প্রধান মেনু খুলুন

মিমার সিনান

বিখ্যাত মুসলিম স্থাপত্যবিদ

কোচা মিমার সিনান আগা (উসমানীয় তুর্কি: معمار سينان, "প্রধান স্থপতি সিনান আগা"; আধুনিক তুর্কি: Mimar Sinan, (মিমার সিনান), উচ্চারিত [miːˈmaːɾ siˈnan], "স্থপতি সিনান") (আনু. ১৪৮৯/১৪৯০ – ১৭ জুলাই ১৫৮৮) ছিলেন প্রধান উসমানীয় স্থপতি (তুর্কী: mimar) এবং সুলতান প্রথম সুলেইমান, দ্বিতীয় সেলিম এবং তৃতীয় মুরাদের বেসামরিক প্রকৌশলী ছিলেন। তিনি প্রায় ৩০০রও অধিক প্রধান স্থাপত্য এবং বিদ্যালয়ের মত আরও অন্যান্য প্রগতিশীল প্রকল্প নির্মাণের দায়িত্বে নিয়জিত ছিলেন। তার শিক্ষানবিশগণ পরবর্তীতে ইস্তাম্বুলের সুলতান আহমেদ মসজিদ, মোস্টারে স্টারি মোস্ট-এর নকশা করেন এবং মুঘল সাম্রাজ্যের তাজমহলের নকশা তৈরিতে সহায়তা করেন।

মিমার সিনান
Mimar Sinan büstü, ODTÜ.jpg
আঙ্কারায় মিমার সিনানের আবক্ষ প্রতিকৃতি
জন্মআনুমানিক ১৪৮৮/১৪৯০
মৃত্যু১৭ জুলাই ১৫৮৮(1588-07-17) (বয়স ৯৮)
জাতীয়তাতুর্কি
ভবনসমুহসুলায়মানিয়ে মসজিদ
সেলিমিয়ে মসজিদ
মেহ্মেদ পাশা সকোলোভিক ব্রিজ
মিহ্রিমা সুলতান মসজিদ
মিহ্রিমা মসজিদ
কিলিচ আলী পাশা কমপ্লেক্স
শেহজাদে মসজিদ
হাসেকি হুররেম সুলতান গোসলখানা
হাসেকি সুলতান কমপ্লেক্স
সোকোল্লু মেহমেত পাশা মসজিদ
বান্যা বাসি মসজিদ
চার্চ অব দ্য অ্যাসাম্পশন

পাথুরে খোঁদাইশিল্পীর পুত্র হওয়ার বদৌলতে তিনি পিতার কাছ থেকে কারিগরি শিক্ষা লাভ করেন এবং একজন সামরিক প্রকৌশলী হয়ে ওঠেন। অল্প সময়ের মধ্যেই তিনি ধাপে ধাপে পদোন্নতির মাধ্যমে উসমানীয় সাম্রাজ্যের আগা উপাধি লাভ করেন। [১] জানিসারিদের সঙ্গে যুদ্ধাভিযানে থাকার সময় তিনি তার স্থাপত্য এবং প্রকৌশলী দক্ষতাকে আরও উন্নত করেন, এবং রাস্তা, সেতু, এবং জলাধারের মত সকল প্রকার প্রতিরক্ষামূলক এবং সামরিক স্থাপনায় সুদক্ষ হয়ে ওঠেন।[২] পঞ্চাশ বছর বয়সে সেনাবাহিনীতে অর্জিত কারিগরি দক্ষতা প্রয়োগের মাধ্যমে দৃষ্টিনন্দন ধর্মীয় স্থাপনা এবং সকল প্রকার বেসামরিক স্থাপনা নির্মাণের ফলস্বরূপ তিনি প্রধান রাজ স্থপতি হিসেবে নিয়োগপ্রাপ্ত হন।[২] একটানা পঞ্চাশ বছর তিনি এই পদেই বহাল ছিলেন।

