জ্যাক রিডম্যান

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার

জন কোল জ্যাক রিডম্যান (ইংরেজি: Jack Reedman; জন্ম: ৯ অক্টোবর, ১৮৬৫ - মৃত্যু: ২৯ মার্চ, ১৯২৪) দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার গিলবার্টন এলাকায় জন্মগ্রহণকারী অস্ট্রেলীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার ও অস্ট্রেলীয় রুলস ফুটবলার ছিলেন।[১] অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৮৯৪ সালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

জ্যাক রিডম্যান
জ্যাক রিডম্যান.jpg
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামজন কোল রিডম্যান
জন্ম(১৮৬৫-১০-০৯)৯ অক্টোবর ১৮৬৫.
গিলবার্টন, দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়া
মৃত্যু২৯ মার্চ ১৯২৪(1924-03-29) (বয়স ৫৮)
উত্তর অ্যাডিলেড, অস্ট্রেলিয়া
ডাকনামডিনি
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি মিডিয়াম
ভূমিকাঅল-রাউন্ডার
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
একমাত্র টেস্ট
(ক্যাপ ৬৮)
১৪ ডিসেম্বর ১৮৯৪ বনাম ইংল্যান্ড
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট এফসি
ম্যাচ সংখ্যা ৮১
রানের সংখ্যা ২১ ৩৩৩৮
ব্যাটিং গড় ১০.৫০ ২৩.৩৪
১০০/৫০ ০/০ ২/১৫
সর্বোচ্চ রান ১৭ ১১৩
বল করেছে ৫৭
উইকেট ১১৮
বোলিং গড় ২৪.০০ ৩২.১০
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট
সেরা বোলিং ১/১২ ৭/৫৪
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ১/০ ৬৮/০
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটে সাউথ অস্ট্রেলিয়া দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডার হিসেবে খেলতেন। ডানহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ডানহাতে মিডিয়াম বোলিং করতেন জ্যাক রিডম্যান। ‘ডিনি’ ডাকনামে পরিচিত ছিলেন জন রিডম্যান

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটসম্পাদনা

১৮৮৭-৮৮ মৌসুম থেকে ১৯০৮-০৯ মৌসুম পর্যন্ত জন রিডম্যানের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। কার্যকর ব্যাটিংশৈলীর অধিকারী হলেও দৃষ্টিনন্দন ব্যাটসম্যানের মর্যাদা পাননি তিনি। কার্যকরী পরিবর্তিত বোলার ও সঠিক মানের দক্ষ ফিল্ডারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হতেন। মাঠের বেশ ক্ষাণিকটা অংশ দখল করে রাখতেন ও নিপুণ দক্ষতা সহকারে বল ফেরৎ পাঠাতেন তিনি। ইংল্যান্ড গমনের সুযোগ পাননি। কিন্তু নিজদেশে বেশ কয়েকবছর সেরাদের কাতারে ছিলেন।

কয়েকবছর রাজ্য দল সাউথ অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়কত্ব করেন। মার্চ, ১৮৯৪ সালে অ্যাডিলেডে ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে ১১৩ এবং ১৯০৪-০৫ মৌসুমে একই দলের বিপক্ষে ১৪৯ রান খরচায় তেরো উইকেট পান। ৭/৫৪ ও ৬/৯৫ বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন। মার্চ, ১৮৯৯ সালে বহিঃএকাদশ বনাম অস্ট্রেলীয় একাদশের মধ্যকার খেলায় বহিঃএকাদশের পক্ষে খেলেন। প্রথম ইনিংসে ৫১ ও দ্বিতীয় ইনিংসে ১০৮ রান তুলেন তিনি। স্বাগতিক দল ৫৮৬ রানের বিশাল ইনিংস খেললেও নাটকীয়ভাবে ১০ রানে পরাজয়বরণ করেছিল।

