প্রধান মেনু খুলুন

অ্যানি হল হলো উডি এলেন পরিচালিত ১৯৭৭সালের একটি আমেরিকান রোমান্টিক কমেডি চলচ্চিত্র যার কাহিনী লিখেছেন উডি এলেন ও মার্শাল ব্রিকম্যান। এলেনের ম্যানেজার চার্লস হ. জোফ প্রযোজিত এই চলচ্চিত্রে পরিচালককে আলভি সিঙ্গার এর ভূমিকায় দেখা যায়, যিনি তার সম্পর্কে ব্যর্থতার কারণ খোঁজার চেষ্টা করেন, মহিলা চরিত্রে অভিনয় করেছেন ডায়ান কিয়টোন যা বিশেষভাবে তার জন্য লেখা হয়েছে।

অ্যানি হল
চিত্র:Anniehallposter.jpg
হলে মুক্তির পোস্টার
পরিচালকউডি এলেন
প্রযোজকচার্লস হ. জোফ
রচয়িতা
  • উডিএলেন
  • মার্শাল ব্রিকম্যান
শ্রেষ্ঠাংশে
  • উডি এলেন
  • ডায়ান কিয়াটন
  • টনি রবার্টস
  • ক্যারোন ক্যান
  • পল সাইমন
  • জ্যানেট মার্গোলিন
  • শেল্লে দুভাল
  • ক্রিস্টোফার ওয়াকেন
  • কলপন ডিউহার্স্ট
চিত্রগ্রাহকগর্ডন উইলিস
সম্পাদকরাফ রেজেনব্লাম
পরিবেশকইউনাইটেড আর্টিস্টস
মুক্তি
  • ২০ এপ্রিল ১৯৭৭ (1977-04-20)
দৈর্ঘ্য৯৩ মিনিট
দেশযুক্তরাষ্ট্র
ভাষাইংরেজি
নির্মাণব্যয়$৪ মিলিয়ন
আয়$৩৮.৩ মিলিয়ন[১]

চলচ্চিত্রের জন্য ছবি তোলা শুরু হয় ১৯মে ১৯৭৬সালে লঙ্গ আইল্যান্ডের দক্ষিণ ফর্কে, আর নির্মাণ কাজ পরের দশ মাস ধরে চলতে থাকে। এলেনের সাথে চলচ্চিত্রশিল্পী গর্ডন উইলস এর প্রথম জোটবদ্ধ কাজ হিসেবে এলেন এটিকে "একটি বড় মোড়" হিসেবে উল্লেখ করেছেন,[২] সেসময় যেখানে তার কাজে কৌতুক ও হাস্যরসাত্মক অভিনয় দেখা যেত, সেখানে এই চলচ্চিত্রে তার নতুন ধারার গাম্ভীর্যতা প্রকাশ পেয়েছে। শিক্ষাবিদরা এই চলচ্চিত্রে নিউ ইয়র্ক শহর এবং লস এঞ্জেলস এর গঠনে পার্থক্য, যৌন আবেদনে লিঙ্গ বৈষম্যের ধারণা, ইহুদী পরিচয়ের উপস্থাপনা, আর মনোবিকলন ও আধুনিকতার উপাদানের বর্ণনাকে বিশেষভাবে উল্লেখ করেছেন।

২০এপ্রিল ১৯৭৭সালে আনুষ্ঠানিক মুক্তির আগে মার্চে অ্যানি হল লস এঞ্জেলস চলচ্চিত্র উৎসব এ প্রদর্শন করা হয়। চলচ্চিত্রটি সমালোচনামূলক ব্যাপক প্রশংসা পায়, আর সাথে সেরা চলচ্চিত্রের জন্য একাডেমিক এওয়ার্ড পায়, তিনটি বিভাগে এটি অস্কার পায়: দুটি এলেনের জন্য (সেরা পরিচালকের একাডেমি এওয়ার্ড আর, ব্রিকম্যানের জন্য, সেরা চিত্রণাট্যের জন্য একাডেমি এওয়ার্ড), এবং কিয়াটোনের জন্য সেরা অভিনেতার একাডেমি এওয়ার্ড। তাছাড়া চলচ্চিত্রটি চারটি বাফতা এওয়ার্ডস এবং একটি গোল্ডেন গ্লোভ পায় যা পরবর্তীতে কিয়াটোনকে প্রদান করা হয়। এটি উত্তর আমেটিকার বক্স অফিস থেকে $৩৮,২৫১,৪২৫ আয় করে, যা এলেনের কাজের চতুর্থ সেরা কাজ যদিও তখন মুদ্রাস্ফীতি ছিল।

