপুর জেলা ও ১৯৭৮ থেকে ১৯৮০ সাল পর্যন্ত বৃহত্তর ঢাকা জেলার ডেপুটি কমিশনার এবং ১৯৮৪ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত চট্টগ্রাম বিভাগের কমিশনার ছিলেন।[২] ১৯৮৯ সালে তিনি মুয়ীদ কমিটির চেয়ারম্যান ছিলেন। ১৯৯৪ থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত তিনি বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করে অবসর গ্রহণ করেন। ৩৩ বছরের কর্মজীবনে তিনি বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগসহ বিভিন্ন বিভাগ ও দপ্তরের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[২]

২০০০ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত তিনি বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাকের প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা ছিলেন। ২০০১ সালের ১৬ জুলাই তিনি লতিফুর রহমান নেতৃত্বাধীন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন এবং ১০ অক্টোবর পর্যন্ত মন্ত্রীর পদমর্যাদায় বাংলাদেশের খাদ্যমন্ত্রীসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন।[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Abdul Muyeed Chowdhury, Successful Societies"successfulsocieties.princeton.edu। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জানুয়ারি ২০২০ 
  2. "Abdul-Muyeed Chowdhury"Mobil। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জানুয়ারি ২০২০ 
  3. "পূর্ববর্তী মন্ত্রী"খাদ্য মন্ত্রণালয়। সংগ্রহের তারিখ ২৬ জানুয়ারি ২০২০