প্রথমা কাদম্বিনী

প্রথমা কাদম্বিনী হচ্ছে একটি বাংলা ভারতীয় টেলিভিশন ধারাবাহিক যা স্টার জলসায় সম্প্রচারিত হচ্ছে।

প্রথমা কাদম্বিনী
প্রথমা কাদম্বিনী.png
ভিত্তিকাদম্বিনী গঙ্গোপাধ্যায়ের জীবনী
অভিনয়েসোলাঙ্কি রায়
হানি বাফনা
মূল দেশ ভারত
মূল ভাষাবাংলা
নির্মাণ
ব্যাপ্তিকালপ্রায় ২২ মিনিট
নির্মাণ কোম্পানিশ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস
মুক্তি
মূল নেটওয়ার্কস্টার জলসা
প্রথম প্রকাশ১৬ মার্চ ২০২০
ক্রমধারা
পূর্ববর্তীগুড়িয়া যেখানে গুড্ডু সেখানে

এই ধারাবাহিকটির গল্পে কাদম্বিনী গঙ্গোপাধ্যায় এর জীবনীকে তুলে ধরা হয়েছে।

কাহিনী সংক্ষেপসম্পাদনা

১৮৬১ সালে বিহারের ভাগলপুরে ব্রাহ্ম সংস্কারক ব্রজকিশোর বসুর ঘরে জন্মগ্রহণ করে বিনী ।সমাজ যখন অন্ধকারচ্ছন্ন তখন বাবার সুশিক্ষায় উজ্জীবিত হয়ে সমাজকে স্বাভাবিক করার লক্ষ্যে বেড়ে উঠতে থাকে ছোট্ট বিনী। বাবার প্রচেষ্টায় পড়া লেখা শুরু করে সে। কিন্তু তার মা সব কিছুর বিরুদ্ধে।

কয়েক বছর পর

কিশোরী বিনী, লেখা পড়া চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু, মায়ের দাপট থেকে রক্ষা পাওয়া বড় কঠিন হয়ে পরেছে তার পক্ষে, যদিও তার বাবা তার সাথে আছে। মায়ের কারণে বাড়িতে পড়া লেখা করা তার পক্ষে প্রায় অসম্ভব হয়ে পরে। অন্যদিকে, দ্বারকানাথ, আরো একজন সমাজ সংস্কারক, সে হিন্দু সমাজে নারী শিক্ষার জন্য লড়াই করে যাচ্ছে। সে একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গড়ে তোলে। তার স্ত্রী, ভবসুন্দরী সবসময় তাকে নিয়ে চিন্তিত থাকে। তার ভয়, যে দ্বারকানাথ আবার বিয়ে করবে। কারণ, এক পণ্ডিত ভবিষ্যদ্বাণী করেছিলো যে, দ্বারকানাথের দুই স্ত্রী থাকে। ১৮৮৩ খ্রিস্টাব্দে মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি হওয়ার সময়ে দৃঢ় বিরোধিতা করেন ডা. রাজেন্দ্রচন্দ্র চন্দ্র এবং সাথে অন্যান্য প্রফেসর ডাক্তাররাও তাকে এই বিষয়ে পূর্ণ সমর্থন করেন যাতে একজন মহিলা কোনভাবেই মেডিক্যাল কলেজের ছাত্রী হিসেবে না তালিকাভুক্ত হতে পারে৷

অভিনয়েসম্পাদনা

চরিত্র অভিনয়ে
কাদম্বিনী সোলাঙ্কি রায়
দ্বারকানাথ হানি বাফনা
ভবসুন্দরী পায়েল দে
আগমনী শ্রীতমা ভট্টাচার্য
ব্রজকিশোর বসু অনিমেষ ভাদুড়ী
মনোমোহন রোহিত সামন্ত
স্বর্ণলতা দেবী রূপসা চ্যাটার্জি

আরো দেখুনসম্পাদনা