মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম

মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম (কাজী শহিদ ইসলাম পাপুল নামেও পরিচিত) একজন বাংলাদেশি ব্যবসায়ী, রাজনীতিবিদ ও সাংসদ। তিনি লক্ষ্মীপুর-২ আসন থেকে ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[১]

মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম
লক্ষ্মীপুর-২ আসন আসনের
সংসদ সদস্য
দায়িত্বাধীন
অধিকৃত কার্যালয়
৩০ ডিসেম্বর ২০১৮
পূর্বসূরীমোহাম্মদ নোমান
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্মকাজী শহিদ ইসলাম পাপুল
(1963-05-28) ২৮ মে ১৯৬৩ (বয়স ৫৭)
রায়পুর, লক্ষ্মীপুর
জাতীয়তাবাংলাদেশি
রাজনৈতিক দলস্বতন্ত্র
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ
দাম্পত্য সঙ্গীসেলিনা ইসলাম
পিতামাতামোহাম্মদ নুরুল ইসলাম (পিতা) তহুরুন নেছা (মাতা)
শিক্ষাস্নাতকোত্তর
পেশাব্যবসায়ী, রাজনীতিবিদ
ডাকনামপাপুল

জন্ম ও শিক্ষাজীবনসম্পাদনা

শহিদ ইসলাম ১৯৬৩ সালের ২৮ মে লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলায় জন্মগ্রহণ করেন।[২] তার পিতার নাম মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম ও মাতার নাম তহুরুন নেছা। পাঁচ ভাই ও দুই বোনের মধ্যে তিনি পঞ্চম। শিক্ষাজীবনে তিনি স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন।

রাজনৈতিক জীবনসম্পাদনা

শহিদ ইসলাম ২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বিএনপির আবুল খায়ের ভূঁইয়াকে পরাজিত করে লক্ষ্মীপুর-২ আসন থেকে প্রথমবারেরমত সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[৩][৪][৫][৬] শহিদ আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে জড়িত কিন্তু মহাজোটেরপক্ষ থেকে মোহাম্মদ নোমানকে নির্বাচনে এই আসন থেকে সমর্থন দেওয়া হলে শহিদ স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেন। তবে নোমান নির্বাচন থেকে নিজেকে পরবর্তীতে প্রত্যাহার করে নেওয়ায় আওয়ামী লীগ শহিদ ইসলামকে সমর্থন দেয়।[৭]

পারিবারিক জীবনসম্পাদনা

কাজী শহিদ ইসলাম পাপুলর স্ত্রী সেলিনা ইসলাম একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসন-৪৯ থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত সংসদ সদস্য

সমালোচনাসম্পাদনা

২০১৯ ও ২০২০ সালে পাপুলের বিরুদ্ধে কুয়েতে মানবপাচার ও হাজার কোটি টাকার দুর্নীতির অভিযোগে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়।[৮][ভাল উৎস প্রয়োজন] অন্তত ২০ হাজার বাংলাদেশীকে কুয়েতে পাঠিয়ে প্রায় ১ হাজার ৪০০ কোটি টাকা আয় করেছে বলে কুয়েতের সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়।[তথ্যসূত্র প্রয়োজন] কুয়েতের সংবাদমাধ্যম আল-কাবাসের প্রকাশিত প্রতিবেদনে পাপুল মার্কিন নাগরিকের সঙ্গে আর্থিক অংশীদারিত্ব গড়ে কুয়েতে আয় করা বেশির ভাগ অর্থ যুক্তরাষ্ট্রে পাচার করার তথ্য প্রকাশ করা হয়।[৯] যদিও পাপুল এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, "মানব পাচারতো নয়ই, জনশক্তি রপ্তানির সঙ্গেও কোনোভাবে জড়িত নই।"[১০] এর আগে ২০২০ সালের ৭ জুন তিনি কুয়েতের অপরাধ তদন্ত বিভাগের হাতে গ্রেফতার হন।[১১] পরের দিন, অর্থাৎ ২০২০ সালের ৮ জুন সংযুক্ত আরব আমিরাতের দৈনিক গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মানব পাচার ও অবৈধ মুদ্রা পাচারের চক্রের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে রিমান্ডে নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন কুয়েতের পাবলিক প্রসিকিউটর। কুয়েতের অপরাধ তদন্ত বিভাগের আবেদনের প্রেক্ষিতে এ নির্দেশ দেওয়া হয়।[১২]

আরও দেখুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "বাংলাদেশ গেজেট, অতিরিক্ত, জানুয়ারি ১, ২০১৯" (PDF)ecs.gov.bdবাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন। ১ জানুয়ারি ২০১৯। ২ জানুয়ারি ২০১৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৯ 
  2. "হলফনামা"নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৯ 
  3. "মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম"প্রথম আলো। ১৩ জুলাই ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৯ 
  4. "সংসদ নির্বাচন ২০১৮ ফলাফল"বিবিসি বাংলা (ইংরেজি ভাষায়)। ২৭ ডিসেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৯ 
  5. "একাদশ সংসদ নির্বাচন"সমকাল (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৯ 
  6. "লক্ষ্মীপুর-২: বেসরকারি ফলে জয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থী কাজী শহিদ ইসলাম পাপুল"ইত্তেফাক। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৯ 
  7. "লক্ষ্মীপুর-২ আসনে আ'লীগ সমর্থিত স্বতন্ত্রপ্রার্থী জয়ী"বাংলানিউজ২৪.কম। সংগ্রহের তারিখ ২ জানুয়ারি ২০১৯ 
  8. "মানব পাচারকাণ্ডে তোলপাড়, সাংসদ পাপুল আবারো কুয়েতে"দৈনিক ভোরের কাগজ 
  9. Dhakatimes24.com। "মানবপাচারের খবরে এমপি পাপুলকে নিয়ে তোলপাড়"Dhakatimes News। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-০৬ 
  10. প্রতিবেদক, নিজস্ব; ডটকম, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর। "পাচারতো দূরের কথা জনশক্তি রপ্তানিও করি না: এমপি শহিদ"bangla.bdnews24.com। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৩-০৬ 
  11. "মানবপাচার : লক্ষীপুর-২ আসনের এমপি পাপুল কুয়েতে গ্রেফতার"দৈনিক জনকন্ঠ। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-০৭ 
  12. "মানব পাচার, অর্থ পাচারের অভিযোগে বাংলাদেশের সংসদ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে কুয়েত"দৈনিক গালফ নিউজ (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ২০২০-০৬-০৮