প্রধান মেনু খুলুন

জেমস স্টুয়ার্ট

মার্কিন অভিনেতা

জেমস মেইটল্যান্ড স্টুয়ার্ট (ইংরেজি: James Maitland Stewart; ২০ই মে, ১৯০৮ - ২রা জুলাই, ১৯৯৭) ছিলেন একজন মার্কিন অভিনেতা ও সেনা কর্মকর্তা। তিনি চলচ্চিত্র ইতিহাসের সবচেয়ে সম্মানিত ও জনপ্রিয় তারকাদের একজন। তাঁর অভিনীত বেশ কিছু চলচ্চিত্র ধ্রুপদী চলচ্চিত্রের আখ্যা লাভ করেছে। স্টুয়ার্ট তাঁর চলচ্চিত্র কর্মজীবনে পাঁচবার শ্রেষ্ঠ অভিনেতার জন্য একাডেমি পুরস্কারের মনোনয়ন লাভ করেন এবং দ্য ফিলাডেলফিয়া স্টোরি (১৯৪০) চলচ্চিত্রের জন্য একবার এই পুরস্কার লাভ করেন এবং আজীবন কর্মের স্বীকৃতি স্বরূপ ১৯৮৫ সালে একাডেমি সম্মানসূচক পুরস্কার লাভ করেন। ১৯৬৮ সালে তাকে স্ক্রিন অ্যাক্টরস গিল্ড আজীবন সম্মাননা পুরস্কার প্রদান করা হয়। ১৯৯৯ সালে আমেরিকান ফিল্ম ইনস্টিটিউট তাঁকে হলিউডের স্বর্ণযুগের তৃতীয় সেরা পুরুষ কিংবদন্তীর স্বীকৃতি দান করে, তাঁর উপরে ছিল হামফ্রী বোগার্টক্যারি গ্র্যান্ট[২] এছাড়া আমেরিকান ফিল্ম ইনস্টিটিউটের করা ১০০ সেরা মার্কিন চলচ্চিত্রের তালিকায় স্টুয়ার্টের পাঁচটি চলচ্চিত্র অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।[৩]

জেমস স্টুয়ার্ট
Annex - Stewart, James (Call Northside 777) 01.jpg
১৯৪৮ সালে জেমস স্টুয়ার্ট
স্থানীয় নাম
James Stewart
জন্ম
জেমস মেইটল্যান্ড স্টুয়ার্ট

(১৯০৮-০৫-২০)২০ মে ১৯০৮
মৃত্যু২ জুলাই ১৯৯৭(1997-07-02) (বয়স ৮৯)
মৃত্যুর কারণPulmonary embolism[১]
সমাধিফরেস্ট লন মেমোরিয়াল পার্ক, গ্লেনডেল, ক্যালিফোর্নিয়া
অন্য নামজিমি স্টুয়ার্ট
শিক্ষাবি.এ. (১৯৩২)
যেখানের শিক্ষার্থীপ্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়
পেশাঅভিনেতা, সেনা কর্মকর্তা
কার্যকাল১৯৩২–১৯৯১
যে জন্য পরিচিতদ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে যোগদানকারী প্রথম মার্কিন চলচ্চিত্র তারকা[ক]
উল্লেখযোগ্য কর্ম
পূর্ণ তালিকা
রাজনৈতিক দলরিপাবলিকান
দাম্পত্য সঙ্গীগ্লোরিয়া হ্যাট্রিক ম্যাকলিন (বি. ১৯৪৯; মৃ. ১৯৯৪)
সন্তান
পুরস্কারপূর্ণ তালিকা

তিনি তাঁর সেনা কর্মজীবনের জন্য প্রসিদ্ধ। তিনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধভিয়েতনাম যুদ্ধে অংশগ্রহণ করা সেনা কর্মকর্তা এবং পাইলট। তিনি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিমান বাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল র‍্যাংক পর্যন্ত উত্তীর্ণ হন। ফলে তিনি এখন পর্যন্ত সামরিক ইতিহাসের সর্বোচ্চ র‍্যাংকধারী অভিনেতা।[৪]

