ভ্যানকুভার (ইংরেজি ভাষায়:Vancouver; আ-ধ্ব-ব: [vænˈkuːvɚ]) উত্তর আমেরিকার রাষ্ট্র কানাডার পশ্চিম উপকূল তথা প্রশান্ত মহাসাগরীয় উপকূলে, ব্রিটিশ কলাম্বিয়া প্রদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমভাগের নিম্ন মূল ভূখণ্ড বা লোয়ার মেইনল্যান্ড অঞ্চলে অবস্থিত একটি নগরী। এটি জর্জিয়া প্রণালীর তীরে, কোস্ট পর্বতমালার পাদদেশে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে কানাডার সীমান্ত থেকে ৪৫ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত। মূল ভ্যানকুভার নগরীতে প্রায় ৬ লক্ষ অধিবাসী বাস করে। নগরীটি "মেট্রো ভ্যানকুভার" নামক আঞ্চলিক জেলার অন্তর্ভুক্ত, যাতে প্রায় ২৪ লক্ষ লোকের বাস; এটি ব্রিটিশ কলাম্বিয়া তথা পশ্চিম কানাডার বৃহত্তম এবং কানাডার তৃতীয় বৃহত্তম মহানগর এলাকা। জনঘনত্বের বিচারে ভ্যানকুভার কানাডার সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ নগরী; এখানে প্রতি বর্গকিলোমিটারে ৫৪০০ জনেরও বেশি ব্যক্তি বাস করে।[৫][৬] ফলে এটি উত্তর আমেরিকা মহাদেশের ৫ম সর্বোচ্চ ঘনবসতিপূর্ণ নগরী (নিউ ইয়র্ক, গুয়াদালাহারা, সান ফ্রান্সিসকো ও মেক্সিকো নগরী-র পরে)।[৭]

ভ্যানকুভার
নগরী
ভ্যানকুভার নগরী
(City of Vancouver)
ভ্যানকুভার নগরকেন্দ্রের দিগন্ত পরিলেখ
ভ্যানকুভারের পতাকা
পতাকা
নীতিবাক্য: "By Sea, Land, and Air We Prosper"
("সাগরে, স্থলে ও বাতাসে আমাদের সমৃদ্ধি")
কানাডার ব্রিটিশ কলাম্বিয়া প্রদেশের মেট্রো ভ্যানকুভার আঞ্চলিক জেলার ভেতরে অবস্থান।
কানাডার ব্রিটিশ কলাম্বিয়া প্রদেশের মেট্রো ভ্যানকুভার আঞ্চলিক জেলার ভেতরে অবস্থান।
লুয়া ত্রুটি মডিউল:অবস্থান_মানচিত্ এর 480 নং লাইনে: নির্দিষ্ট অবস্থান মানচিত্রের সংজ্ঞা খুঁজে পাওয়া যায়নি। "মডিউল:অবস্থান মানচিত্র/উপাত্ত/Canada British Columbia" বা "টেমপ্লেট:অবস্থান মানচিত্র Canada British Columbia" দুটির একটিও বিদ্যমান নয়।Location within British Columbia##Location within Canada##Location within North America
স্থানাঙ্ক: ৪৯°১৫′ উত্তর ১২৩°৬′ পশ্চিম / ৪৯.২৫০° উত্তর ১২৩.১০০° পশ্চিম / 49.250; -123.100স্থানাঙ্ক: ৪৯°১৫′ উত্তর ১২৩°৬′ পশ্চিম / ৪৯.২৫০° উত্তর ১২৩.১০০° পশ্চিম / 49.250; -123.100
দেশ/রাষ্ট্রকানাডা
প্রদেশব্রিটিশ কলাম্বিয়া
অঞ্চললোয়ার মেইনল্যান্ড ("নিম্ন মূলভূমি")
অঙ্গীভূত৬ই এপ্রিল, ১৮৮৬
নামকরণের কারণজর্জ ভ্যানকুভার
সরকার
 • নগরপালকেনেডি স্টুয়ার্ট
 • ভ্যানকুভার নগর পরিষদ
 • MPs (Fed.)
 • MLAs (Prov.)
আয়তন
 • নগরী১১৪.৯৭ বর্গকিমি (৪৪.৩৯ বর্গমাইল)
 • পৌর এলাকা৮৭৬.৪৪ বর্গকিমি (৩৩৮.৪০ বর্গমাইল)
 • মহানগর২,৮৭৮.৫২ বর্গকিমি (১,১১১.৪০ বর্গমাইল)
উচ্চতা০–১৫২ মিটার (০–৫০১ ফুট)
জনসংখ্যা (2016)[২][৩]
 • নগরী৬,৩১,৪৮৬ (৮th)
 • জনঘনত্ব৫,৪৯২.৬/বর্গকিমি (১৪,২২৬/বর্গমাইল)
 • পৌর এলাকা২২,৬৪,৮২৩[১]
 • পৌর এলাকার জনঘনত্ব২,৫৮৪/বর্গকিমি (৬,৬৯০/বর্গমাইল)
 • মহানগর২৪,৬৩,৪৩১ (৩rd)
বিশেষণVancouverite
সময় অঞ্চলPST (ইউটিসি−08:00)
 • গ্রীষ্মকালীন (দিসস)PDT (ইউটিসি−07:00)
Forward sortation areaV5K – V6T, V6Z, V7X – V7Y
NTS Map092G03
GNBC CodeJBRIK
Highways



