প্রধান মেনু খুলুন

ব্যাবহারসম্পাদনা

The layout design for these subpages is at প্রবেশদ্বার:ইসলাম/নির্বাচিত_চিত্র/Layout.

  1. Add a new Selected picture to the next available subpage.
  2. Update "max=" to new total for its {{Random portal component}} on the main page.

নির্বাচিত চিত্রসমূহসম্পাদনা

প্রবেশদ্বার:ইসলাম/নির্বাচিত_চিত্র/১

কৃতিত্ব: বেলায়েত

ষাট গম্বুজ মসজিদ বাংলাদেশের বাগেরহাট জেলার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত একটি প্রাচীন মসজিদ। মসজিদটির গায়ে কোনো শিলালিপি নেই। তাই এটি কে নির্মাণ করেছিলেন বা কোন সময়ে নির্মাণ করা হয়েছিলো সে সম্বন্ধে সঠিক কোনো তথ্য পাওয়া যায় না। তবে মসজিদটির স্থাপত্যশৈলী দেখলে এটি যে খান-ই-জাহান নির্মাণ করেছিলেন সে সম্বন্ধে কোনো সন্দেহ থাকে না। ধারণা করা হয় তিনি ১৫শ শতাব্দীতে এটি নির্মাণ করেন। এ মসজিদটি বহু বছর ধরে ও বহু অর্থ খরচ করে নির্মাণ করা হয়েছিলো। পাথরগুলো আনা হয়েছিলো রাজমহল থেকে। এটি বাংলাদেশের তিনটি বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানের একটির মধ্যে অবস্থিত; বাগেরহাট শহরটিকেই বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানের মর্যাদা দেয়া হয়েছে। ১৯৮৩ খ্রিস্টাব্দে ইউনেস্কো এই সম্মান প্রদান করে।


প্রবেশদ্বার:ইসলাম/নির্বাচিত_চিত্র/২

কৃতিত্ব: মিখাইল ইভাস্টাফাইভ

চেচিন বিচ্ছিন্নতাবাদী যোদ্ধা সালাত আদায় করছেন; প্রথম চেচিন যুদ্ধের সময় প্রথম চেচিন যুদ্ধ


প্রবেশদ্বার:ইসলাম/নির্বাচিত_চিত্র/৩

কৃতিত্ব: মুহাম্মদ মাহদি করিম

তাঙ্গিনিয়ানরা প্রতিবাদ করছেন ; ২০০৮-২০০৯ গাজা গোলাবর্ষণের


প্রবেশদ্বার:ইসলাম/নির্বাচিত_চিত্র/৪

কৃতিত্ব: আমেরিকান উপনিবেশ (জেরুজালেম) ছবি বিভাগ. (সম্পাদনা করেছেন দ্রুভা)

সুলতান আল-আতরাস, (১৮৯১-১৯৮২) ছিলেন একজন বিশিষ্ট আরব মুসলিম নেতা, এবং সিরিয়ান জাতীয়তাবাদী , গ্রেট সিরিয়ার বিপ্লব (১৯২৫-১৯২৭)এর কমান্ডার জেনারেল ছিলেন.


প্রবেশদ্বার:ইসলাম/নির্বাচিত_চিত্র/৫

কৃতিত্ব: এড ফোর্ড (সম্পাদনা করেছেন দ্রুভা)

ম্যালকম এক্স (১৯শে মে, ১৯২৫২১শে ফেব্রুয়ারি, ১৯৬৫) ছিলেন একজন আফ্রিকান-মার্কিন মুসলিম রাজনীতিবিদ ও ধর্মীয় নেতা, যিনি যুক্তরাষ্ট্রে কৃষ্ণাঙ্গদের মানবাধিকার আদায়ের আন্দোলনে অন্যতম অংশগ্রহণকারী ছিলেন। জন্মের পর তাঁর নাম হয় ম্যালকম লিট্‌ল এবং ইসলামে ধর্মান্তরিত হলে তাঁর নতুন নামকরন হয় ম্যালকম এক্স।


প্রবেশদ্বার:ইসলাম/নির্বাচিত_চিত্র/৬

কৃতিত্ব: মার্কিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয় (সম্পাদনা করেছেন জে.জে রণ)

