গ্যারি ক্রকার

জিম্বাবুয়ীয় ক্রিকেটার

গ্যারি জন ক্রকার (ইংরেজি: Gary Crocker; জন্ম: ১৬ মে, ১৯৬২) বুলাওয়েতে জন্মগ্রহণকারী প্রথিতযশা জিম্বাবুয়ীয় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার। জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি। ১৯৯২ থেকে ১৯৯৩ সময়কালে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্যে জিম্বাবুয়ের পক্ষে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অংশগ্রহণ করেছেন।

গ্যারি ক্রকার
ব্যক্তিগত তথ্য
পূর্ণ নামগ্যারি জন ক্রকার
জন্ম (1962-05-16) ১৬ মে ১৯৬২ (বয়স ৫৮)
বুলাওয়ে, জিম্বাবুয়ে
ব্যাটিংয়ের ধরনবামহাতি
বোলিংয়ের ধরনবামহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট
আন্তর্জাতিক তথ্য
জাতীয় পার্শ্ব
টেস্ট অভিষেক
(ক্যাপ )
১৮ অক্টোবর ১৯৯২ বনাম ভারত
শেষ টেস্ট৭ নভেম্বর ১৯৯২ বনাম নিউজিল্যান্ড
ওডিআই অভিষেক
(ক্যাপ ২৫)
২৫ অক্টোবর ১৯৯২ বনাম ভারত
শেষ ওডিআই২৫ মার্চ ১৯৯৩ বনাম ভারত
খেলোয়াড়ী জীবনের পরিসংখ্যান
প্রতিযোগিতা টেস্ট ওডিআই এফসি এলএ
ম্যাচ সংখ্যা ১১
রানের সংখ্যা ৬৯ ৯৮ ২৪৫ ১০৪
ব্যাটিং গড় ২৩.০০ ২৪.৫০ ২২.২৭ ২০.৮
১০০/৫০ ০/০ ০/১ -/২ ০/১
সর্বোচ্চ রান ৩৩ ৫০ ৬২* ৫০
বল করেছে ৪৫৬ ২৩৮ ১৪৮৬ ২৯৮
উইকেট ১৪ ১০
বোলিং গড় ৭২.৩৩ ২৯.৭১ ৫০.৫৭ ২২.৬০
ইনিংসে ৫ উইকেট -
ম্যাচে ১০ উইকেট - - -
সেরা বোলিং ২/৬৫ ৪/২৬ ৬/৮৪ ৪/২৬
ক্যাচ/স্ট্যাম্পিং ০/- ১/- ২/– ১/–
উৎস: ইএসপিএনক্রিকইনফো.কম, ৩ জুলাই ২০১৯

ঘরোয়া প্রথম-শ্রেণীর জিম্বাবুয়ীয় ক্রিকেটে ম্যাশোনাল্যান্ড কাউন্টি ডিস্ট্রিক্টস দলের প্রতিনিধিত্ব করেন। দলে তিনি মূলতঃ বামহাতি মিডিয়াম-ফাস্ট বোলার হিসেবে খেলতেন। এছাড়াও, নিচেরসারিতে বামহাতে কার্যকরী ব্যাটিংশৈলী প্রদর্শন করতেন গ্যারি ক্রকার

প্রথম-শ্রেণীর ক্রিকেটসম্পাদনা

বুলাওয়ের হ্যামিল্টনে হাই স্কুলের প্রাক্তন ছাত্র তিনি। ১৯৯০-৯১ মৌসুম থেকে ১৯৯৪-৯৫ মৌসুম পর্যন্ত গ্যারি ক্রকারের প্রথম-শ্রেণীর খেলোয়াড়ী জীবন চলমান ছিল। মাতাবেলেল্যান্ড দলের অধিনায়কের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। দীর্ঘাকায়, প্রশস্ত হস্তের অধিকারী গ্যারি ক্রুকারে বামহাতি অল-রাউন্ডার হিসেবে বেশ সুনাম অর্জন করেছিলেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটসম্পাদনা

সমগ্র খেলোয়াড়ী জীবনে তিনটিমাত্র টেস্ট ও ছয়টি একদিনের আন্তর্জাতিকে (ওডিআই) অংশগ্রহণ করেছেন গ্যারি ক্রকার। ২৫ মার্চ, ১৯৯৩ তারিখে হারারেতে সফরকারী ভারতের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তার।[১] ৭ নভেম্বর, ১৯৯২ তারিখে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্টে অংশ নেন তিনি।

উদ্বোধনী টেস্ট খেলায় আলী শাহের আঘাতপ্রাপ্তির কারণে তার স্থলাভিষিক্ত হন। ১৯৯২ সালে জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটের ইতিহাসের প্রথম টেস্টে খেলায় অংশগ্রহণ করার সৌভাগ্যের অধিকারী হন। তবে, ব্যর্থতার পরিচয় দেন। ৩০ বছর বয়সী গ্যারি ক্রকার ইতোপূর্বে জাতীয় দলে খেলার সুযোগ না পেলেও পূর্ব রাত্রে জরুরী বার্তা পেয়ে ৪৪০ কিলোমিটার ভ্রমণ শেষে পরদিন সকালে হারারেতে পৌঁছেন। টেস্টে ব্যর্থ হলেও একদিনের আন্তর্জাতিকের সূচনা বেশ বারো হয়েছিল। অর্ধ-শতকের পাশাপাশি ভারতের বিপক্ষে চার উইকেট লাভ করেন।

অবসরসম্পাদনা

পরবর্তী মৌসুমে ব্যবসায়িক ব্যস্ততার কারণে কাদোমায় চলে যান। সেখানে অনুশীলনীর অভাবের পাশাপাশি দূর্বল ক্রীড়াশৈলীর কারণে আর তাকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট অঙ্গনে খেলতে দেখা যায়নি।

১৯৯৩ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলা থেকে অবসর গ্রহণ করেন। রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা ও অর্থনৈতিক মন্দাভাব বিরাজমান থাকায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসিত হন তিনি। বর্তমানে তিনি লস অ্যাঞ্জেলসে বসবাস করছেন ও হলিউড ক্রিকেট ক্লাবের সাথে সামাজিক স্তরের ক্রিকেটে অংশ নিচ্ছেন। তার সন্তান শন ক্রুকারে পেশাদারী পর্যায়ে গল্ফ খেলছেন।[২] ক্রিকেট খেলার পাশাপাশি বেসবল খেলায়ও তিনি সিদ্ধহস্তের পরিচয় দিয়েছেন।

তথ্যসূত্রসম্পাদনা

  1. "India in Zimbabwe (1992 – 1993): Scorecard of only one Test"। Cricinfo। সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩, ২০১৯ 
  2. "Four young golfers qualify for The Open in Singapore"। Asian Tour। ২১ জানুয়ারি ২০১৮। ২৭ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা। সংগ্রহের তারিখ ৩ জুলাই ২০১৯ 

আরও দেখুনসম্পাদনা

বহিঃসংযোগসম্পাদনা