স্থূআউ (জিডিপি)US$ 110 billion[৪]
মাথাপিছু স্থূআউ৪৪,৩৩৭ মার্কিন ডলার[৪]
ওয়েবসাইটCity of Vancouver

ভ্যানকুভার নৃতাত্ত্বিক ও ভাষাগত দিক থেকে কানাডার সবচেয়ে বৈচিত্র্যময় নগরীগুলির একটি। এখানকার ৫২% অধিবাসীর মাতৃভাষা ইংরেজি নয়।[৮][৯] ৪৮.৯% অধিবাসীর মাতৃভাষা ইংরেজি বা ফরাসি কোনওটিই নয়, এবং ৫০.৬% অধিবাসী দৃশ্যতই বিভিন্ন সংখ্যালঘু জনগোষ্ঠীর সদস্য।[১০]

ফ্রেজার গিরিখাত স্বর্ণানুসন্ধানের যুগে, ১৮৬০-এর দশকে এই এলাকায় বহু অভিবাসী লোকের আগমন ঘটলে ভ্যানকুভার শহরের পত্তন হয়। তখন এটি একটি করাতকল এলাকা ছিল, যার নাম ছিল হেস্টিংস মিল। ভ্যানকুভারেরর আদি নাম ছিল গ্যাসটাউন। গ্যাসি জ্যাক নামের একজন ব্যক্তি করাতকলের পশ্চিম প্রান্তে অবস্থিত একটি পানশালার মালিক ছিলেন। এই পানশালাকে ঘিরে একটি লোকালয় গড়ে ওঠে। আজও গ্যাসটাউন বাষ্পীয় ঘড়ি এলাকাতে গেলে এই আদি পত্তনস্থলটি পরিদর্শন করা সম্ভব। পরবর্তীতে গ্যাসটাউন লোকালয়টি গ্র্যানভিল নামে একটি শহর হিসেবে নথিভুক্ত হয়। ১৮৮৬ সালে কানাডীয় প্রশান্ত মহাসাগরীয় রেল কোম্পানির সাথে এক চুক্তি অনুযায়ী শহরটির নাম বদলে ভ্যানকুভার রাখা হয়। ব্রিটিশ নাবিক ও ক্যাপ্টেন জর্জ ভ্যানকুভারের নামে এই নামকরণ করা হয়; তিনি ১৮শ শতকে এই অঞ্চলটিতে জরিপ চালান। ভ্যানকুভার নামটি মূলত ওলন্দাজ শব্দগুচ্ছ "van Coevorden" থেকে এসেছে, যার অর্থ "Coevorden শহরের (অধিবাসী)"।

