সরকারি বিজ্ঞান কলেজ

সরকারি বিজ্ঞান কলেজ বাংলাদেশের ঢাকার ফার্মগেট এলাকায় অবস্থিত। প্রথমে ইন্টারমেডিয়েট টেকনিক্যাল কলেজ নাম ছিল। ০৯ একর ভূমির উপর স্থাপিত এই কলেজ।এই কলেজে শুধুমাত্র মাধ্যমিক (এইচএসসি) অধ্যয়নের সুযোগ আছে। [১][২][৩]

সরকারি বিজ্ঞান কলেজ
সরকারি বিজ্ঞান কলেজ.jpg
অবস্থান

তথ্য
ধরনসরকারি
নীতিবাক্য
  • শৃঙ্খলা
  • শিক্ষা
  • চরিত্র
  • উন্নতি
প্রতিষ্ঠাকাল১৯৫৪
বিদ্যালয় কোড108535
অধ্যক্ষআইয়ুব আলী ভূঁইয়া
উপাধ্যক্ষতানজিনা ফেরদৌস
কর্মকর্তা৫০+
অনুষদ
শ্রেণী
  • একাদশ-দ্বাদশ
লিঙ্গশুধুমাত্র ছেলে
শিক্ষার্থী সংখ্যা~২৫০০
ভাষার মাধ্যমবাংলা মাধ্যম
শিক্ষায়তন০৯ একর
রঙ    আকাশী নীল     হালকা ধূসর
ক্রীড়াফুটবল,ক্রিকেট,
ডাকনামসবিক
অন্তর্ভুক্তিঢাকা শিক্ষা বোর্ড
ওয়েবসাইট

ইতিহাসসম্পাদনা

কলেজটি ১৯৫৪ খ্রিস্টাব্দে টেকনিক্যাল হাই স্কুল নামে যাত্রা শুরু করে। ১৯৬২ খ্রিস্টাব্দে ইন্টারমেডিয়েট টেকনিক্যাল কলেজ হিসেবে পুন:নামকরন করা হয়। ১৯৮৫ খ্রিস্টাব্দে বি.এসসি কোর্স চালুর মাধ্যমে সরকারি বিজ্ঞান কলেজ হিসেবে কার্যক্রম শুরু করে।[৪][৫]

বিভাগ সমূহসম্পাদনা

বিজ্ঞান বিভাগ

পঠিত বিষয় সমূহঃ বাংলা, ইংরেজি, পদার্থবিজ্ঞান, রসায়ন, গণিত, জীববিজ্ঞান, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

ভর্তি ও বেতনসম্পাদনা

মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক জারীকৃত নীতিমালা অনুযায়ী ভর্তি করা হয়ে থাকে কলেজে। সরকার কর্তৃক নির্ধারিত বেতন ও ফি নেয়া হয় ।

শ্রেণি ও শাখাসম্পাদনা

আটটি শাখায় ১৬৫ জন করে ছাত্র এখানে পড়াশোনার সুযোগ পেয়ে থাকে। শাখাগুলোর নাম যথাক্রমে A, B, C, D, E, F, G, H। ভর্তির ক্রমানুসারে শিক্ষার্থীদের শাখাগুলোয় বিভক্ত করা হয়।

পোশাকসম্পাদনা

আকাশী নীল শার্ট, অফ হোয়াইট প্যান্ট, কালো মোজা, কালো জুতা, আর শীতের সময়ে নীল সোয়েটার।[৬]

আবাসন ব্যবস্থাসম্পাদনা

কলেজের দুটি ছাত্রাবাস রয়েছে, একটির নাম কাজী নজরুল ইসলাম ছাত্রাবাস, অপরটি ড. কুদরত ই খুদা ছাত্রাবাস। একটিতে একাদশ এবং অপরটিতে দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্ররা থাকেন। একটি দুই হল এ সর্বমোট আসন সংখ্যা প্রায় ৩০০। ছাত্রাবাসের বর্তমান তত্ত্বাবধায়ক হিসেবে আছেন মোঃ সালাহ্উদ্দিন (সহকারী অধ্যাপক, গণিত বিভাগ)।

কাজী নজরুল ইসলাম হল এর ম্যানেজার মোঃ অলিউল্লাহ এবং ড. কুদরত-ই খুদা হল এর ম্যানেজার মোঃ জামাল মিয়া।

সহশিক্ষা কার্যক্রমসম্পাদনা

ছাত্রদের পড়াশোনার পাশাপাশি নৈতিক উন্নয়ন ও তাদের মাঝে নেতৃত্বের গুণাবলী বিকাশের লক্ষে চালু আছে সরকারি বিজ্ঞান কলেজ বিএনসিসি প্লাটুন। এছাড়া ছাত্রদের সহশিক্ষা কার্যক্রমের অংশ হিসাবে কলেজের নিজস্ব বিতর্ক ক্লাব 'সরকারী বিজ্ঞান কলেজ বিতর্ক ক্লাব', সরকারী বিজ্ঞান কলেজ বিজ্ঞান ক্লাব, ফটোগ্রাফি ক্লাব, স্পোর্টস ক্লাব, তথ্য প্রযুক্তি ক্লাব ও সাংস্কৃতিক ক্লাব রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে চেতনা পরিষদ এর একটি শাখা। নির্দিষ্ট কর্মসূচীর সাথে পালন করা হয়ে থাকে।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

উল্লেখযোগ্য প্রাক্তন শিক্ষার্থীসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "সরকারি বিজ্ঞান কলেজ, তেজগাঁও, ঢাকা"gsctd.edu.bd। ২০২০-০৫-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-৩০ 
  2. "নামেই বিজ্ঞান কলেজ!"প্রথম আলো। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-৩০ 
  3. "সমস্যার পাহাড়ে ধুঁকছে ঢাকার ঐতিহ্যবাহী ১০ সরকারী কলেজ || প্রথম পাতা"জনকন্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৭-৩০ [স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  4. "GSC"govtsciencecollege.com। ৯ আগস্ট ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১১ 
  5. নিজামুল, হক (১৪ জুন, ২০১৪)। "সরকারি বিজ্ঞান কলেজে দ্বিগুণ শিক্ষক"ইত্তেফাক। সংগ্রহের তারিখ ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ=, |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  6. "সরকারি বিজ্ঞান কলেজ, তেজগাঁও, ঢাকা"gsctd.edu.bd। ২০২০-০৭-৩০ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০২১-০২-১৫