গ্রেইম লেব্রয়

শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার

গ্রেইম ফ্রেডরিক লেব্রয় (সিংহলি: ග්‍රැහැම් ලැබ්‍රෝයි; জন্ম: ৭ জুন, ১৯৬৪) কলম্বোয় জন্মগ্রহণকারী সাবেক শ্রীলঙ্কান আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার, ম্যাচ রেফারি ও দল নির্বাচক। শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৮৬ থেকে ১৯৯২ সময়কালে শ্রীলঙ্কার পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

গ্রেইম লেব্রয়
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামগ্রেইম ফ্রেডরিক লেব্রয়
জন্ম৭ জুন, ১৯৬৪
কলম্বো, শ্রীলঙ্কা
ব্যাটিংয়ের ধরনডানহাতি
বোলিংয়ের ধরনডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম
ভূমিকাঅল-রাউন্ডার, ম্যাচ রেফারি, দল নির্বাচক
সম্পর্কওয়েনডেল লেব্রয় (ভ্রাতা)
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ ৩৮)
১৭ ডিসেম্বর ১৯৮৬ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট১ মার্চ ১৯৯১ বনাম নিউজিল্যান্ড
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ৫০)
২৭ নভেম্বর ১৯৮৬ বনাম ভারত
শেষ ওডিআই৯ মার্চ ১৯৯২ বনাম ইংল্যান্ড
ঘরোয়া দলের তথ্য
বছরদল
১৯৮৬/৮৭ - ১৯৯৩/৯৪কলম্বো ক্রিকেট ক্লাব
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই
ম্যাচ সংখ্যা ৪৪
রানের সংখ্যা ১৫৮ ২৪৯
ব্যাটিং গড় ১৪.৩৬ ৮.৫৮
১০০/৫০ -/১ -/-
সর্বোচ্চ রান ৭০* ৩৩
বল করেছে ২১৫৮ ২৩০৮
উইকেট ২৭ ৪৫
বোলিং গড় ৪৪.২২ ৪১.৬৮
ইনিংসে ৫ উইকেট
ম্যাচে ১০ উইকেট - -
সেরা বোলিং ৫/১৩৩ ৫/৫৭
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ৩/- ৮/-
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৭ এপ্রিল ২০১৬

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটে কলম্বো ক্রিকেট ক্লাবের পক্ষে খেলেছিলেন। দলে তিনি মূলতঃ অল-রাউন্ডারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন। ডানহাতে ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ডানহাতে ফাস্ট মিডিয়াম বোলিংয়ে পারদর্শিতা দেখিয়েছেন গ্রেইম লেব্রয়

খেলোয়াড়ী জীবনসম্পাদনা

১৯৮৬ থেকে ১৯৯২ মেয়াদে শ্রীলঙ্কা দলের পক্ষে ৯টি টেস্ট ও ৪৪টি একদিনের আন্তর্জাতিকে অংশ নিয়েছেন। এছাড়াও প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটে ৩৩.৫৬ গড়ে ১২৪ উইকেট পেয়েছেন। কিন্তু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে তার বোলিং গড় চল্লিশের মাঝামাঝি। মাঝারীমানের ব্যাটিং দক্ষতার কারণে মাঝেমধ্যেই অল-রাউন্ড নৈপুণ্য প্রদর্শনে সক্ষমতা দেখাতে পেরেছিলেন। তন্মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৭ উইকেট দখলসহ ৮০ বলে ৭০ রান করেছিলেন। শ্রীলঙ্কায় রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে নয় টেস্টের সবগুলোই খেলেছেন প্রতিপক্ষের মাঠে।[১]

প্রশাসনে অংশগ্রহণসম্পাদনা

খেলোয়াড়ী জীবন থেকে অবসর নেয়ার পর ফিকার সদস্যরূপে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ তারিখে গ্রেইম লেব্রয়কে প্রধান দল নির্বাচক হিসেবে মনোনীত করা হয়।[২] তার সাথে সাবেক দল নির্বাচক অশঙ্কা গুরুসিনহা ও নতুন তিনজন - জাতীয় দলের সাবেক ব্যবস্থাপক জেরিল ওটার্সজ, সাবেক শ্রীলঙ্কান উইকেট-রক্ষক গামিনি বিক্রমাসিংহে ও সাবেক শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার সজিত ফার্নান্দোকে মনোনয়ন দেয়া হয়।[৩]

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. Walmsley, Keith (২০০৩)। Mosts Without in Test Cricket। Reading, England: Keith Walmsley Publishing Pty Ltd। পৃষ্ঠা 457। আইএসবিএন 0947540067 .
  2. "Graeme Labrooy appointed Sri Lanka chief selector"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 
  3. "Gurusinha reappointed selector after resigning"। ESPNcricinfo। সংগ্রহের তারিখ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা