রনি স্ট্যানিফোর্থ

ইংরেজ ক্রিকেটার

লেফটেন্যান্ট কর্নেল রোনাল্ড টমাস রনি স্ট্যানিফোর্থ, এমসি (ইংরেজি: Rony Stanyforth; জন্ম: ৩০ মে, ১৮৯২ - মৃত্যু: ২০ ফেব্রুয়ারি, ১৯৬৪) লন্ডনের চেলসি এলাকায় জন্মগ্রহণকারী বিশিষ্ট ইংরেজ সেনা কর্মকর্তা ও শৌখিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট তারকা ছিলেন। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি।

রনি স্ট্যানিফোর্থ
RT Stanyforth 1927.jpg
১৯২৭ সালের সংগৃহীত স্থিরচিত্রে রনি স্ট্যানিফোর্থ
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামরোনাল্ড টমাস স্ট্যানিফোর্থ
জন্ম(১৮৯২-০৫-৩০)৩০ মে ১৮৯২
চেলসী, লন্ডন, ইংল্যান্ড
মৃত্যু২০ ফেব্রুয়ারি ১৯৬৪(1964-02-20) (বয়স ৭১)
কার্ক হ্যামারটন, ইয়র্কশায়ার, ইংল্যান্ড
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
ভূমিকাউইকেট-রক্ষক, অধিনায়ক
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ২৩০)
২৪ ডিসেম্বর ১৯২৭ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
শেষ টেস্ট১ ফেব্রুয়ারি ১৯২৮ বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৬১
রানের সংখ্যা ১৩ ১,০৯২
ব্যাটিং গড় ২.৬০ ১৭.৩৩
১০০/৫০ –/– –/৬
সর্বোচ্চ রান ৬* ৯১
বল করেছে
উইকেট
বোলিং গড় - -
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং - -
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৭/২ ৭২/২১
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১০ ডিসেম্বর ২০১৭

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর ইংরেজ কাউন্টি ক্রিকেটে ইয়র্কশায়ারের প্রতিনিধিত্ব করেছেন। এছাড়াও চার টেস্টে ইংল্যান্ডের অধিনায়কত্ব করেছেন রনি স্ট্যানিফোর্থ[১]

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

এডউইন উইলফ্রেড স্ট্যানিফোর্থের সন্তান তিনি। এটন কলেজে অধ্যয়ন শেষে অক্সফোর্ডের ক্রাইস্ট চার্চে পড়াশোনা করেন রনি স্ট্যানিফোর্থ।[২] ১৯১৪ সালে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের পক্ষে খেলেন। এরপর প্রথম বিশ্বযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। এমসি ও সিভিও পদক লাভ করেন।[৩]

কাউন্টি ক্রিকেটে অংশগ্রহণসম্পাদনা

যুদ্ধ শেষ হবার পর ১৯২২ সালে কম্বাইন্ড সার্ভিসেসের পক্ষে খেলেন। এরপর ১৯২৩ থেকে ১৯২৯ সাল পর্যন্ত আর্মি, ১৯২৩ থেকে ১৯৩৩ সাল পর্যন্ত এমসিসির পক্ষে খেলেন। এছাড়াও ১৯২৬ সালে এইচ. ডি. জি. লেভসন গাওয়ার একাদশের পক্ষে খেলেন তিনি।

কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে স্ট্যানিফোর্থের একষট্টিটি প্রথম-শ্রেণীর খেলার মধ্যে মাত্র তিনটি খেলায় ইয়র্কশায়ারের পক্ষে খেলেন। ইংল্যান্ডের পক্ষে অধিনায়কত্ব করার পর ১৯২৮ সালে এ তিনটি খেলায় অংশ নিয়েছিলেন। এছাড়াও ১৯৩০ থেকে ১৯৩৩ সময়কালে ফ্রি ফরেস্টার্সের পক্ষে খেলেছেন রনি স্ট্যানিফোর্থ।[৪]

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটসম্পাদনা

১৯২৭-২৮ মৌসুমে উইকেট-রক্ষক ও অধিনায়ক হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে খেলেন। এ পর্যায়ে দুই খেলায় জয়, এক পরাজয় ও একটিতে ড্র করেছিল তার দল। তবে, স্ট্যানিফোর্থের পরিবর্তে গ্রিভিল স্টিভেন্স দল পরিচালনায় অগ্রসর হলে ইংল্যান্ড দল পরাজয়বরণ করে ও সিরিজটি ড্রয়ে পরিণত হয়।

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

স্ট্যানিফোর্থ এইড ডি ক্যাম্প হিসেবে ২১তম ল্যান্সারে কাজ করেন। ১৯৩৯ থেকে ১৯৪০সাল পর্যন্ত জেনারেল অ্যালান ব্রুক হন। ১৯৪১ থেকে ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত ২১তম আর্মি গ্রুপে জিএসওওয়ান হন।

ফেব্রুয়ারি, ১৯৬৪ সালে ৭২ বছর বয়সে ইয়র্কশায়ারের কির্ক হ্যামারটনে স্ট্যানিফোর্থের দেহাবসান ঘটে। মৃত্যু পূর্ব-পর্যন্ত এমসিসির ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্যের দায়িত্ব পালন করেন।[৫]

রোনাল্ড ও টমাস স্ট্যানিফোর্থ স্যামুয়েল স্ট্যানিফোর্থের আত্মীয়। উভয়েই পরবর্তীকালে লিভারপুলের লর্ড মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Warner, David (২০১১)। The Yorkshire County Cricket Club: 2011 Yearbook (113th সংস্করণ)। Ilkley, Yorkshire: Great Northern Books। পৃষ্ঠা 378। আইএসবিএন 978-1-905080-85-4 
  2. STANYFORTH, Lieut-Col Ronald Thomas[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ], Who Was Who, A & C Black, 1920–2016 (online edition, Oxford University Press, 2014)
  3. National Archives Sheffield Archives
  4. Rony Stanyforth at Cricket Archive
  5. Wisden Cricketers' Almanack"Rony Stanyforth"। Espncricinfo.com। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুলাই ২০১১ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

ক্রীড়া অবস্থান
পূর্বসূরী
আর্থার কার
ইংল্যান্ড ক্রিকেট অধিনায়ক
১৯২৭-২৮
উত্তরসূরী
পার্সি চ্যাপম্যান