১৮৮৭ সালে ভ্যানকুভার কানাডীয় প্রশান্ত মহাসাগরীয় মহাদেশীয় রেলপথের সাথে যুক্ত হয়। এসময় প্রশান্ত মহাসাগরের উপকূলে ভ্যানকুভারের বৃহৎ প্রাকৃতিক সামুদ্রিক পোতাশ্রয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে ওঠে। এর ফলে নগরীটি একদিকে প্রশান্ত মহাসাগরীয় এশিয়া ও পূর্ব এশিয়া এবং অন্যদিকে পূর্ব কানাডা ও ইউরোপ, এই দুই অঞ্চলের মধ্যবর্তী স্থানে অবস্থিত গুরুত্বপূর্ণ একটি বাণিজ্যিক সংযোগস্থলে পরিণত হয়।[১১][১২] কয়েক দশকের মধ্যেই এটি দ্রুত একটি বড় শহরে পরিণত হয়। ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার প্রাকৃতিক সম্পদের উপর ভিত্তি করে শহরের ব্যবসা বাণিজ্য গড়ে ওঠে; এদের মধ্যে বনজ সম্পদ আহরণ, খনিশিল্প, মৎস্য আহরণ এবং কৃষিখামার ছিল প্রাথমিক কিছু ব্যবসাক্ষেত্র। পানামা খালের উদ্বোধনের পর ভ্যানকুভার বন্দরের আন্তর্জাতিক গুরুত্ব বেড়ে যায়। ২০১৬ সালের তথ্য অনুযায়ী এবং খালাসকৃত মালামালের ওজনের নিরিখে ভ্যানকুভার সমুদ্রবন্দরটি ("পোর্ট মেট্রো ভ্যানকুভার") দুই আমেরিকা মহাদেশের মধ্যে চতুর্থ বৃহত্তম সমুদ্রবন্দর।[১৩] এটি কানাডার বৃহত্তম ও ব্যস্ততম সমুদ্রবন্দর এবং উত্তর আমেরিকার সবচেয়ে বৈচিত্রায়িত সমুদ্রবন্দর।[১৪]

অরণ্য থেকে কাঠ আহরণ ভ্যানকুভারের বৃহত্তম শিল্পখাত। প্রাকৃতিক পরিবেশ বেষ্টিত পৌরকেন্দ্র ভ্যানকুভারের দ্বিতীয় বৃহত্তম শিল্পখাত হলো পর্যটন।[১৫] সময়ের সাথে সাথে ভ্যানকুভার একটি সেবাভিত্তিক বাণিজ্যকেন্দ্রে পরিণত হয়েছে। ১৯৮৬ সালের বিশ্বমেলার পর এটি পর্যটকদের জন্য একটি আকর্ষণীয় গন্তব্যস্থল হিসেবে পরিগণিত হচ্ছে। ভ্যানকুভার ও পার্শ্ববর্তী বার্নাবাই শহরটি মিলে বৃহত্তর ভ্যানকুভার নগরীটি উত্তর আমেরিকার বৃহত্তম চলচ্চিত্র নির্মাণ কেন্দ্রগুলির একটিতে পরিণত হয়েছে।[১৬][১৭] নিউ ইয়র্ক ও লস অ্যাঞ্জেলেসের পরেই ভ্যানকুভার উত্তর আমেরিকার তৃতীয় বৃহত্তম চলচ্চিত্র শিল্পশহর। ভ্যানকুভারকে "উত্তরের হলিউড" নামেও ডাকা হয়।[১৮][১৯][২০]

ভ্যানকুভার নিয়মিতভাবে বসবাসযোগ্যতা ও উচ্চ জীবনযাত্রার মানের নিরিখে বিশ্বের সেরা পাঁচটি নগরীর মধ্যে একটি হিসেবে পরিগণিত হয়ে আসছে।[২১][২২][২৩] ২০১১ সালে ভ্যানকুভার নগরীটি ২০২০ সাল নাগাদ বিশ্বের সবচেয়ে সবুজ নগরীতে পরিণত হওয়ার পরিকল্পনা করে। নগরীটির নগর পরিকল্পনা ও নকশা প্রণয়ন-সংক্রান্ত দর্শনটি "ভ্যানকুভারবাদ" নামে পরিচিত।

