আব্দুল খালেক মন্ডল

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ

আব্দুল খালেক মন্ডল (১ অগাস্ট ১৯৪৪ - ২১ জুলাই ২০২৩) বাংলাদেশের একজন রাজনীতিবিদ। তিনি সাতক্ষীরা-২ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য।[১][২]

আব্দুল খালেক মন্ডল
সাতক্ষীরা-২ আসনের
সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
১ অক্টোবর ২০০১ – ২৮ অক্টোবর ২০০৬
পূর্বসূরীকাজী শামসুর রহমান
উত্তরসূরীএম. এ. জব্বার
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১ অগাস্ট ১৯৪৪
খলিলনগর, বৈকারী, সাতক্ষীরা, ব্রিটিশ ভারত (বর্তমান বাংলাদেশ)
মৃত্যু২১ জুলাই ২০২৩
খুলনা মেডিকেল
জাতীয়তাব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
বাংলাদেশ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী
পিতামাতাচান মণ্ডল
দিলজান বিবি
প্রাক্তন শিক্ষার্থীঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
সাতক্ষীরা সরকারি কলেজ

প্রাথমিক জীবন সম্পাদনা

আব্দুল খালেক মন্ডল ১ অগাস্ট ১৯৪৪ সালে সাতক্ষীরার বৈকারী ইউনিয়নের খলিলনগরে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম মৃত চান মণ্ডল ও মাতার নাম মৃত দিলজান বিবি। তিনি ইসলাম ধর্মের ধর্মগ্রন্থ কোরআনের হাফেজ। ১৯৬৫ সালে মাদ্রাসা থেকে তিনি কামিল পাস করে ১৯৬৯ সালে সাতক্ষীরা কলেজ থেকে বিএ পাস করেন। এর পর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকেও ইসলামিক স্টাডিজে এমএ ডিগ্রি অর্জন করেন। তার বড় ছেলে প্রভাষক জুলফিকার আলি বুলবুল অধ্যক্ষ আব্দুল খালেক মন্ডল সাহেব কারাগারে থাকা অবস্থায় মারা যান। তার আরেক ছেলে প্রভাষক শামিম এবং ছোট ছেলে ব্যাংক কর্মকর্তা ফারুক।

কর্মজীবন সম্পাদনা

আব্দুল খালেক সাতক্ষীরার আগরদাঁড়ী কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ ছিলেন। সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কুশখালী ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান ও কাথন্ডা আমিনিয়া আলিম মাদ্রাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা আব্দুল গফফার তার জামাতা।

রাজনৈতিক জীবন সম্পাদনা

আব্দুল খালেক মন্ডল জামায়াতে ইসলামীর তৎকালীন ছাত্র সংগঠন ইসলামী ছাত্র সংঘের সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তিনি জামায়াতের সাতক্ষীরা জেলার আমীর ও কেন্দ্রীয় মজলিসে শুরার সদস্য ছিলেন। ১৯৮৮ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত তিনি বৈকারী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছিলেন। ১৯৯০ সালে তিনি সাতক্ষীরা সদর উপজেলার চেয়ারম্যান ছিলেন।[৩] তিনি ২০০১ সালে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর প্রার্থী হিসাবে সাতক্ষীরা-২ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[৪][৫]

[৬] [৭] তিনি

জনপ্রতিনিধি থাকাকালীন এলাকায় প্রভূত উন্নয়ন মূলক কর্মকাণ্ড পরিচকরেছেন করেন। মৃত্যুর পরেও তিনি এলাকায় তথা সমগ্র সাতক্ষীরা জেলায় তুমুল জনপ্রিয়। এমন কথা ও বলা হয়ে থাকে যে,,, সাতক্ষীরা জেলায় সাতক্ষীরা সদর ২ আসনের সাবেক ৩ বারের সংসদ সদস্য মরহুম আলহাজ্ব কাজী শামসুর রহমান সাহেবের পরেই জনপ্রিয়তার দিক থেকে তার অবস্থান। ।[৮]

মৃত্যু সম্পাদনা

আব্দুল খালেক মন্ডল ২১ জুলাই ২০২৩ সালে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রিজন সেলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন।[৯] তার জানাজার নামাজে ইমামতি করেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নেতা মাওলানা আব্দুল হালিম। তার মৃত্যুতে শোক বার্তা দেন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত আমীর সাবেক এমপি প্রফেসর মুজিবুর রহমান। তাকে তার নিজ বাসভবনের সামনে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার খলিলনগর গ্রামে সমাহিত করা হয়।

তথ্যসূত্র সম্পাদনা

  1. "Election 2007"archive.thedailystar.net। The Daily Star। ১৯ অক্টোবর ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 
  2. যেসব অভিযোগে জামায়াতের দুই বারের সাবেক এমপির মৃত্যুদণ্ড, জাগো নিউজ টুয়েন্টি ফোর ডটকম, ২৪ মার্চ ২০২২
  3. "বৈকারী ইউনিয়ন"baikariup.satkhira.gov.bd (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২২-০৩-২৫ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "Parliament Election Result of 1991,1996,2001 Bangladesh Election Information and Statistics"Vote Monitor Networks। ২৯ ডিসেম্বর ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৯ অক্টোবর ২০১৯ 
  5. "৮ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (পিডিএফ)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (পিডিএফ) থেকে আর্কাইভ করা। 
  6. খালেক মণ্ডলসহ সাতক্ষীরার চার রাজাকারের বিরুদ্ধে সাত অভিযোগ, বাংলা নিউজ টুয়েন্টি ফোর ডটকম, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭
  7. যুদ্ধাপরাধে খালেক মণ্ডলসহ ২ জনের মৃত্যুদণ্ড, একুশে টিভি ডট কম, ২৪ মার্চ ২০২২
  8. "মাওলানা আবদুল খালেক মন্ডল ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত : ডা. শফিকুর রহমান"দৈনিক সংগ্রাম। ২৪ মার্চ ২০২২। সংগ্রহের তারিখ ২৫ মার্চ ২০২২ 
  9. "মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতের সাবেক এমপি আব্দুল খালেকের মৃত্যু"দৈনিক ইত্তেফাক। সংগ্রহের তারিখ ২০২৩-০৭-২৩