যশোর আইটি পার্ক

দক্ষিণ বঙ্গের সর্ববৃহৎ আইটি প্রতিষ্ঠান

যশোর আইটি পার্ক যা (শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক) নামেও পরিচিত, বাংলাদেশের যশোর শহরের নাজীর শংকর এলাকা অবস্থিত প্রথম আইটি পার্ক।[১] ২০১৭ সালের ৫ অক্টোবর উদ্বোধন করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক[২] দেশের আইসিটি সেক্টরের বিকাশে যশোরে যাত্রা শুরু করেছে শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক। ১০ই ডিসেম্বর, ২০১৭ইং গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই আইটি পার্কের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর মাধ্যমে দেশের আইসিটি সেক্টরে সম্ভাবনার নতুন দুয়ার উন্মোচিত হলো।[৩]

ইতিহাসসম্পাদনা

২০১০ সালের ২৭ ডিসেম্বর যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস উদ্বোধনের সময় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যশোরে আন্তর্জাতিক মানের একটি আইটি পার্ক স্থাপনের ঘোষণা দেন। দীর্ঘদিন পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও যাচাই-বাছাইয়ের পর ২০১৪ সালের ২৫ এপ্রিল যশোর শহরের বেজপাড়ার নাজির সংকরপুর এলাকায় এ প্রকল্পের কাজ শুরু করা হয়। খুলনা বিভাগের তথ্য প্রযুক্তি ব্যবস্থা আধুনিকায়ন এবং আইটি ইন্ডাস্ট্রি শক্তিশালীকরণের জন্যই প্রাথমিক ভাবে যশোরে করা হয়েছে আইটি পার্ক।এর মাধ্যমে বিভাগীয় সদর খুলনা সহ খুলনা বিভাগের ১০ টি জেলা সুবিধা পাচ্ছে এই আইটি পার্ক টি থেকে

বিনিয়োগসম্পাদনা

২০২১ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে দুটি কোম্পানিকে প্লট বরাদ্দের চুক্তি স্বাক্ষর করে বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ। আগামী ৪০ বছরের জন্য এই পার্কে রেডডট ডিজিটাল লিমিটেড ও ফেলিসিটি বিগ ডাটা লিমিটেড বিনিয়োগের সুযোগ পাবে। এরা হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার, আইওটি, বিপিও, গবেষণা ও উন্নয়ন, ডাটা সেন্টার ইত্যাদি নিয়ে কাজ করবে।[৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "যশোর আইটি পার্ক:যশোর আইটি পার্কের কাজের অগ্রগতি"bhtpa.gov.bd। 04 January 2017। সংগ্রহের তারিখ 06 October 2017  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |তারিখ=, |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)
  2. "যশোর আইটি পার্ক:কাজ শুরু করেছেন বিনিয়োগকারীরা"দৈনিক প্রথম আলো। 26 April 2014। সংগ্রহের তারিখ 06 October 2017  এখানে তারিখের মান পরীক্ষা করুন: |সংগ্রহের-তারিখ= (সাহায্য)[স্থায়ীভাবে অকার্যকর সংযোগ]
  3. "যশোর আইটি পার্ক:শেখ হাসিনা সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক উদ্বোধন"দৈনিক ইত্তেফাক। ১০ ডিসেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১১ ডিসেম্বর ২০১৭ 
  4. হাইটেক পার্ক পাচ্ছে ৫৫ মিলিয়ন ডলারের বিনিয়োগ, বাংলা ট্রিবিউন, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১