মফিজ আলী চৌধুরী

মফিজ আলী চৌধুরী (১৯১৯-১৯৯৯) একজন বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ। তিনি ১৯৭০ সালের নির্বাচনে বগুড়া-১ আসন থেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধুর মন্ত্রিসভার সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৭৩ সালে প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বগুড়া-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[১][২][৩]

মফিজ আলী চৌধুরী
বগুড়া-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
১৯৭৩ – ১৯৭৯
পূর্বসূরীশুরু (স্বাধীনতা লাভ)
উত্তরসূরীআব্দুল আলীম
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১৯১৯
মঙ্গলবাড়ি গ্রাম, জয়পুরহাট, বেঙ্গল প্রেসিডেন্সি, ব্রিটিশ ভারত
(বর্তমান বাংলাদেশ)
মৃত্যু৩০ মে ১৯৯৪
নাগরিকত্বব্রিটিশ ভারত (১৯৪৭ সাল পর্যন্ত)
পাকিস্তান (১৯৭১ সালের পূর্বে)
বাংলাদেশ
রাজনৈতিক দলবাংলাদেশ আওয়ামী লীগ

জন্ম ও প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

মফিজ আলী চৌধুরী ১৯১৯ সালে ব্রিটিশ ভারতের পূর্ব বাংলার (বর্তমান বাংলাদেশ) জয়পুরহাটের মঙ্গলবাড়ি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা আলী মোহাম্মদ চৌধুরী। তিনি (মফিজ চৌধুরী) কলকাতা প্রেসিডেন্সী কলেজ থেকে বিএসসি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৩৭ সালে এমএসসি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফলিত রসায়ন শাস্ত্রে পিএইচ.ডি ডিগ্রি লাভ করেন ১৯৪৯ সালে। লন্ডনের রয়েল অ্যাকাডেমি অব কেমিস্ট্রির সদস্য ছিলেন তিনি।[৪]

রাজনৈতিক ও কর্মজীবনসম্পাদনা

মফিজ আলী চৌধুরী কলকাতা প্রেসিডেন্সী কলেজে থাকা অবস্থায় রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত হন। তখন নিখিল বঙ্গ মুসলিম ছাত্র সমিতির কমিটির সদস্য ছিলেন। তিনি সুভাষচন্দ্র বসুর হলওয়েল মনুমেন্ট অপসারণ আন্দোলনে সক্রিয় অংশগ্রহণ কারী। তিনি আওয়ামী লীগে যোগ দেন ১৯৬৩ সালে। ছয় দফা আন্দোলন এবং ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানে অংশগ্রহণ নেন। তিনি বগুড়া-১ আসন থেকে ১৯৭০ সালের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হিসেবে পাকিস্তান জাতীয় পরিষদের সদস্য নির্বাচিত হন। [৪]

১৯৭২ সালে শেখ মুজিবের দ্বিতীয় মন্ত্রিসভার একজন সদস্য ছিলেন। ১৯৭৩ সালে প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি বগুড়া-১ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[১] একই বছর তিনি শেখ মুজিবুর রহমানের তৃতীয় মন্ত্রীসভার প্রাকৃতিক সম্পদ, বৈজ্ঞানিক ও কারিগরি গবেষণা এবং আণবিক শক্তি দফতরের মন্ত্রীর দায়িত্ব লাভ করেন। তিনি ১৯৭৫ সালে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে বাংলাদেশের প্রতিনিধিদলের উপনেতার দায়িত্ব পালন করেন।[৪]

মুক্তিযুদ্ধসম্পাদনা

মফিজ আলী চৌধুরী ১৯৭১ সালের সকল আন্দোলনে বগুড়ায় নেতৃত্ব দেন।তিনি সেপ্টেম্বর ১৯৭১ সালে বিচারপতি আবু সাঈদ চৌধুরীর নেতৃত্বে জাতিসংঘে বাংলাদেশের প্রতিনিধিদলের সদস্য ছিলেন।[৪]

লেখক মফিজ আলীসম্পাদনা

মফিজ আলী চৌধুরী ১৯৬০ এর দশকে স্বদেশ পত্রিকাটি সম্পাদক ও প্রকাশক ছিলেন। লেখক হিসেবেও মফিজ চৌধুরী সুপরিচিত ছিল। তিনি অনেক ভাষার বেশ কয়েকটি গ্রন্থও বাংলায় অনুবাদ করেন।[৪]

মৃত্যুসম্পাদনা

মফিজ আলী চৌধুরী ৩০ মে ১৯৯৪ সালে মৃত্যুবরণ করেন। [৪]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "১ম জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. Bhuiyan, Md Abdul Wadud (১৯৮২)। Emergence of Bangladesh and role of Awami League (ইংরেজি ভাষায়)। Vikas। পৃষ্ঠা 193। আইএসবিএন 9780706917734 
  3. News Review on South Asia and Indian Ocean (ইংরেজি ভাষায়)। Institute for Defence Studies & Analyses.। ১৯৭২। পৃষ্ঠা 133। 
  4. "Chowdhury, Mafiz Ali - Banglapedia"en.banglapedia.org। সংগ্রহের তারিখ ২০১৯-০৯-০৬