সর্বকালের সেরা চলচ্চিত্র হিসেবে পরিচিত, এই চলচ্চিত্র সেরা আমেরিকার চলচ্চিত্র হিসেবে ৩১তম স্থানে, সেরা কৌতুক চলচ্চিত্র হিসেবে ৪র্থ স্থানে, আর ব্রাবোর "১০০ কৌতুক চলচ্চিত্র" তে ২৮তম স্থানে অবস্থান করে। চলচ্চিত্র সমালোচক রজার এবার্ট বলেন "এটি সবার প্রিয় উডি এলেনের চলচ্চিত্র"।[৩] রাইটার্স গিল্ড অফ আমেরিকা এর "১০১ কৌতুক চিত্রনাট্য" তে এই চলচ্চিত্রের চিত্রনাট্যকে সবচেয়ে হাসির চিত্রনাট্য বলা হয়।[৪] ১৯৯২সালে, যুক্তরাষ্ট্রের লাইব্রেরি অফ কংগ্রেস এই চলচ্চিত্রকে জাতীয় চলচ্চিত্র রেজিস্ট্রিতে সংরক্ষণের জন্য নির্বাচন করে যেটি "সাংস্কৃতিকভাবে, ঐতিহাসিকভাবে বা নান্দনিকভাবে" সেরা চলচ্চিত্রগুলোকে অন্তর্ভুক্ত করে।[৫]

অভিনয়েসম্পাদনা

 
১৯৫৯ সালে ট্রুমান কাপোতের ছবি, এই চলচ্চিত্রে যার একটি অতিথি চরিত্র ছিল।
  • আলভি সিঙ্গার হিসেবে উডি এলেন
  • অ্যানি হল হিসেবে ডায়ান কিয়াটোন
  • রব হিসেবে টনি রবার্টস
  • এলিসন পোর্টনিক হিসেবে ক্যারোল কেইন
  • টনি ল্যাসে হিসেবে পল সাইমন
  • রবিন হিসেবে জ্যানেট মার্গোলিন
  • প্যাম হিসেবে শ্যালে ডুভাল
  • ডুয়ান হল হিসেবে ক্রিস্টোফার ওয়াকেন[ক]
  • মিসেস হল হিসেবে কলিন ডিউহার্স্ট
  • মি. হল হিসেবে ডোনাল্ড সায়মিংটন
  • মিসেস সিঙ্গার হিসেবে জোয়ান নিউমান
  • নিজস্ব ভূমিকায় মার্শাল ম্যাকলুহান
  • আলভির বাবা হিসেবে মর্দেকাই লনার

ট্রুমান কাপোতের একটি অতিথি চরিত্র রয়েছে। আলভি হেঁটে যাওয়া লোকদের নিয়ে ঠাট্টা করছে। সে বলে "ট্রুমান কাপোতের মতো দেখার প্রতিযোগিতায় একজন বিজয়ী পাওয়া গিয়েছে" যখন ট্রুমান কাপোতে ক্যামেরার সামনে দিয়ে যান।[৭]

কিছু অভিনেতারা বেশি খ্যাতি পেয়েছেন যাদের এই চলচ্চিত্রে ছোট ভূমিকা ছিল: অ্যানির প্রেমিক জেরি হিসেবে জন গ্লোভার; জেফ গোল্ডব্লাম একজন লোক হিসেবে যিনি টনি ল্যাসের ক্রিসমাস অনুষ্ঠানে "তার মন্ত্র ভুলে যান"; রবের টিভি অনুষ্ঠানের একজন অভিনেত্রী হিসেবে বেভারলি ডি'এঙ্গেলো; আর সিগোর্নে ওয়েভারের প্রথম চলচ্চিত্রে, সমাপ্তির সময় সিনেমা ঘরে তাকে আলভির বান্ধবী হিসেবে দেখা যায়।

