প্রধান মেনু খুলুন

জুলিয়া রবার্টস (ইংরেজীতে: Julia Roberts) (জন্ম অক্টোবর ২৮, ১৯৬৭) একজন মার্কিন অভিনেত্রী। ১৯৯০ সালে রোমানটিক কমেডি চলচ্চিত্র প্রেটি ওম্যান-এ অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। এই চলচ্চিত্রটি বিশ্বব্যাপী প্রায় ৪৬৪ মিলিয়ন ডলার আয় করে। স্টিল ম্যাগনোলিয়াসপ্রেটি ওম্যান চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ড পুরস্কারের জন্য মনোনীট হন। এরিন ব্রোকোভিচ চলচ্চিত্রে কাজের জন্য ২০০১ সালে জুলিয়া রবার্টস অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডস ফর বেস্ট অ্যাক্ট্রেস অর্জন করেন। এছাড়া জুলিয়া রবার্টস অভিনীত মাই বেস্ট ফ্রেন্ডস ওয়েডিং, মিস্টিক পিজা, রানওয়ে ব্রাইড, চ্যালেনটাইনস ডে, ওশেনস ইলেভেন, নটিং হিল, দ্য পেলিক্যান ব্রিফ এবং টুয়েলভ চলচ্চিত্রসমূহ বিশ্বব্যাপী ২.৪ বিলিয়ন ডলারেরও অধিক আয়ের মাধ্যমে বাণিজ্যিক সাফল্য অর্জন করে। তিনি হলিউডের অন্যতম বাণিজ্যিকভাবে সফল অভিনেত্রী।[১]

জুলিয়া রবার্টস
Julia Roberts in May 2002.jpg
২০০২ সালে জুলিয়া রবার্টস
জন্ম
জুলিয়া ফ্লোনা রবার্টস
পেশাঅভিনেত্রী
কার্যকাল১৯৮৭–বর্তমান
দাম্পত্য সঙ্গীলাইল লভেট (১৯৯৩–১৯৯৫) (বিবাহবিচ্ছেদপ্রাপ্ত)
ড্যানিয়েল মডার (২০০২–বর্তমান)
২ জন পুত্র, ১ জন কন্যা

রবার্টস হলিউড তথা বিশ্বের অন্যতম সর্বাধিক পারিশ্রমিক প্রাপ্ত অভিনেত্রী। ২০০২ থেকে ২০০৬ পর্যন্ত তিনি ছিলেন হলিউডের সর্বাধিক পারিশ্রমিক প্রাপ্ত অভিনেত্রী। প্রেটি ওম্যান চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি পারিশ্রমিক হিসেবে ৩০০,০০০ ডলার পেয়েছিলেন।মোনা লিসা স্মাইল চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য তিনি পেয়েছিলেন ২৫ মিলিয়ন ডলার। ২০০৭ সাল নাগাদ তাঁর মোট আয়ের পরিমাণ ১৪০ মিলিয়ন ডলার।[২]

জুলিয়া রবার্টস প্রথম অভিনেত্রী হিসেবে ভগ ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদে স্থান পান। পিপল ম্যাগাজিন হ্যালি বেরির পাশাপাশি তাঁকে এগারোবার বিশ্বের সেরা ৫০ সুন্দরী দের অন্যতম বলে অভিহিত করেছে। লেডিস হোম জার্নাল তাঁকে যুক্তরাষ্ট্রের ১১তম ক্ষমতাশীল ও প্রভাবশালী নারী হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। এক্ষেত্রে কন্ডোলিৎসা রাইস এবং ফার্স্ট লেডি লরা বুশ জুলিয়া রবার্টসেরও পেছনে স্থান পান।[৩] রবার্টসের একটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান রয়েছে, এর নাম রেড ওম ফিল্মস।

পরিচ্ছেদসমূহ

হিন্দুত্ব ধারণসম্পাদনা

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "People Index"। Box Office Mojo। ২০১০-০২-০৫। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৮-০৪ 
  2. "The 20 Richest Women In Entertainment"। Forbes.com। ২০০৭-০১-১৭। সংগ্রহের তারিখ ২০১০-০৮-০৬ 
  3. "The power index"। ১৭ মার্চ ২০০৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ 

আরও পড়ুনসম্পাদনা

  • Mark Bego. Julia Rica's Sweetheart (New York: AMI Books, 2003)
  • PaulDonnelley. Julia Roberts Confidential: The Unauthorised Biography (London: Virgin, 2003)
  • Frank Sanello. Julia Roberts: Pretty Superstar (Edinburgh: Mainstream 2000)
  • James Spada. Julia: Her Life (New York: St Martin's Press, 2004)

বহিঃসংযোগসম্পাদনা