সেন্ট যোসেফস্ স্কুল এন্ড কলেজ

সেন্ট যোসেফস্ স্কুল এন্ড কলেজ নাটোর জেলার বনপাড়ায় অবস্থিত একটি বিদ্যালয়। খ্রিস্টান ধর্মপ্রচারকদের দ্বারা প্রতিষ্ঠিত বিদ্যালয়টির যাত্রা শুরু হয় ১৯৬৩ সালে। স্কুলটি ২০১৩ সালে ৫০ বছরের জুবিলী পালন করেছে। [১]

সেন্ট যোসেফস্ স্কুল এন্ড কলেজ
মিশন স্কুল
Stjos.jpg
অবস্থান
বনপাড়া, নাটোর

তথ্য
ধরনমিশনারি
নীতিবাক্যটেমপ্লেট:Lang-lbn
(শিখি ও সেবা করি।)
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৬৩
প্রতিষ্ঠাতাফা: কানেভল্লী
অধ্যক্ষফাঃ শংকর ডমিনিক গমেজ
শ্রেণীনার্সারি থেকে দ্বাদশ
শিক্ষার্থী সংখ্যা২০০০ জন (প্রায়)
ক্যাম্পাসের ধরনঅনাবাসিক ও আবাসিক
ওয়েবসাইট

ইতিহাসসম্পাদনা

১৯৩০ সালে খ্রিস্টান ধর্মপ্রচারক কানেভল্লীর সহযোগিতায় সেন্ট যোসেফস্ প্রাথমিক বিদ্যালয় এর যাত্রা শুরু হয়। পরে ফাদার কাত্তানেয় এর চেষ্টায় ৫ম শ্রেণী খোলা হয়। শিক্ষক হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত হন পলিক গমেজ, যোসেফ ছৈয়াল, প্রয়াত ডানিয়েল কোড়াইয়া, প্রয়াত যোসেফ রোজারিও, প্রয়াত ফ্রান্সিস কস্তা ও লুইজা দিদি মনি। এরপর কানেভল্লীর আহ্বানে প্রয়াত আঃ ছাত্তার চৌধুরী শিক্ষক ও পরামর্শক হিসেবে যুক্ত হন। ১৯৬৩ সালে ভেরপল্লী ও চেসকাতোর অক্লান্ত চেষ্টায় বর্তমান গীর্জার সংলগ্ন চত্বরে নির্মিত হয় ১১ কক্ষ বিশিষ্ট ইংরেজি U আকৃতির বৃহদাকার এই স্কুল। এতে ব্যবহৃত জমিটি দান করেন মরহুম রহিম উদ্দিন মৃধা ও কাউন্সিলর চেয়ারম্যান মরহুম রকিব উল্লাহ মৃধা এবং সার্বিক সহযোগিতা করেন মরহুম সাব্দুল আলী প্রমাণিক। এ সময়েই স্কুলটি জুনিয়র হাই স্কুলে উন্নিত করা হয়।

২০১৫ সালে এর কলেজ শাখা উদ্বোধন করা হয়। ২০১৮ সালে সেন্ট যোসেফস্ প্রাইমারি স্কুলকে সেন্ট যোসেফস্ হাইস্কুলের সাথে যুক্ত করা হয় এবং পুনঃনামকরণ করে সেন্ট যোসেফস স্কুল এন্ড কলেজ করা হয়।

বর্তমানে প্রাথমিক শাখার শিক্ষাথী সংখ্যা ৯৫০ জন এবং মাধ্যমিক শাখার শিক্ষাথী সংখ্যা ১৩৫৬ জন। অধ্যক্ষ ড. ফ. শংকর ডমিনিক গমেজের নেতৃত্বে প্রাইমারি শাখায় ১৫ জন শিক্ষক, মাধ্যমিক শাখায় ৩৭ জন শিক্ষক এবং কলেজ শাখায় ২০ জন প্রভাষক শিক্ষা দিয়ে যাচ্ছেন।


শিক্ষা কার্যক্রমসম্পাদনা

পাঠ্যক্রমসম্পাদনা

এই প্রতিষ্ঠানে নার্সারি থেকে ১২শ শ্রেণী পর্যন্ত ছাত্রদের পাঠদান করা হয়। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণীতে বিজ্ঞান, মানবিকবাণিজ্য শাখায় শিক্ষার্জনের সুযোগ রয়েছে।

পাঠদান পদ্ধতিসম্পাদনা

পর্বশেষ পরীক্ষা ছাড়াও প্রতি পর্বে দু'টি করে শ্রেণী-পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়।

ফলাফলসম্পাদনা

প্রতিষ্ঠাকালীন সময় হতে ঢাকা সেন্ট যোসেফস স্কুল এন্ড কলেজ পি.এস.সি, জে.এস.সি, এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি পরীক্ষায় কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল করছে। ২০১৭ হতে ২০১৮ পর্যন্ত ঢাকা সেন্ট যোসেফস স্কুল এন্ড কলেজের এইস.এসচসি পরীক্ষার ফলাফল নিম্নরূপঃ

শিক্ষাবর্ষ ছাত্রসংখ্যা উত্তীর্ণ ছাত্র পাসের শতকরা হার জি.পি.এ-৫ প্রাপ্ত ছাত্রের সংখ্যা
২০১৮ ১৫২ ১২৬ ৮২.৮৯% ০৬
২০১৭ ১৪৬ ১৩৯ ৯৫.২১% ০৭

২০০৬ হতে ২০০৯ সাল পর্যন্ত এস.এস.সি পরীক্ষায় এ প্রতিষ্ঠানের ফলাফল নিম্নরূপঃ

শিক্ষাবর্ষ ছাত্রসংখ্যা উত্তীর্ণ ছাত্রসংখ্যা পাসের শতকরা হার জি.পি.এ-৫ প্রাপ্ত ছাত্রসংখ্যা
২০১৭ ২৩৯ ২৩৮ ৯৯.৫৮% ৫৭
২০১৮ ২৬০ ২৫৬ ৯৮.৫৮% ৫৩
২০১৯ ২৬৬ ২৬৪ ৯৯.৬২% ৫৪

সাফল্যসম্পাদনা

১৯৮৭ সালে শ্রেষ্ঠত্বের জন্য বিদ্যালয়টি জাতীয় পুরস্কার লাভ করে। এছাড়া ১৯৮৮, ১৯৯১ ও ২০১০ সালে এই বিদ্যালয়টি নাটোর জেলার শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয়ের স্বীকৃতি লাভ করে।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. ৫০ বছরের জুবিলী স্মরণীকা, সেন্ট যোসেফস্ উচ্চ বিদ্যালয়, বনপাড়া, নাটোর