প্রযোজনাসম্পাদনা

লেখাসম্পাদনা

এলেন যখন সহ-লেখক মার্শাল ব্রিকমানের সাথে নিউ ইয়র্কে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন তখনই অ্যানি হল তৈরির ধারণা আসে। তারা এই ধারনা নিয়ে বিভিন্ন দিন আলোচনা করেছেন, অনেক সময় পরিশ্রান্ত হয়ে এই ধারণাটি বাতিলের কথাও ভেবেছিলেন। এলেন চার দিনে প্রথম চিত্রনাট্যটি লেখেন এবং কিছু পরিবর্তনের জন্য ব্রিকমানের কাছে পাঠান। ব্রিকমানের মতে, সেই লেখনিটি চল্লিশ বছরের একজন ব্যক্তিকে কেন্দ্র করে ছিল যার জীবনে "নানা কিনারা ছিল"। একজনের যুবতী মহিলার সাথে সম্পর্ক ছিল, অন্যজন জীবন নিয়ে চিন্তিত ছিল যেটি আমাদের সবার জীবনেই থাকে, এবং তৃতীয় জনের নিজেকে প্রমাণ করার এবং নিচের চরিত্রকে পরীক্ষা করার অভ্যাস ছিল।[৮] ১৯৭৫সালে এলেন নিজেই চল্লিশে পরিণত হন, আর ব্রিকমান বলেন যে বয়স বাড়া এবং মৃত্যু নিয়ে চিন্তা এলেনের দার্শনিকতা ও তার ব্যবসায়ীক অংশকে ব্যক্তিগতভাবে পূরণ করার বিষয়কে প্রভাবিত করেছে।[৮] এলেন " মানবজাতিকে নিয়ে একটি হাসির গল্প" বানানোর সিদ্ধান্ত নেন।[৯] তিনি বলেন যে প্রথম বারের জন্য সম্পূর্ণ কৌতুক নির্ভর চলচ্চিত্র না বানাতে তার সাহস হয় আর তার ইচ্ছা হয় গভীর মানের একটি চলচ্চিত্র প্রযোজনা করা যা দর্শকদের মনোরঞ্জন করবে।[২] তাকে প্রভাবিত করেছে ফেডেরিকো ফেল্লিনির ১৯৬৩সালের কৌতুক নাটক , যা একই রকম ব্যাক্তিগত মোড়ে বানানো হয় এবং প্রত্যেক পরিচালক তাদের মনের মতো একইভাবে এটিকেও নির্মাণ করেছেন।[১০]

ব্রিকমান এবং এলেন সংযুক্ত শিল্পী থেকে ৪০লাখ ডলার চাবার আগে তারা চিত্রনাট্যটি অনেকের কাছে পাঠান।[১০] প্রথম দিকের লেখনির অনেক অংশ টিকে থাকেনি। এটি আসলে কৌতুক ও রোমান্টিক ধাচে তৈরি একটি খুন রহস্যের চিত্রনাট্য ছিল।[১১] এলেনের মতে, খুনটি মূলত চলচ্চিত্রে থাকা একটি দৃশ্যের পরে ঘটে, যেই দৃশ্যে অ্যানি এবং আলভি ইংগমার বার্জম্যানের চলচ্চিত্র ফেস টু ফেসকে মনে করে।[১২] যদিও তারা খুনের কাহিনী বাদ দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন, এলেন এবং ব্রিকমান খুন রহস্য নিয়ে অনেক বছর পরে চলচ্চিত্র বানান: ১৯৯৩সালের ম্যানহাটান মার্ডার মিসারি, যেটিতেও ডায়ান কিয়াটোন অভিনয় করেছেন।[১৩] যেই লেখনিটি এলেন চলচ্চিত্র সম্পাদক রাফ রোজেনব্লামের কাছে দিয়েছিলেন, সেটিতে লেখা ছিল "এন্ডিং টু বি শট" (শেষাংশ নির্মাণ করতে হবে)।[১৪]

