ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস

ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস বাংলাদেশে পালিত একটি দিবস। এটির পূর্ব নাম আইসিটি দিবস বা তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবস। ২৭ নভেম্বর ২০১৭ তারিখে বাংলাদেশ সরকার এ দিবসটি রাষ্ট্রীয়ভাবে পালনের ঘোষণা দেয়। [১] ২৬ নভেম্বর ২০১৮ তারিখে আইসিটি দিবসের পরিবর্তে এ দিনকে ডিজিটাল বাংলাদেশ হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। প্রতিবছর ১২ ডিসেম্বর জাতীয় ও রাষ্ট্রীয়ভাবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর দিবসটি পালন করে। [২][৩]

ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস
আনুষ্ঠানিক নামডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস
অন্য নামআইসিটি দিবস
তাৎপর্যরূপকল্প ২০২১ এর পরিকল্পনার দিন
শুরু২৭ নভেম্বর ২০১৭
সমাপ্তি২৬ নভেম্বর ২০১৮
তারিখ১২ ডিসেম্বর
প্রথম বার১২ ডিসেম্বর ২০১৮

প্রেক্ষাপটসম্পাদনা

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রাক্কালে যে রূপকল্প ২০২১ বাস্তবায়নের ঘোষণা দেন তার মূল শিরোনাম ছিল ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’। ১২ ডিসেম্বর ২০০৮ তারিখে ডিজিটাল বিপ্লবের ঘোষণা আসে । এ দিন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের অঙ্গীকার করা হয়। [১] দিবসটি উদযাপনে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তরের উদ্যোগে ও ইয়াং বাংলার আয়োজনে অনলাইন প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদফতর এবং বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্কের (বিডিওএসএন) সহযোগিতায় বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলের শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাবে বিভিন্ন প্রতিযোগিতামূলক কর্মসূচি থাকে। [২]

কর্মসূচিসম্পাদনা

  • তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিযোগিতা
  • র‌্যালি
  • আলোচনা সভা
  • প্রযুক্তি বিষয়ক কর্মশালা[তথ্যসূত্র প্রয়োজন]

আরো পড়ুনসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "'জাতীয় আইসিটি দিবস' পালনে মন্ত্রিসভার অনুমোদন"চ্যানেল আই। ২৭ নভেম্বর ২০১৭। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুন ২০১৯ 
  2. "ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস ১২ ডিসেম্বর"দৈনিক যুগান্তর। ২৬ নভেম্বর ২০১৮। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুন ২০১৯ 
  3. "ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস"তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি অধিদপ্তর। সংগ্রহের তারিখ ১৬ জুন ২০১৯