গ্রানভিল ডি সিলভা

শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার
(Granville de Silva থেকে পুনর্নির্দেশিত)

গ্রানভিল নিশঙ্কা ডি সিলভা (সিংহলি: ග්‍රැන්විල් ද සිල්වා; জন্ম: ১২ মার্চ, ১৯৫৫) কলম্বোয় জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা ও সাবেক শ্রীলঙ্কান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার।[১][২][৩] শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি।

গ্রানভিল ডি সিলভা
ග්‍රැන්විල් ද සිල්වා
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামগ্রানভিল নিশঙ্কা ডি সিলভা
জন্ম (1955-03-12) ১২ মার্চ ১৯৫৫ (বয়স ৬৫)
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট মিডিয়াম
ভূমিকাবোলার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৩৪)
৩০ এপ্রিল ১৯৮৩ বনাম অস্ট্রেলিয়া
শেষ ওডিআই২৮ জানুয়ারি ১৯৮৫ বনাম অস্ট্রেলিয়া
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই
ম্যাচ সংখ্যা -
রানের সংখ্যা -
ব্যাটিং গড় - ৯.০০
১০০/৫০ -/- -/-
সর্বোচ্চ রান -
বল করেছে - ১৯৪
উইকেট -
বোলিং গড় - -
ইনিংসে ৫ উইকেট - -
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং - -
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং -/- -/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১৬ অক্টোবর ২০১৯

১৯৮৩ থেকে ১৯৮৫ সময়কালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে শ্রীলঙ্কার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন। দলে তিনি মূলতঃ ডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম বোলার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, নিচেরসারিতে ডানহাতে ব্যাটিং করতেন গ্রানভিল ডি সিলভা

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

১৯৮২-৮৩ মৌসুম থেকে ১৯৮৪-৮৫ মৌসুম পর্যন্ত গ্রানভিল ডি সিলভা’র প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল।

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে চারটিমাত্র ওডিআইয়ে অংশগ্রহণ করার সুযোগ পেয়েছিলেন গ্রানভিল ডি সিলভা। কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করতে পারেননি। ৩০ এপ্রিল, ১৯৮৩ তারিখে কলম্বোয় সফরকারী অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে তার। ২৮ জানুয়ারি, ১৯৮৫ তারিখে অ্যাডিলেডে একই দলের বিপক্ষে সর্বশেষ ওডিআইয়ে অংশ নেন তিনি।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Players / Sri Lanka / ODI caps"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 
  2. "Sri Lanka ODI Batting Averages"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 
  3. "Sri Lanka ODI Bowling Averages"Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৬ অক্টোবর ২০১৯ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা