অশ্লেষা

নক্ষত্র

অনতিউজ্জ্বল ৫ তারা মিলে গড়েছে অশ্লেষা নামের ভারতীয় জ্যোতির্বজ্ঞানের ২৮ নক্ষত্রের ৯ম এ সদস্যাকে। প্রাচীন তথা ঋগ্বেদীয় ঋষিদের দেয়া নাম অহি বা সাপ,[১] সৈন্ধান্তিকরা বলে অশ্লেষা। আধুনিক জ্যোতির্বিজ্ঞান অনুসারে এই নক্ষত্রের নাম ঈষিতিনী, মালতিনী, অতিনী, রোদিনীপীনোন্নতিনী

বাসকির শীর্ষস্থ পঞ্চতারা অশ্লেষা

আকাশে অবস্থানসম্পাদনা

বাসুকি নক্ষত্রমন্ডলভুক্ত অশ্লেষা পৃথিবী থেকে দৃশ্য আকাশমন্ডলের ১০৬ অংশ ৪০ কলা থেকে ১২২ অংশ (16°40'-30° Hydra) পর্যন্ত বিস্তৃত ।

ঋগ্বেদীয় ঋষিদের অশ্লেষা-চিন্তাসম্পাদনা

ঋগ্বেদীয় ঋষি ঋজিস্বা অহি তথা সাপ তথা অশ্লেষা নক্ষত্রের বন্দনায় বলছে : ' সূর্যতল্য সুজ্যোতিষ্ক অগ্নিজিভী দ্বিজন্মা ঋতসাপ, সত্যপালক এই দক্ষপিতৃনাগ তার সুমহান তেজোবীথি দেবতাদের সর্বান্তে প্রয়াণ করতে দিয়েছে।[২]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Archived copy"। ৮ সেপ্টেম্বর ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৭ অক্টোবর ২০১২ 
  2. ঋগ্বেদ ৬.৫০.২