প্রধান মেনু খুলুন

বীজপুর বিধানসভা কেন্দ্র

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা কেন্দ্র

বীজপুর (বিধানসভা কেন্দ্র) ভারতীয় রাজ্য পশ্চিমবঙ্গের উত্তর চব্বিশ পরগনা জেলার একটি বিধানসভা কেন্দ্র

বীজপুর
বিধানসভা কেন্দ্র
বীজপুর পশ্চিমবঙ্গ-এ অবস্থিত
বীজপুর
বীজপুর
বীজপুর ভারত-এ অবস্থিত
বীজপুর
বীজপুর
পশ্চিমবঙ্গ
স্থানাঙ্ক: ২২°৫৬′ উত্তর ৮৮°২৬′ পূর্ব / ২২.৯৩৩° উত্তর ৮৮.৪৩৩° পূর্ব / 22.933; 88.433স্থানাঙ্ক: ২২°৫৬′ উত্তর ৮৮°২৬′ পূর্ব / ২২.৯৩৩° উত্তর ৮৮.৪৩৩° পূর্ব / 22.933; 88.433
দেশ ভারত
রাজ্যপশ্চিমবঙ্গ
জেলাউত্তর চব্বিশ পরগনা
কেন্দ্র নং.১০৩
আসনখোলা
লোকসভা কেন্দ্র১৫.ব্যারাকপুর
নির্বাচনী বছর১৫৮,৪৯৫ (২০১১)

এলাকাসম্পাদনা

ভারতের সীমানা পুনর্নির্ধারণ কমিশনের নির্দেশিকা অনুসারে, ১০৩ নং বীজপুর বিধানসভা কেন্দ্রটি কাঁচরাপাড়া পৌরসভা এবং হালিশহর পৌরসভা এর অন্তর্গত।[১]

বীজপুর বিধানসভা কেন্দ্রটি ১৫ নং ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র এর অন্তর্গত।[১]

বিধানসভার বিধায়কসম্পাদনা

নির্বাচন
বছর
কেন্দ্র বিধায়ক রাজনৈতিক দল
১৯৫১ বীজপুর নিরঞ্জন সেনগুপ্ত ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি [২]
১৯৫৭ নিরঞ্জন সেনগুপ্ত ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি[৩]
১৯৬২ মনোরঞ্জন রায় ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি [৪]
১৯৬৭ জগদীশ চন্দ্র দাস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[৫]
১৯৬৯ জগদীশ চন্দ্র দাস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[৬]
১৯৭১ জগদীশ চন্দ্র দাস ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস[৭]
১৯৭২ জগদীশ চন্দ্র দাস ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস [৮]
১৯৭৭ জগদীশ চন্দ্র দাস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী) [৯]
১৯৮২ জগদীশ চন্দ্র দাস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী) [১০]
১৯৮৭ জগদীশ চন্দ্র দাস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী) [১১]
১৯৯১ জগদীশ চন্দ্র দাস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী) [১২]
১৯৯৬ কমল সেনগুপ্ত বসু ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১৩]
২০০১ জগদীশ চন্দ্র দাস ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী) [১৪]
২০০৬ ডা. নির্ঝরিণী চক্রবর্তী ভারতের কমিউনিস্ট পার্টি (মার্ক্সবাদী)[১৫]
২০১১ শুভ্রাংশু রায় সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেস [১৬]

নির্বাচনী ফলাফলসম্পাদনা

২০১১সম্পাদনা

২০১১ সালের নির্বাচনে, তৃণমূল কংগ্রেসের শুভ্রাংশু রায় তার নিকটবর্তী প্রতিদ্বন্দ্বী সিপিআই (এম) -এর নির্ঝরিণী চক্রবর্তীকে পরাজিত করেন।

পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন, ২০১১:বীজপুর কেন্দ্র[১৬][১৭]
দল প্রার্থী ভোট % ±%
তৃণমূল কংগ্রেস শুভ্রাংশু রায় ৬৫,৪৭৯ ৫১.৪৯ +৪.৫৭#
সিপিআই(এম) নির্ঝরিণী চক্রবর্তী ৫২,৮৬৭ ৪১.৫৭ -১১.০৮
বিজেপি কমল কান্ত চৌধুরী ৪,৮৪১ ৩.৮১
নির্দল রমেন মল্লিক ২,০০৫
বিএসপি শরৎচন্দ্র বিশ্বাস ১,৯৮২
ভোটার উপস্থিতি ১২৭,১৭৪ ৮০.২৪
সিপিআই(এম) থেকে তৃণমূল কংগ্রেস অর্জন করেছে ঘুরে যাওয়া ১৫.৬৬#

১৯৭৭-২০০৬সম্পাদনা

২০০৬ সালের রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনে,[১৫] সিপিআই (এম) -এর ডা. নির্ঝরিণী চক্রবর্তী বীজপুর কেন্দ্র থেকে জয়ী হন, তৃণমূল কংগ্রেসের কল্যাণী বিশ্বাস (বসু)কে পরাজিত করেন। অধিকাংশ বছরে প্রতিযোগিতাগুলিতে প্রার্থীদের বিভিন্ন ধরনের কোণঠাসা করে ছিল কিন্তু শুধুমাত্র বিজয়ী ও রানার্সকে উল্লেখ করা হচ্ছে। ২০০১ সালে,সিপিআই (এম) জগদীশ চন্দ্র দাস তৃণমূল কংগ্রেসের অকুল দাসের পুত্র জগদীশ দাসকে পরাজিত করেন।[১৪] সিপিআই (এম) -এর কমল সেনগুপ্ত বসু ১৯৯৬ সালেকংগ্রেসের মৃণাল কান্তি সিংহ রায়কে পরাজিত করেন।[১৩] সিপিআই (এম) -এর জগদীশ চন্দ্র দাস ১৯৯১[১২] এবং ১৯৮৭ সালে[১১] কংগ্রেসের বিমলানন্দ দত্তকে পরাজিত করেন। ১৯৮২ সালে কংগ্রেসের প্রবীর বন্দ্যোপাধ্যায়কে[১০] এবং ১৯৭৭ সালে কংগ্রেসের অকুল দাসের পুত্র জগদীশ দাসকে পরাজিত করেন।[৯][১৮]

১৯৫১-১৯৭২সম্পাদনা

কংগ্রেসের অকুল দাসের পুত্র জগদীশ চন্দ্র দাস ১৯৭২[৮] এবং ১৯৭১ সালে[৭] জয়ী হন। সিপিআই (এম) -এর জগদীশ চন্দ্র দাস ১৯৬৯[৬] এবং ১৯৬৭ সালে[৫] জয়ী হন। সিপিআইয়ের মনোরঞ্জন রায় ১৯৬২ সালে জয়ী হন।[৪] ১৯৫৭[৩] এবং স্বাধীন ভারতের প্রথম নির্বাচন ১৯৫১ সালে, সিপিআইয়ের নিরঞ্জন সেনগুপ্ত জয়ী হন।[২]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Delimitation Commission Order No. 18" (PDF)পশ্চিমবঙ্গ (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুন ২০১৪ 
  2. "General Elections, India, 1951, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  3. "General Elections, India, 1957, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  4. "General Elections, India, 1962, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  5. "General Elections, India, 1967, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  6. "General Elections, India, 1969, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  7. "General Elections, India, 1971, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  8. "General Elections, India, 1972, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  9. "General Elections, India, 1977, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  10. "General Elections, India, 1982, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  11. "General Elections, India, 1987, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  12. "General Elections, India, 1991, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  13. "General Elections, India, 1996, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  14. "General Elections, India, 2001, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  15. "General Elections, India, 2006, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  16. "General Elections, India, 2011, to the Legislative Assembly of West Bengal" (PDF) (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৩ আগস্ট ২০১৪ 
  17. "West Bengal Assembly Election 2011"Bijpur (ইংরেজি ভাষায়)। Empowering India। সংগ্রহের তারিখ ২৪ এপ্রিল ২০১১ 
  18. "128 - Bijpur Assembly Constituency"১৯৭৭ থেকে দল অনুযায়ী তুলনা (ইংরেজি ভাষায়)। ভারতের নির্বাচন কমিশন। সংগ্রহের তারিখ ১৫ অক্টোবর ২০১০