মুক্তিসম্পাদনা

বক্স অফিসসম্পাদনা

অ্যানি হল ২০এপ্রিল ১৯৭৭সালে আনুষ্ঠানিক মুক্তির পূর্বে মার্চে লস এঞ্জেলস চলচ্চিত্র উৎসবে দেখানো হয়।[১][১৫] $৪মিলিয়ন বাজেটের পরিবর্তে এই চলচ্চিত্র যুক্তরাষ্ট্রে $৩৮,২৫১,৪২৫ (২০১৩সালে $১৪৩,২২৮,৪০০) আয় করে, যা ১৯৭৭সালের চলচ্চিত্রে ১১তম সর্বোচ্চ আয় করা চলচ্চিত্র।[১] সাংখ্যিকভাবে, এটি এলেনের চতুর্থ সেরা আয়ের চলচ্চিত্র, যেটি ম্যানহেটেন, হান্নাহ এন্ড হার সিস্টার্স, এবং মিডনাইট ইন প্যারিস এর পরে অবস্থিত; মুদ্রাস্ফিতীতে খাপ খাওয়ানোর পরে আয়ের অংকটি বক্স অফিসে এলেনের সবচেয়ে বড় সফলতা হিসেবে রূপ নেয়।[১৬] এটি ব্লুরে হিসেবে প্রথম মুক্তি পায় ২৪জানুয়ারি, ২০১২সালে আর পাশাপাশি মুক্তি পায় এলেনের ১৯৭৯সালের চলচ্চিত্র ম্যানহেটেন[১৭] উভয় মুক্তিতে আসল চলচ্চিত্রের ট্রেইলার অন্তর্ভুক্ত থাকে।[১৭]

পুরস্কার এবং প্রশংসাসম্পাদনা

Academy Awards
১. সেরা চলচ্চিত্র, চার্লস হ. জোফে
২. সেরা পরিচালক, উডি এলেন
৩. মূখ্য ভূমিকায় সেরা অভিনেত্রী, ডায়ান কিয়াটোন
৪. সেরা চিত্রনাট্য, উডি এলেন এবং মার্শাল ব্রিকম্যান
গোল্ডেন গ্লোভ এওয়ার্ডস
১. গান ও কৌতুক চলচ্চিত্রে সেরা অভিনেত্রী, – ডায়ান কিয়াটোন
বাফটা এওয়ার্ডস
১. সেরা চলচ্চিত্র
২. সেরা পরিচালনা, উডি এলেন
৩. সেরা অভিনেত্রী, ডায়ান কিয়াটোন
৪. সেরা এডিটিং, রাফ রোজেনব্লাম, ওয়েন্ডি গ্রিন ব্রিকমন্ট
৫. সেরা চিত্রনাট্য, উডি এলেন, মার্শাল ব্রিকম্যান

৩এপ্রিল,১৯৭৮সালের ৫০তম একাডেমি এওয়ার্ডস এ অ্যানি হল চারটি অস্কার পায় এবং সর্বমোট পাঁচটির জন্য মনোনয়ন পেয়েছিল। প্রযোজক চার্লস হ. জোফে সেরা চলচ্চিত্রের জন্য মূর্তিটি পায়, এলেন সেরা পরিচালনার জন্য, এলেন ও ব্রিকম্যান একসাথে সেরা চিত্রনাট্যের জন্য, আর কিয়াটোন সেরা অভিনেত্রী হিসেবে পুরস্কার পান। সেরা অভিনেতা হিসেবে এলেনও মনোনয়ন পেয়েছিলেন।[১৮] ব্রিকম্যান এবং সহ প্রযোজক রবার্ট গ্রিণহাট সহ অনেকেই ভেবেছিলেন মূল পুরস্কারগুলো স্টার ওয়ার্স পাবে।[৯]

বাফতা এওয়ার্ডসে চলচ্চিত্রটি চারবার পুরস্কৃত হয়। সেরা চলচ্চিত্রের পাশাপাশি, কিয়াটোন সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পায়, এলেন সেরা পরিচালনায় পুরস্কার পায় এবং ব্রিকম্যান সেরা চিত্রনাট্যের পুরস্কার পায়। [১৯] চলচ্চিত্রটি গান বা কৌতুকে সেরা অভিনেত্রীর (ডায়ান কিয়াটোন) জন্য শুধু একটি গোল্ডেন গ্লোভ এওয়ার্ড পায়, যেখানে এটি তিনটি মনোনয়ন পায়: সেরা চলচ্চিত্র (গান বা কৌতুক, সেরা পরিচালক, এবং গান বা কৌতুকে সেরা অভিনেতা (উডি এলেন)।

১৯৯২সালে, যুক্তরাষ্ট্রের লাইব্রেরি অফ কংগ্রেস এই চলচ্চিত্রকে জাতীয় চলচ্চিত্র রেজিস্ট্রিতেসংরক্ষণের জন্য নির্বাচন করে যেটি "সাংস্কৃতিকভাবে, ঐতিহাসিকভাবে বা নান্দনিকভাবে" সেরা চলচ্চিত্রগুলোকে অন্তর্ভুক্ত করে।[৫] এই চলচ্চিত্রকে মাঝে মাঝে সর্বকালের সেরা কৌতুক হিসেবে উল্লেখ করা হয়। দ্যা আমেরিকান ফিল্ম ইনস্টিটিউট এটিকে আমেরিকার চলচ্চিত্র ইতিহাসে ৩১তম স্থানে তালিকাভুক্ত করেছে।[২০] ২০০০সালে, তারা আমেরিকার চলচ্চিত্রে এটিকে দ্বিতীয় সেরা রোমান্টিক কমেডি হিসেবে ঘোষণা করে।[২০] "সিমস্ লাইক ওল্ড টাইমস" গানটিতে কিয়াটোনের অভিনয়কে সেরা চলচ্চিত্রে অন্তর্ভুক্ত গানের তালিকায় ৯০তম স্থান দেয়া হয়, এবং তার লাইন "লা-দে-দা, লা-দে-দা" কে ৫৫তম সেরা চলচ্চিত্র উক্তি হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয়।[২০] এটির চিত্রনাট্যকে রাইটার্স গিল্ড অফ আমেরিকা সেরা চিত্রনাট্যের ৬ষ্ঠ স্থান দেয়া হয়।[২১] আবার ইজিএন এটিকে সর্বকালের সেরা কৌতুক চলচ্চিত্র হিসেবে সপ্তম স্থান দেয়।[২২] ২০০০সালে, টোটাল ফিল্ম সাময়িকীর পাঠকরা এটিকে সর্বকালের ৪২তম সেরা চলচ্চিত্র এবং ৭ম সেরা রোমান্টিক কমেডি চলচ্চিত্র হিসেবে ভোট দেয়।[২৩] এলেনের সেরা চলচ্চিত্রের মাঝে অ্যানি হল কে সবথেকে সেরা হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে।[২৪][২৫][২৬]

২০০৮সালের জুনে, এএফআই ১০ সেরা ১০ মুক্তি দেয়- ১০টি আমেরিকান সিনেমার শ্রেণিবিভাগে ১০টি সেরা চলচ্চিত্র-১,৫০০লোকের সম্প্রদায় থেকে ভোট নেওয়ার পরে এবং রোমান্টিক কমেডি শাখায় অ্যানি হল দ্বিতীয় স্থান লাভ করে।[২৭] এএফআই আরও তালিকায় অ্যানি হলকে অন্তর্ভুক্ত করে। ২০০৭সালের নভেম্বরে, এম্পায়ার সাময়িকীর সর্বকালের সেরা ৫০০ চলচ্চিত্র তালিকায় অ্যানি হল কে ৬৮নাম্বার স্থান দেয়।[২৮] তাছাড়া রটেন টমেটোর ২৫সেরা রোমান্টিক কমেডির তালিকায় এটি #২ নাম্বার স্থানে রয়েছে, প্রথমে রয়েছে দ্যা ফিলাদেলফিয়া স্টোরি[২৯] ২০১২সালে, সাইট এন্ড সাইন্ড এর সমালোচক ভোটে এই চলচ্চিত্রটি ১২৭তম সর্বকালের সেরা চলচ্চিত্র হয়।[৩০] এই চলচ্চিত্রটি সাইট এন্ড সাউন্ড এর পরিচালকদের ভোটে ১৩২তম সেরা চলচ্চিতৃর হয়।[৩০] ২০১৩সালের অক্টোবরে, গার্ডিয়ান পাঠকদের ভোটে এই চলচ্চিত্রটি উডি এলেনের দ্বিতীয় সেরা চলচ্চিত্র হিসেবে ভূষিত হয়।[৩১] ২০১৫সালের নভেম্বরে, রাইটার্স গিল্ড অফ আমেরিকার ১০১ সবচেয়ে হাস্যকর চিত্রনাট্য তালিকায় এই চলচ্চিত্রটিকে সবচেয়ে হাস্যকর চিত্রনাট্য হিসেবে উল্লেখ করা হয়।[৩২]

চলচ্চিত্রটি নিম্নের আমেরিকান ফিল্ম ইনস্টিটিউট এর তালিকাগুলোতে অন্তর্ভুক্ত:

২০০৬সালে, প্রিমিয়ার সাময়িকি অ্যানি হলে কিয়াটোনের অভিনয়কে "সর্বকালের ১০০ সেরা অভিনয়" এর তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করে এবং বর্ণনা করে:

