প্রধান মেনু খুলুন

জেলে ত্রিশ বছর - ব্রিটিশ :পাক-ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস হচ্ছে ত্রৈলোক্যনাথ চক্রবর্তী রচিত আত্মজীবনীমূলক গ্রন্থ। সুবোধ সেনগুপ্ত ও অঞ্জলি বসু সম্পাদিত, সংসদ বাঙালি চরিতাভিধান, প্রথম খণ্ড, সাহিত্য সংসদ, কলকাতা, সংশোধিত পঞ্চম সংস্করণ, তৃতীয় মুদ্রণ: নভেম্বর ২০১৩, পৃষ্ঠা ২৭৮, আইএসবিএন ৯৭৮-৮১-৭৯৫৫-১৩৫-৬ বইটি ১৯৫৩ সালে প্রথম প্রকাশিত হয় এবং ব্যক্তিগত উদ্যোগে লেখক নিজেই প্রকাশ করেন।[১]

জেলে ত্রিশ বছর
জেলে ত্রিশ বছর.gif
জেলে ত্রিশ বছর গ্রন্থের প্রচ্ছদ
লেখকত্রৈলোক্যনাথ চক্রবর্তী
দেশবাংলাদেশ
ভাষাবাংলা
ধরনআত্মজীবনী
প্রকাশকস্বপ্রকাশিত
প্রকাশনার তারিখ
১৯৫৩
মিডিয়া ধরনছাপা

নিষিদ্ধ ও বাজেয়াপ্তসম্পাদনা

জেলে ত্রিশ বছর বইটি তদানীন্তন পাকিস্তান সরকার নিষিদ্ধ ও বাজেয়াপ্ত ঘোষণা করে।

আন্দামানের জীবনসম্পাদনা

এই বইয়ে আন্দামানের সেলুলার জেলের বন্দিদের জীবনের মর্মস্পর্শী বিবরণ আছে। আন্দামানের বন্দি জীবন ছিলো অমানবিক ও দুঃসহ। প্রায় জনমানবহীন দ্বীপের মধ্যে বিচ্ছিন্ন অবস্থায় ছোট ছোট সেলে আবদ্ধ থাকার সশ্রম দণ্ডে অনেকেই মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলতেন, কেউ কেউ আত্মহত্যা পর্যন্ত করতেন।[২]

আলোকচিত্রসম্পাদনা

উক্ত বইটিতে তাঁর সংগৃহীত ৩২০ জন বিপ্লবী ও স্বাধীনতা সংগ্রামীদের আলোকচিত্র আছে। এর সাথে আছে বহু বিপ্লবীর নাম, নিবাস, সংক্ষিপ্ত পরিচয় ও বিপ্লবী কর্মকান্ডের বিবরন। ভারতীয় স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম আকর গ্রন্থ হিসেবে এই বইটি সুপরিচিত।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. ত্রৈলোক্যনাথ চক্রবর্তী, জেলে ত্রিশ বছর, পাক-ভারতের স্বাধীনতা সংগ্রাম, ধ্রুপদ সাহিত্যাঙ্গন, ঢাকা, ঢাকা বইমেলা ২০০৪, পৃষ্ঠা ৩।
  2. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী (জানুয়ারি ২০১৫)। জাতীয়তাবাদ, সাম্প্রদায়িকতা ও জনগণের মুক্তি। ঢাকা: সংহতি। পৃষ্ঠা ৪৯-৫০। আইএসবিএন 978-984-8882-86-3