তার সবচেয়ে দৃষ্টিনন্দন কাজ হল এদ্রিনের সেলিমিয়ে মসজিদ, যদিও ইস্তাম্বুলের সুলায়মানিয়ে মসজিদের জন্যই তিনি বেশী পরিচিত। তিনি একটি বিস্তৃত সরকারি বিভাগ পরিচালনা করতেন এবং তার বহু সহকারীকে তিনি প্রশিক্ষণ দিয়েছিলেন যারা পরবর্তীতে তাঁদের নিজ কর্মক্ষেত্রে খ্যাতিলাভ করেছিলেন, এদের অন্যতম হল সদফদার মেহমেদ আগা, যিনি সুলতান আহমেদ মসজিদের নকশা করেছিলেন। সিনানকে প্রাচীন অটোম্যান স্থাপত্যের সর্বশ্রেষ্ঠ স্থপতি বলে মনে মরা হয়, এবং পাশ্চাত্যে তার সমসাময়িক স্থপতি মাইকেল এঞ্জেলোর সঙ্গে তাকে তুলনা করা হয়।[৩][৪] মাইকেল এঞ্জেলো এবং রোমে সেইন্ট পিটার ব্যাসিলিকার ব্যাপারে তার পরিকল্পনার জন্য ১৫০০ সাল থেকেই ইস্তাম্বুলে বিখ্যাত ছিলেন, যখন তিনি লিওনার্দো দা ভিঞ্চির সঙ্গে গোল্ডেন হর্ন ব্রিজের পরিকল্পনা জমা দেয়ার জন্য সাব্লাইম পোর্ট কর্তৃক আমন্ত্রিত হয়েছিলেন।[৫]

স্থাপনাসমূহসম্পাদনা

তার স্থাপত্যের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নমুনা হল মসজিদ আল-হারাম। তার দাপ্তরিক কার্যতালিকা তাজকিয়াত-আল-আবনিয়া অনুযায়ী ৫০ বছরের স্থাপত্য পেশাজীবনে তিনি ৪৭৬ টি দালান (যার মাঝে ১৯৬ টি দালান এখনো বিদ্যমান) নির্মাণ করেন অথবা নির্মাণ তদারকি করেন। সম্ভবত এই সবগুলোর নকশা তিনি করেননি, নিজ দপ্তরের স্থপতিদের কৌশলের উপরও তিনি নির্ভর করতেন এবং তাদের কাজের কৃতিত্ব নিয়ে নিতেন। একজন জেনিজারি ও সুলতানের দাস হিসেবে, তার প্রাথমিক দায়িত্ব ছিল সুলতানের প্রতি। অবসর সময়ে তিনি সাম্রাজ্যের প্রধান দাপ্তরিকদের জন্যেও ভবনের নকশা করতেন। তার সহকারীদেরকে তিনি প্রদেশের কম গুরুত্বপূর্ণ ভবনগুলো নির্মাণের জন্য নিজ প্রতিনিধি হিসেবে পাঠাতেন।

আরও দেখুনসম্পাদনা

টীকাসম্পাদনা

  1. Goodwin (2001), p. 87
  2. Kinross (1977), pp 214–215
  3. De Osa, Veronica.
  4. Saoud (2007), p. 7
  5. Vasari (1963), Book IV, p. 122

আরও পড়ুনসম্পাদনা

Tertiary Sources

আরও দেখুনসম্পাদনা

  • (ফরাসি) Roux, Jean-Paul (1988). "Les Mosquées de Sinan", Les Dossiers d'archéologie, May 1988, number 127.
  • (ফরাসি) Stierlin, Henri (1988). "Sinan et Soliman le Magnifique", Les Dossiers d'archéologie, May 1988, number 127.
  • (ফরাসি) Topçu, Ali (1988a) "Sinan et l'architecture civile", Les Dossiers d'archéologie, May 1988, number 127.
  • (ফরাসি) Topçu, Ali (1988b)."Sinan et la modernité", Les Dossiers d'archéologie, May 1988, number 127.

বহিঃসংযোগসম্পাদনা