বোকামির অভিনয় করা খুবই কষ্টকর। ... অ্যানির দক্ষতা হলো তার খারাপ ব্যাকহেন্ড, খারাপ গাড়ি চালানো এবং চিন্তার সময় হাত কাঁপলেও তিনি খুব জটিল এবং বুদ্ধিমান মহিলা। কিয়াটোন তার চরিত্রের দুটি রূপকে খুব বুদ্ধিমানভাবে প্রদর্শন করেছেন, বিশেষ করে আলভির (উডি এলেন) সাথে প্রথম সাক্ষাতে যখন সে মনে মনে কথা বলে, তখন সে বলে, 'হি প্রোভ্যাবলি থিংকস আই এম এ ইয়ো ইয়ো।' ইয়ো-ইয়ো? খুবই শান্তভাবে।[৪০]

সমালোচক বিশ্লেষণসম্পাদনা

ভালোবাসা এবং যৌনতাসম্পাদনা

 
২০০৬সালে নিউ ইয়র্ক শহরে উডি এলেন

সমাজবিজ্ঞানী ভার্জিনিয়া রাটার এবং পিপার স্কয়ার্টজ আলভি এবং অ্যানির সম্পর্ককে যৌনতায় লিঙ্গ বৈষম্যের রূপক হিসেবে উল্লেখ করেছেন।[৪১] এলেনের জীবনে ভালোবাসার পুনরাবৃত্তি ঘটে এবং সহ-অভিনেতা টনি রবার্টস এই চলচ্চিত্র সম্পর্কে বলেন, "এই গল্পটি যারা প্রেমে পড়ে তাদের জন্য, এবং প্রেমে ব্যর্থ হয়ে আবার বেঁচে থাকে তাদের জন্য।"[৯] আলভির সাথে অ্যানির সম্পর্কে ব্যর্থতায় তার বিষন্নতা কাটিয়ে উঠতে আলভি ভালোবাসার কারণ খুঁজে বেরায়। কিছুসময় সে তার সম্পর্কের স্মৃতিগুলোকে পর্যবেক্ষণ করে, একটি সময় সে একজন মহিলার সাথে ফুটপাথে দাড়িয়ে বলে, " এটি আপনি কখনো করতে চান না। কিন্তু মানুষ এরকমই। এভাবেই ভালোবাসা হারিয়ে যায়।" এই পরামর্শ থেকে জানা যায় যে এটি কারোরই দোষ নয়, তারা আলাদাভাবে বেড় উঠেছিল এবং এটির সমাপ্তি হওয়া অনিবার্য ছিল। চলচ্চিত্রের শেষে, আলভি এটিকে মেনে নেয় এবং সিদ্ধান্তে পৌছায় যে ভালোবাসা হলো, "যুক্তিহীন এবং পাগলামী এবং হাস্যকর" কিন্তু এটি জীবনের জন্য প্রয়োজনীয়।[৪২] ক্রিস্টোফার নাইট বলেন আলভির অ্যানিকে দেখার ইচ্ছা মূলত যৌনসঙ্গমকামী যা মূলত আবেগপূর্ণ।[৪৩]