সাদ্দাম হোসেন আবু আল মাজিদ আল তিকরিতি (আরবি: صدام حسين التكريتي Ṣaddām Ḥusayn ʿAbd al-Majīd al-Tikrītī (এপ্রিল ২৮, ১৯৩৭- ডিসেম্বর ৩০, ২০০৬) ইরাকের সাবেক রাষ্ট্রপতি। তিনি জুলাই ১৬, ১৯৭৯ থেকে এপ্রিল ৯, ২০০৩ নাগাদ ইরাকের রাষ্ট্রপতি ছিলেন।


প্রবেশদ্বার:ইসলাম/নির্বাচিত_চিত্র/৭

কৃতিত্ব: সের্গেই মিখাইলোভিচ প্রকুদিন-গোরস্কি

আমির সাইদ মীর মুহাম্মদ আলীম খান (উজবেক: সাইদ মীর মোহাম্মদ ওলিমেক্সন, জানুয়ারি ১৯৮০- ২৮এপ্রিল ১৯৪৪) ছিলেন উজবেকীয় বংশের শেষ আমির ।


প্রবেশদ্বার:ইসলাম/নির্বাচিত_চিত্র/৮

কৃতিত্ব: বাবা66

সুলতান দ্বিতীয় মাহমুদের তুগরা (طغراء).এতে উল্লেখ রয়েছে মাহমুদ খান, আবদুল হামিদের পুত্র, সর্বদা বিজয়ী.
- محمود خان بن عبدالحميد مظفر دائماً । তুগরা (উসমানীয় তুর্কি: طغرا tuğrâ) উসমানীয় সুলতানদের ক্যালিগ্রাফিক মনোগ্রাম, সিল বা স্বাক্ষর যা বিভিন্ন সরকারি দলিল ও চিঠিতে ব্যবহার হত।প্রাচীন মিশরের কারটুশ ও ব্রিটিশ রাজার রয়েল সাইফারের মত তুগরা কাজ করত। প্রত্যেক উসমানীয় সুলতান তাদের নিজস্ব তুগরা ব্যবহার করতেন।


প্রবেশদ্বার:ইসলাম/নির্বাচিত_চিত্র/৯
কৃতিত্ব: আমেরিকান উপনিবেশ (জেরুজালেম) ছবি বিভাগ.

রামাল্লায় একজন যুবতী নারী , আনু : ১৮৯৮-১৯১৪ ।এইসব পরিচ্ছদসমূহ নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণ তাদের জীবনে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। একজন জ্ঞানসম্পন্ন পর্যবেক্ষকও নির্ধারণ করতে পারেন ,মহিলার বংশোদ্ভূত এবং সামাজিক অবস্থা ,শুধুমাত্র তাঁর পরিচ্ছদসমূহ থেকে ।


প্রবেশদ্বার:ইসলাম/নির্বাচিত_চিত্র/১০

কৃতিত্ব:

ক্রিসেন্ট রমজান মাসে সজ্জিত


মনোনয়নসম্পাদনা

Feel free to add related নির্বাচিত ছবি to the above list. Other pictures may be nominated here.

কৃতিত্ব: বেলায়েত

ষাট গম্বুজ মসজিদ বাংলাদেশের বাগেরহাট জেলার দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থিত একটি প্রাচীন মসজিদ। মসজিদটির গায়ে কোনো শিলালিপি নেই। তাই এটি কে নির্মাণ করেছিলেন বা কোন সময়ে নির্মাণ করা হয়েছিলো সে সম্বন্ধে সঠিক কোনো তথ্য পাওয়া যায় না। তবে মসজিদটির স্থাপত্যশৈলী দেখলে এটি যে খান-ই-জাহান নির্মাণ করেছিলেন সে সম্বন্ধে কোনো সন্দেহ থাকে না। ধারণা করা হয় তিনি ১৫শ শতাব্দীতে এটি নির্মাণ করেন। এ মসজিদটি বহু বছর ধরে ও বহু অর্থ খরচ করে নির্মাণ করা হয়েছিলো। পাথরগুলো আনা হয়েছিলো রাজমহল থেকে। এটি বাংলাদেশের তিনটি বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানের একটির মধ্যে অবস্থিত; বাগেরহাট শহরটিকেই বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানের মর্যাদা দেয়া হয়েছে। ১৯৮৩ খ্রিস্টাব্দে ইউনেস্কো এই সম্মান প্রদান করে।