পরিচ্ছেদসমূহ

প্রারম্ভিক জীবনসম্পাদনা

 
আফটার দ্য থিন ম্যান (১৯৩৬) চলচ্চিত্রে স্টুয়ার্ট।

জেমস মেইটল্যান্ড স্টুয়ার্ট ১৯০৮ সালে ২০ই মে পেনসিলভানির ইন্ডিয়ানায় জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতা আলেকজান্ডার স্টুয়ার্ট (১৯ই মে, ১৮৭১ - ২৮ ডিসেম্বর, ১৯৬১) ছিলেন একজন হার্ডওয়্যার স্টোরের মালিক এবং মাতা এলিজাবেথ রুথ (জন্মনাম জ্যাকসন, ১৬ই মার্চ, ১৮৭৫ - ২রা আগস্ট, ১৯৫৩)[৫][৬] স্টুয়ার্ট মূলত স্কটিশ বংশোদ্ভূত এবং প্রেসবাইটেরিয়ান হিসেবে বেড়ে ওঠেন।[৭][৮][৯] তাঁর পূর্বপুরুষদের মধ্যে কয়েকজন মার্কিন বিপ্লব, ১৮১২ সালে যুদ্ধ ও মার্কিন স্বাধীনতা যুদ্ধে অংশগ্রহণকারী রয়েছেন।[৯] স্টুয়ার্ট তাঁর তিন ভাইবোনের মধ্যে সবার বড়। তাঁর ছোট দুই বোন ভার্জিনিয়া উইলসন স্টুয়ার্ট এবং ম্যারি কেলি স্টুয়ার্ট। কিশোর বয়সে স্টুয়ার্টকে তাঁর পিতার স্টোরে উত্তরাধিকারী হিসেবে ভাবা হত এবং ধারণা করা হত তিনি তাদের তিন প্রজন্ম ধরে চলে আসা পারিবারিক ব্যবসায় দেখাশুনা করবেন।[১০][১১] তাঁর মা খুব ভালো পিয়ানো বাজাতে পারতেন, কিন্তু তাঁর পিতা তাঁকে সঙ্গীতের তালিম গ্রহণ করতে নিষেধ করেন। একবার একজন অতিথি তাঁকে একটি একর্ডিয়ান উপহার দিলে তিনি খুব দ্রুতই তা বাজানো শিখেন। ধীরে ধীরে সঙ্গীত এই পরিবারের গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ হয়ে ওঠে।[১১]

স্টুয়ার্ট মার্সেলবার্গ একাডেমি প্রিপারেটরি স্কুলে পড়াশুনা করেন এবং ১৯২৮ সালে সেখান থেকে পড়াশুনা সমাপ্ত করেন। তিনি বিভিন্ন কাজের সাথে জড়িত ছিলেন। তিনি ফুটবল ও ট্র্যাক দলের হয়ে খেলতেন, বাৎসরিক সাময়িকী কারুক্সের সম্পাদক ছিলেন, এবং চোইয়ার ক্লাব ও জন মার্শাল লিটারেরি সোসাইটির সদস্য ছিলেন। প্রথম গ্রীষ্মকালীন ছুটিতে নিজ শহরে ফিরে এসে স্টুয়ার্ট স্থানীয় দালান নির্মাণ কোম্পানির শ্রমিক হিসেবে এবং হাইওয়ে ও রাস্তা নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানের হয়ে রাস্তায় দাগ ঠানার কাজ করতেন। পরবর্তী দুইটি গ্রীষ্মের ছুটিতে তিনি একজন পেশাদার জাদুকরের সহকারী হিসেবে কাজ করেন।[১২] তিনি দ্য উল্‌ভ্‌স নাটকের মধ্য দিয়ে প্রথম মঞ্চে অভিনয় করেন। মার্সেলবার্গে মঞ্চস্থ এই নাটকে তিনি বাকেট চরিত্রে অভিনয় করেন।[১৩]