ভ্যানকুভার বহু আন্তর্জাতিক সম্মেলন ও অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। ১৯৫৪ সালে এটি কমনওয়েলথ ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আয়োজক ছিল। ১৯৬৯ সালে পরিবেশবাদী আন্তর্জাতিক সংগঠন গ্রিনপিস ভ্যানকুভার নগরীতে প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০১০ সালে ভ্যানকুভারে ২১শ শীতকালীন অলিম্পিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার আসর বসে।[২৪] ভ্যানকুভার এই সম্মানপ্রাপ্ত তৃতীয় শহর; এর আগে ১৯৭৬ সালে কানাডার মোঁরেয়াল (মন্ট্রিয়াল) এবং ১৯৮৮ সালে ক্যালগারি নগরীতে শীতকালীন অলিম্পিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ২০১৫ সালের প্রমীলা ফুটবল বিশ্বকাপের সমাপনী শিরোপা নির্ধারণী খেলাটিসহ আরও বেশ কিছু খেলা ভ্যানকুভার নগরীতে অনুষ্ঠিত হয়।[২৫]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Census Profile, 2016 Census - Vancouver [Population centre], British Columbia and British Columbia"www12.statcan.gc.ca। Statistics Canada - Government of Canada। ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭। 
  2. "Population size and growth in Canada: Key results from the 2016 Census"Statistics Canada। মে ১০, ২০১৬। ফেব্রুয়ারি ১০, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৬ 
  3. "Census Profile, 2016 Census – Vancouver, City Census subdivision, British Columbia Province"। নভেম্বর ৩, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ সেপ্টেম্বর ১, ২০১৮ 
  4. "Global city GDP 2014"। Brookings Institution। জুন ৫, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ নভেম্বর ১৮, ২০১৪ 
  5. "Population of Metro Vancouver outpaced national growth rate"Vancouver Sun। Vancouver। ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭। ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭ 
  6. Campion-Smith, Bruce (ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭)। "Canada's population grew 1.7M in 5 years, latest census shows"Toronto Star। Toronto। ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৮, ২০১৭ 
  7. "Population and dwelling counts, for Canada and census subdivisions (municipalities) with 5,000-plus population, 2011 and 2006 censuses"। জুলাই ২২, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ৯, ২০১২ 
  8. "Census 2006 Community Profiles: Vancouver, City and CMA"। Government of Canada। ২০০৬। নভেম্বর ৪, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ অক্টোবর ১০, ২০১১ 
  9. "City Facts 2004" (PDF)। City of Vancouver। ২০০৪। ১২ মে ২০০৬ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৯ জুন ২০১১ 
  10. "Census Profile, 2016 Census"StatCan। সংগ্রহের তারিখ ৪ জানুয়ারি ২০২০ 
  11. Morley, A. (১৯৭৪)। Vancouver, from milltown to metropolis। Vancouver: Mitchell Press। এলসিসিএন 64026114 
  12. Norris, John M. (১৯৭১)। Strangers Entertained। Vancouver, British Columbia Centennial '71 Committee। এলসিসিএন 72170963 
  13. "World Port Rankings 2016"American Association of Port Authorities। এপ্রিল ২৯, ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১, ২০১৯ 
  14. "Port Metro Vancouver Mid-Year Stats Include Bright Spots in a Difficult First Half for 2009"Port Metro Vancouver। জুলাই ৩১, ২০০৯। জুন ১৫, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ৯, ২০১১ টেমপ্লেট:Primary source inline
  15. "Overnight visitors to Greater Vancouver by volume, monthly and annual basis" (PDF)। Vancouver Convention and Visitors Bureau। জুলাই ১৭, ২০১১ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ৯, ২০১১ 
  16. "Industry Profile"। BC Film Commission। জুলাই ৭, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ৯, ২০১১ 
  17. "Ontario film industry outperforming B.C.'s"Business In Vancouver। আগস্ট ১২, ২০১২ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ আগস্ট ১২, ২০১২ 
  18. Gasher, Mike (নভেম্বর ২০০২)। Hollywood North: The Feature Film Industry in British Columbia। Vancouver: University of British Columbia Press। আইএসবিএন 978-0-7748-0967-2 
  19. Shrimpton, James (আগস্ট ১৭, ২০০৭)। "Vancouver: Welcome to Brollywood"News Limited। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৬, ২০১৩ 
  20. "Canada's Hollywood Gets a Boost with New Studio"Miami Herald। আগস্ট ৯, ১৯৮৮। মে ১১, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ মার্চ ১৬, ২০১৩ 
  21. Staff, DH Vancouver (মার্চ ২০, ২০১৮)। "Vancouver ranked best city in North America for quality of living"Daily Hive। ফেব্রুয়ারি ১৯, ২০১৯ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০১৯ 
  22. "Vancouver and Melbourne top city league"BBC News। অক্টোবর ৪, ২০০২। জুলাই ১২, ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ৯, ২০১১ 
  23. Taylor, Chloe (মার্চ ১৩, ২০১৯)। "These are the world's top cities to live in, according to researchers"। CNBC। সংগ্রহের তারিখ ডিসেম্বর ২৩, ২০১৯ 
  24. "Vancouver 2010 Schedule"olympic.org। International Olympic Committee। ২০১০। জুলাই ৭, ২০১১ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ জুন ৯, ২০১১ 
  25. "FIFA Women's World Cup Canada 2015™ match schedule unveiled"। FIFA। এপ্রিল ২৬, ২০১৩ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ এপ্রিল ৩০, ২০১৩