দ্যা নিউ ইয়র্কার এর রিচার্ড ব্রোডি বলেন চলচ্চিত্রটি "ইউরোপকেন্দ্রিক শিল্পে আত্মসচেতনতা" বাড়িয়েছে এবং আলভি সিঙ্গারের "যৌন চাহিদা এবং নিরাশা, প্রেমে ব্যর্থতা এবং স্নায়ুর বাধা" কে বর্ণনা করেছে।[৪৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Annie Hall, Box Office Information"Box Office Mojo। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৯, ২০১২ 
  2. Björkman 1995, পৃ. 75
  3. Ebert, Roger (মে ১২, ২০০২)। "Great Movies: Annie Hall"The Chicago Sun-Times। ডিসেম্বর ৩০, ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ২৩, ২০০৭ 
  4. McNary, Dave (নভেম্বর ১১, ২০১৫)। "'Annie Hall' Named Funniest Screenplay by WGA Members"Variety 
  5. "The National Film Registry List"Library of Congress। National Film Preservation Board। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৮, ২০১২ 
  6. Sim, David (মার্চ ৩১, ২০১৯)। "To celebrate Christopher Walken's 76th birthday, we rank his best 20 movies"Newsweek। সংগ্রহের তারিখ মে ৫, ২০১৯ 
  7. "Clip from Annie Hall"YouTube। সংগ্রহের তারিখ ১ এপ্রিল ২০১৯ 
  8. Rosenblum ও Karen 1986, পৃ. 274
  9. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; PBSdocumentary নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  10. Baxter 1999, পৃ. 241
  11. Lax 2000, পৃ. 283
  12. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; Björkman79 নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  13. Mitchell 2001, পৃ. 123।
  14. Rosenblum ও Karen 1986, পৃ. 262
  15. উদ্ধৃতি ত্রুটি: অবৈধ <ref> ট্যাগ; baxter245 নামের সূত্রের জন্য কোন লেখা প্রদান করা হয়নি
  16. "Woody Allen Movie Box Office Results"Box Office Mojo। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২০, ২০১২ 
  17. Nashawaty, Chris (জানুয়ারি ২৪, ২০১২)। "Annie Hall Review"Entertainment Weekly। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৯, ২০১২ 
  18. Cowie 1996, পৃ. 9
  19. "Awards Database"। Bafta.org। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৯, ২০১২ 
  20. "AFI's Top Ten Epic" (PDF)American Film Institute। জুলাই ১৬, ২০১১ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জানুয়ারি ১৯, ২০১০ 
  21. "101 List"Writers Guild of America। আগস্ট ১৩, ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২০, ২০১২ 
  22. "Top 25 Comedies of All-Time"IGN। মার্চ ১৩, ২০১২। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২০, ২০১২ 
  23. Winning, Josh (জানুয়ারি ১২, ২০০৯)। "Best & Worst: Romantic Comedies"Total Film। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৮, ২০১২ 
  24. "Ranked: Woody Allen Films from Worst to Best – Page 5"। Nerve.com। মে ১৭, ২০১১। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৮, ২০১২ 
  25. on January 27, 2009 By Jeremy Medina (জানুয়ারি ২৭, ২০১১)। "He Adored New York City: Woody Allen's 10 Finest Films"Paste। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৮, ২০১২ 
  26. "5 Best Woody Allen Movies"Screen Junkies। জুলাই ১৪, ২০১০। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ২৮, ২০১২ 
  27. "AFI's 10 Top 10"American Film Institute। জুন ১৭, ২০০৮। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৫, ২০১৪ 
  28. "Empire's The 500 Greatest Movies of All Time"Empire magazine। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৮, ২০১২ 
  29. "Best Romantic Comedies/Rank 2"Rotten Tomatoes। সংগ্রহের তারিখ জুন ২৪, ২০১২ 
  30. "Annie Hall"'British Film Institute। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১৯, ২০১২ 
  31. "The 10 best Woody Allen films"The Guardian। অক্টোবর ৪, ২০১৩। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ২২, ২০১৪ 
  32. "101 Funniest Screenplays List"Writers Guild of America, West। নভেম্বর ১১, ২০১৫। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৪, ২০১৫ 
  33. "AFI's 100 Years...100 Movies" (PDF)American Film Institute। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৬, ২০১৬ 
  34. "AFI's 100 Years...100 Laughs" (PDF)American Film Institute। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৬, ২০১৬ 
  35. "AFI's 100 Years...100 Passions" (PDF)American Film Institute। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৬, ২০১৬ 
  36. "AFI's 100 Years...100 Songs" (PDF)American Film Institute। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৬, ২০১৬ 
  37. "AFI's 100 Years...100 Movie Quotes" (PDF)American Film Institute। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৬, ২০১৬ 
  38. "AFI's 100 Years...100 Movies (10th Anniversary Edition)" (PDF)American Film Institute। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৬, ২০১৬ 
  39. "AFI's 10 Top 10: Top 10 Romantic Comedy"American Film Institute। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ১৬, ২০১৬ 
  40. "100 Greatest Performances of All Time". Premiere magazine. April 2006.
  41. Rutter ও Schwartz 2012, পৃ. 45
  42. Pennington 2007, পৃ. 72।
  43. Knight 2004, পৃ. 217
  44. Brody, Richard (জুন ২৫, ২০১২)। "It Begins Now"The New Yorker। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১২, ২০১৪ 

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

টেমপ্লেট:Woody Allen


উদ্ধৃতি ত্রুটি: "lower-alpha" নামক গ্রুপের জন্য <ref> ট্যাগ রয়েছে, কিন্তু এর জন্য কোন সঙ্গতিপূর্ণ <references group="lower-alpha"/> ট্যাগ পাওয়া যায়নি, বা বন্ধকরণ </ref> দেয়া হয়নি