ব্রডওয়ে অভিনয়সম্পাদনা

  • ক্যারি নেশন (অক্টোবর - নভেম্বর ১৯৩২) - কনস্টেবল গানো
  • গুডবাই অ্যাগেইন (ডিসেম্বর ১৯৩২ - জুলাই ১৯৩৩) - গৃহভৃত্য
  • স্প্রিং ইন অটাম (অক্টোবর - নভেম্বর ১৯৩৩) - জ্যাক ব্রেনান
  • অল গুড আমেরিকান্স (ডিসেম্বর ১৯৩৩ - জানুয়ারি ১৯৩৪) - জনি চ্যাডউইক
  • ইয়েলো জ্যাক (মে ১৯৩৪) - সার্জেন্ট জন ওহারা
  • ডিভাইডেড বাই থ্রি (অক্টোবর ১৯৩৪) - টেডি প্যারিস
  • পেজ মিস গ্লোরি (নভেম্বর ১৯৩৪ - মার্চ ১৯৩৫) - এড ওলসেন
  • আ জার্নি বাই নাইট (এপ্রিল ১৯৩৫) - কার্ল
  • হার্ভি (জুলাই - আগস্ট ১৯৪৭, জুলাই - আগস্ট ১৯৪৮) - এলউড পি. ডড
  • হার্ভি (পুনর্জীবিতকরণ, ফেব্রুয়ারি - মে ১৯৭০) - এলউড পি. ডড
  • আ গালা ট্রিবিউট টু জশুয়া লোগান (৯ মার্চ ১৯৭৫) - স্বয়ং

পাদটীকাসম্পাদনা

  1. MGM head Louis B. Mayer first tried to talk Stewart out of enlisting, claiming he would be sacrificing his career. "Mayer was just so desperate to say something that would keep me from enlisting", recalls Stewart... I said, "Mr. Mayer, this country's conscience is bigger than all the studios in Hollywood put together, and the time will come when we'll have to fight...The next thing he did was announce a big going-away party for me, and every star at the studio was summoned to be there... That was one big party."

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "James Stewart, the Hesitant Hero, Dies at 89"দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। জুলাই ৩, ১৯৯৭। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০১৮ 
  2. "AFI's 100 Years ... 100 Stars"আমেরিকান ফিল্ম ইনস্টিটিউট (ইংরেজি ভাষায়)। জুন ১৬, ১৯৯৯। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০১৮ 
  3. "1980 JAMES STEWART TRIBUTE"আমেরিকান ফিল্ম ইনস্টিটিউট (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৯ জানুয়ারি ২০১৮ 
  4. Smith, Lynn (মার্চ ৩০, ২০০৩)। "In Supporting Roles"। লস অ্যাঞ্জেলেস টাইমস (ইংরেজি ভাষায়)। পৃষ্ঠা 193। 
  5. "James Stewart profile". FilmReference.com. Retrieved January 11, 2011.
  6. "Ancestry of Jimmy Stewart". genealogy.about.com. Retrieved October 28, 2012.
  7. "Movies: Best Pictures". The New York Times. Retrieved March 7, 2012.
  8. "Jimmy Stewart profile". adherents.com. Retrieved March 7, 2012.
  9. Eliot 2006, pp. 11–12.
  10. "Fourteenth Census of the United States: 1920", enumeration dates January 8–9, 1920; 4th Ward, Indiana Borough, Indiana County, Pennsylvania. Digital copy of original census page, FamilySearch. Retrieved August 3, 2017.
  11. Eliot 2006, p. 15.
  12. "Biography"The Jimmy Stewart Museum (ইংরেজি ভাষায়)। সংগ্রহের তারিখ ১৮ মার্চ ২০১৮ 
  13. Eliot 2006, p. 31.

বহিঃসংযোগসম্পাদনা