প্রধান মেনু খুলুন

জেনারেল জয়ন্ত নাথ চৌধুরী, অর্ডার অব দ্যা ব্রিটিশ এম্পায়ার (ওবিই) (১০ জুন ১৯০৮- ৬ এপ্রিল ১৯৮৩) ভারতীয় সেনাবাহিনীর একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ছিলেন যিনি ১৯৬২ সাল থেকে ১৯৬৬ সাল পর্যন্ত ভারতীয় স্থলসেনার প্রধান অধিনায়ক ছিলেন। ১৯৪৮ সালে তিনি তৎকালীন হায়দ্রাবাদ রাজ্যের সামরিক গভর্নর ছিলেন। সেনা থেকে অবসরের পর জয়ন্ত ১৯৬৬ সালে কানাডায় রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিয়োগ পান।[১]

জেনারেল
জয়ন্ত নাথ চৌধুরী
অর্ডার অব দ্যা ব্রিটিশ এম্পায়ার
General Jayanto Nath Chaudhuri.jpg
সেনাবাহিনী প্রধান
কাজের মেয়াদ
২০ নভেম্বর ১৯৬২ – ৭ জুন ১৯৬৬
পূর্বসূরীপ্রাণ নাথ থাপার
উত্তরসূরীপরমশিব প্রভাকর কুমারমঙ্গল
কানাডায় নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত
কাজের মেয়াদ
জুলাই ১৯৬৬ – আগস্ট ১৯৬৯
পূর্বসূরীবি কে আচার্য
উত্তরসূরীএ বি ভাঁড়কামকার
হায়দ্রাবাদ রাজ্যের সামরিক প্রশাসক
কাজের মেয়াদ
১৯৪৮ – ১৯৪৯
ব্যক্তিগত বিবরণ
জন্ম১০ জুন ১৯০৮
মৃত্যু৬ এপ্রিল ১৯৮৩
পুরস্কারIND Padma Vibhushan BAR.png পদ্মবিভূষণ
অর্ডার অব দ্যা ব্রিটিশ এম্পায়ার
সামরিক পরিষেবা
ডাকনামমোচু
আনুগত্য ব্রিটিশ ভারত
 ভারত
শাখা ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনী
 ভারতীয় সেনাবাহিনী
কাজের মেয়াদ১৯২৮-১৯৬৬
পদGeneral of the Indian Army.svgজেনারেল
ইউনিট৭ম লাইট ক্যাভালরি
১৬তম লাইট ক্যাভালরি
কমান্ডIA Southern Command.jpg ভারতীয় সেনাবাহিনী সাউদার্ন কমান্ড
১ম সাঁজোয়া ডিভিশন
মিলিটারি অপারেশন্স এবং ইন্টেলিজেন্স এর পরিচালক
১৬তম লাইট ক্যাভালরি
যুদ্ধদ্বিতীয় মহাযুদ্ধ
  • ইস্ট আফ্রিকান ক্যাম্পেইন
  • ওয়েস্টার্ন ডেজার্ট ক্যাম্পেইন
  • বার্মা ক্যাম্পেইন ১৯৪৪-১৯৪৫
ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ ১৯৪৭
অপারেশন পোলো
ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধ ১৯৬৫

জয়ন্ত কোলকাতার সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজ, কোলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় এবং লন্ডনের হাইগেট স্কুলে পড়তেন, রাজকীয় সেনা কলেজ স্যান্ডহার্স্টে প্রশিক্ষণে থাকাকালীন সবাই তাকে 'মোচু' বলে ডাকতো।

সামরিক বাহিনীতে জয়ন্তসম্পাদনা

১৯২৮ সালের ২ ফেব্রুয়ারী জয়ন্ত ভারতীয় সেনাবাহিনীর আনএ্যাটাচ্ড লিস্টে কমিশন পান; তিনি যুক্তরাজ্যের স্যান্ডহার্স্টে প্রশিক্ষণরত ছিলেন।[২] ভারতে ফিরে আসার পর জয়ন্ত নর্থ স্ট্যাফোর্ডশায়ার রেজিমেন্টের ১ম ব্যাটেলিয়নে নিয়োগ পান, তারিখটি ছিলো ১৯ মার্চ ১৯২৮। ১৯ মার্চ ১৯২৯ তারিখে জয়ন্ত ৭ম লাইট ক্যাভালরি রেজিমেন্টে নিয়োগ পান।[৩] ১৯৩০ সালের ২ইমে জয়ন্ত ২য় লেফটেন্যান্ট থেকে লেফটেন্যান্ট হন।[৪][৫] ১৯৩৪ সালে লেফটেন্যান্ট জয়ন্ত ইকুইটেশন কোর্স করেন। ১৯৩৭ সালের ২ই ফেব্রুয়ারী জয়ন্ত ক্যাপ্টেন র‍্যাঙ্ক পরিধান করেন,[৬] বর্তমান পাকিস্তানস্থিত কোয়েটার কমান্ড এ্যান্ড স্টাফ কলেজে জয়ন্ত স্টাফ কোর্স করেন ১৯৩৯ সালের ডিসেম্বর থেকে ১৯৪০ সালের জুন পর্যন্ত।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "সংরক্ষণাগারভুক্ত অনুলিপি"। ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৫ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ 
  2. "নং. 33353"দ্যা লন্ডন গেজেট (ইংরেজি ভাষায়)। ৩ ফেব্রুয়ারি ১৯২৮। 
  3. "নং. 33510"দ্যা লন্ডন গেজেট (ইংরেজি ভাষায়)। ২৮ জুন ১৯২৯। 
  4. "নং. 33613"দ্যা লন্ডন গেজেট (ইংরেজি ভাষায়)। ৬ জুন ১৯৩০। 
  5. "নং. 33632"দ্যা লন্ডন গেজেট (ইংরেজি ভাষায়)। ৮ আগস্ট ১৯৩০। 
  6. "নং. 34381"দ্যা লন্ডন গেজেট (ইংরেজি ভাষায়)। ১৯ মার্চ ১৯৩৭।