নূর মুহাম্মদ খান

বাংলাদেশী রাজনীতিবিদ


নূর মুহাম্মদ খান বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল এর রাজনীতিবিদ ও টাঙ্গাইল-৬ প্রাক্তন সংসদ সদস্য।[১] তিনি মওলানা ভাসানীর অনুগামী ছিলেন। ছাত্রজীবনে তিনি বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন করেছেন। পরে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-এর রাজনীতি করেছেন। ১৯৭৯-এ বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি অবলুপ্ত করা হলে তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলে যোগদান করেন।

নূর মুহাম্মদ খান
তথ্য ও বেতার প্রতিমন্ত্রী
কাজের মেয়াদ
২৪ নভেম্বর ১৯৭৯ – ২৪ নভেম্বর ১৯৮১
টাঙ্গাইল-৬ আসনের সংসদ সদস্য
কাজের মেয়াদ
২৪ নভেম্বর ১৯৮১ – ২৪ মার্চ ১৯৮২
পূর্বসূরীআব্দুল মান্নান
উত্তরসূরীখন্দকার আবু তাহের
কাজের মেয়াদ
১৮ ফেব্রুয়ারি ১৯৭৯ – ৬ ডিসেম্বর ১৯৯০
ব্যক্তিগত বিবরণ
রাজনৈতিক দলজাতীয় পার্টি
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল

প্রাথমিক জীবনসম্পাদনা

১৯২৫ সালের ১লা মে পেকুয়া উপজেলার গোয়াখালি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা সিরাজুল হক চৌধুরী ও মাতা দিলাঙ্গীর জান চৌধুরানী।

রাজনৈতিক জীবনসম্পাদনা

ছাত্রজীবনে তিনি চীনপন্থী বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন করেছেন। পরে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-এর রাজনীতি করেছেন। তিনি মওলানা ভাসানীর অনুগামী ছিলেন। ১৯৭৯-এ বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি অবলুপ্ত করা হলে তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলে যোগদান করেন।

নূর মুহাম্মদ খান ১৯৭৯ সালের দ্বিতীয় জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের প্রার্থী হিসেবে টাঙ্গাইল-৬ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[১] তিনি জিয়াউর রহমানের মন্ত্রিসভায় এলজিইডি প্রতিমন্ত্রী ও আবদুস সাত্তারের মন্ত্রিসভায় তথ্য ও বেতার প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।[২][৩][৪]

তিনি জাতীয় পার্টিতে যোগদিয়ে ৭ মে ১৯৮৬ সালের তৃতীয় ও ৩ মার্চ ১৯৮৮ সালের চতুর্থ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী টাঙ্গাইল-৬ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।[৫][৬] এরশাদের মন্ত্রিসভায় তিনি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ছিলেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "২য় জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। 
  2. এ এস এম শামসুল আরেফিন। বাংলাদেশে নির্বাচন 
  3. খালেদা হাবিব। বাংলাদেশঃ নির্বাচন, জাতীয় সংসদ ও মন্ত্রিসভা ১৯৭০-৯১ 
  4. মাহফুজ উল্লাহপ্রেসিডেন্ট জিয়া: রাজনৈতিক জীবনী 
  5. "৩য় জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 
  6. "৪র্থ জাতীয় সংসদে নির্বাচিত মাননীয় সংসদ-সদস্যদের নামের তালিকা" (PDF)জাতীয় সংসদবাংলাদেশ সরকার। ৮ জুলাই ২০১৯ তারিখে মূল (PDF) থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০