১৭ ফেব্রুয়ারি, ১৮৮৮ তারিখে অ্যাডিলেডে ভিক্টোরিয়ার বিপক্ষে সাউথ অস্ট্রেলিয়ার সদস্যরূপে প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। অল-রাউন্ডার হিসেবে খেলতে নেমে জন রিডম্যান খেলার একমাত্র ইনিংসে শূন্য রানে বিদেয় নেন ও বোলিং করার সুযোগ পাননি। তাসত্ত্বেও, তার দল ইনিংস ও ১১৩ রানে বিজয়ী হয়।[২] শুরুটা বেশ খারাপ হওয়া সত্ত্বেও জন রিডম্যানকে সাউথ অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়কের দায়িত্বভার প্রদান করা হয়।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটসম্পাদনা

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে একটিমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন জন রিডম্যান। ১৪ ডিসেম্বর, ১৮৯৪ তারিখে সিডনিতে সফরকারী ইংল্যান্ড দলের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার। এটিই তার একমাত্র টেস্টে অংশগ্রহণ ছিল। এরপর আর তাকে কোন টেস্টে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়নি।

১৮৯৪-৯৫ মৌসুমে এই স্টডার্টের নেতৃত্বাধীন ইংল্যান্ড দল অস্ট্রেলিয়া গমন করে। অ্যাশেজ সিরিজে নিজস্ব একমাত্র টেস্টে অংশ নেন তিনি। এসসিজিতে অনুষ্ঠিত ঐ টেস্টে তিনি ১৭ ও ৪ রান করেন। বল হাতে নিয়ে ১/১২ ও ০/১২ বোলিং পরিসংখ্যান গড়েন।[৩]

ব্যক্তিগত জীবনসম্পাদনা

ঊনবিংশ শতকের গোড়ার দিক থেকে শুরু করে বিংশ শতকের শুরুরদিক পর্যন্ত শীর্ষস্থানীয় অস্ট্রেলীয় ক্রীড়াবিদ ছিলেন তিনি। ১৮৮৪ সালে অস্ট্রেলীয় রুলস ফুটবলার হিসেবে স্বীয় প্রতিভার বিচ্ছুরণ ঘটান। অবসর গ্রহণের পর ১৯০৮ সালে ওয়েস্ট অ্যাডিলেড ফুটবল ক্লাবের কোচ হিসেবে নিযুক্তি লাভ করেন।[৪] ক্রিকেট ও ফুটবল খেলার পাশাপাশি এক সময় দূরপাল্লার সাঁতারেও তিনি সিদ্ধহস্তের পরিচয় দিয়েছিলেন।[৫]

অনেকগুলো বছর অ্যাডিলেডের সেন্ট পিটার্স কলেজের কোচের দায়িত্ব পালন করেন। নর্থ অ্যাডিলেড সিসি দলের অধিনায়ক ছিলেন। শীর্ষসারির ফুটবলার হিসেবেও সুনাম কুড়িয়েছেন তিনি। পেশা হিসেবে তিনি ডাকপিয়ন ছিলেন। ২৯ মার্চ, ১৯২৪ তারিখে ৫৮ বছর বয়সে উত্তর অ্যাডিলেড এলাকায় জন রিডম্যানের দেহাবসান ঘটে।

১৯৯৬ সালে অস্ট্রেলীয় ফুটবল হল অব ফেমে তাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়। ২০০২ সালে সাউথ অস্ট্রেলিয়া হল অব ফেমে অন্তর্ভুক্ত হন। জ্যাক রিডম্যানের ভাই সিড রিডম্যান সাউথ অ্যাডিলেড দলের অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছিলেন।[৬]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "Jack Reedman"Sporting Globe, (175)। Victoria, Australia। ২ এপ্রিল ১৯২৪। পৃষ্ঠা 7। সংগ্রহের তারিখ ২০ জুন ২০১৭ – National Library of Australia-এর মাধ্যমে। 
  2. "South Australia v Victoria – Other First-Class matches in Australia 1887/88"cricketarchive.com। Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ১১ আগস্ট ২০১২ 
  3. "Australia v England AE Stoddart's XI in Australia 1894/95 (1st Test)"www.cricketarchive.com। Cricket Archive। সংগ্রহের তারিখ ১১ আগস্ট ২০১২ 
  4. Atkinson, p. 158.
  5. "Jack Reedman"Australian Football। australianfootball.com। সংগ্রহের তারিখ ১১ আগস্ট ২০১২ 
  6. Atkinson, p. 33.

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা

গ্রন্থপঞ্জীসম্পাদনা